১৮ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ৫ ডিসেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

১৮ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ৫ ডিসেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

পিয়ারলেস: ১ (ক্রোমা) 

ইস্টবেঙ্গল: ০

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কলকাতা লিগে নতুন রূপকথার সন্ধানে পিয়ারলেস। আগেই মোহনবাগানকে একপেশে ম্যাচে হারিয়েছিল ক্রোমারা। এবার ইস্টবেঙ্গলের বিরুদ্ধেও দুর্দান্ত জয় তুলে নিল পিয়ারলেস। ঘরের মাঠে আবারও হতাশ করল ইস্টবেঙ্গল। কর্দমাক্ত মাঠে ক্রোমাদের বিরুদ্ধে বেশ কয়েকটি সুযোগ তৈরি করেও কাজে লাগাতে পারল না তাঁরা। ফলে পিয়ারলেস জিতল ১-০ গোলে। ম্যাচ শেষে অবশ্য অপ্রীতিকর পরিস্থিতি দেখা গেল ইস্টবেঙ্গল মাঠে।রেফারির সঙ্গে বিতর্ক জড়িয়ে পড়লেন ইস্টবেঙ্গল ফুটবলাররা।

[আরও পড়ুন: ঘরের মাঠে প্রথম জয়, জর্জকে হেলায় হারিয়ে লিগ শীর্ষে মোহনবাগান]

মোহনবাগান এবং ইস্টবেঙ্গলকে বাদ দিলে লিগের সবচেয়ে শক্তিশালী দল পিয়ারলেস। ক্রোমা, এডমন্ড, কালোন এবং অ্যান্টনি উলফদের মতো বিদেশি রয়েছেন। রয়েছেন জীতেন মূর্মূ, মোহনরাজ, ফুলচাঁদদের মতো দেশি ফুটবলার। স্বাভাবিকভাবেই এদিন কঠিন চ্যালেঞ্জের মুখে পড়তে হবে তা জানতেন ইস্টবেঙ্গল কোচ আলেজান্দ্রো। ক্রোমা, এডমন্ডদের নিয়ে গড়া পিয়ারলেস মোহনবাগানকে হারিয়েছে ৩-০ গোলে। যা অন্য দলগুলিকে ভয় পাইয়ে দেওয়ার পক্ষে যথেষ্ট। সেইমতো প্রস্তুতিও নিয়েছিল লাল-হলুদ শিবির।  ডিফেন্স এবং সেন্ট্রাল মিডফিল্ডে অতিরিক্ত জোর দিয়েছিলেন ইস্টবেঙ্গল কোচ। কিন্তু তাতেও কোনও লাভ হয়নি। শেষ পর্যন্ত রক্ষণে কমলপ্রিতের একটি ভুলের জন্য শূন্য হাতে ফিরতে হল ইস্টবেঙ্গলকে। 

[আরও পড়ুন: ঘরোয়া লিগে জর্জের চ্যালেঞ্জ, নিজেদের মাঠে প্রথম জয়ের খোঁজে মোহনবাগান]

এদিন ম্যাচের শুরু থেকেই সমানে সমানে লড়াই হয়েছে দুই দলের। ম্যাচের আগে বৃষ্টি হওয়ায় খানিকটা সমস্যায় পড়তে হয় ইস্টবেঙ্গলকে। কর্দমাক্ত মাঠে ক্রোমারা যতটা স্বচ্ছন্দ ইস্টবেঙ্গল ততটা নয়। তবে, এদিন টানটান খেলা হয়েছে। সুযোগ পেয়েছে দু’পক্ষই। কিন্তু, ম্যাচের ৬৪ মিনিটে ইস্টবেঙ্গলের কমলপ্রিতের একটি ভুলের জন্য পেনাল্টি পেয়ে যায় পিয়ারলেস। বক্সের মধ্যে পিয়ারলেসের পঙ্কজকে ফাউল করেন তিনি। পেনাল্টি পেয়ে যায় পিয়ারলেস। পেনাল্টি স্পট থেকে গোল করতে ভুল করেননি ক্রোমা। এক গোলে পিছিয়ে পড়ে মরিয়া হয়ে যায় ইস্টবেঙ্গল। দফায় দফায় আক্রমণ শানিয়েও লাভ হয়নি। খেলা শেষ হয় ১-০ গোলে। ম্যাচ শেষের বাঁশি বাজতেই রেফারির সঙ্গে তর্কে জড়িয়ে পড়েন ইস্টবেঙ্গল সমর্থকরা। রেফারি দীপু রায়ের উপর কাউকে কাউকে চড়াও হতেও দেখা যায়। মাঠে ঢুকে যায় সমর্থকদের কেউ কেউ। যদিও, কোচ আলেজান্দ্রো এবং পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং