৫ আশ্বিন  ১৪২৬  সোমবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

ভারত: ০

কাতার: ০

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: এ যেন অসম্ভবকে সম্ভব করা। প্রাক বিশ্বকাপ প্রস্তুতি ম্যাচে এশিয়ার চ্যাম্পিয়নদের বিরুদ্ধে দুর্দান্ত পারফরম্যান্স করে এক পয়েন্ট ছিনিয়ে নিল ইগর স্টিমাচের ছেলেরা। একদিকে এশিয়ার অন্যতম সেরা দল কাতার দুর্দান্ত ফর্মে। অন্যদিকে, শেষ ম্যাচে ওমানের বিরুদ্ধে পরাস্ত ভারত। এই ম্যাচের আগে অনেকে ধরেই নিচ্ছিলেন, ভারত বেশ কয়েক গোলেই পরাস্ত হতে চলেছে। কিন্তু, এদিন সবাইকে চমকে দিয়ে কাতারের বিরুদ্ধে ৯০ মিনিটে একটিও গোল হজম করতে হল না টিম ইন্ডিয়াকে।

[আরও পড়ুন:  ভালবাসার টান, নেটদুনিয়ায় বাংলায় নাম লিখলেন বাগানের স্প্যানিশ তারকা]

প্রতিপক্ষ কাতার, যারা কিনা এশিয়ার চ্যাম্পিয়ন। ফিফা ব়্যাঙ্কিংয়ে এশিয়ার দলগুলির মধ্যে পাঁচ নম্বরে থাকলেও, কাতারের এই দলটি যে এশিয়ার সেরা দলগুলির মধ্যে পড়ে তা বলার অপেক্ষা রাখে না। কাতার যে দুর্দান্ত ফর্মে আছে, তার প্রমাণ দেয় তাদের শেষ ম্যাচের ফলাফল। আগের ম্যাচেই আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে হাফ ডজন গোলে জিতেছে কাতার। তাছাড়া সদ্যসমাপ্ত এশিয়ান গেমসে এশিয়ান চ্যাম্পিয়নরা গোল দিয়েছে ১৯টি, খেয়েছে মাত্র ১টি। এ হেন দুর্দান্ত ফর্মে থাকা দলকে ০-০ গোলে আটকে দিলেন গুরপ্রিত সিং সিন্ধুরা।
প্রথমার্থে ভারত পুরোপুরি ডিফেন্সে মনোনিবেশ করেছিল ঠিকই। কিন্তু, আগের ম্যাচে ওমানের বিরুদ্ধে যে ডিফেন্স ভারতকে ডুবিয়েছে সেই রক্ষণ এদিন আর ভারতকে হতাশ করেনি। সন্দেশ ঝিঙ্গান, আদিল খান, মন্দার রাও দেশাই, রাহুল বেকেরা দুর্দান্ত পারফরম্যান্স করলেন। তবে, তাদের অনবদ্য পারফরম্যান্স সত্ত্বেও হয়তো ভারতকে প্রথমার্ধে একাধিক গোল হজম করতে হত, যদি না অধিনায়ক গুরপ্রিত সিং দেওয়ালের মতো গোলের সামনে দাঁড়িয়ে থাকতেন। কাতারের ফুটবলারদের একের পর এক শট, একের পর কর্নার দুর্দান্ত দক্ষতায় ভারতীয় অধিনায়ক আটকে দিয়েছেন। দেশের জার্সি গায়ে অন্যতম সেরা ম্যাচটি হয়তো খেললেন গুরপ্রীত।

[আরও পড়ুন: ঘরোয়া লিগে পিয়ারলেসের বিরুদ্ধে হার, রেফারির উপর চড়াও ইস্টবেঙ্গল ফুটবলাররা!]

দ্বিতীয়ার্ধে অবশ্য একপেশেভাবে আক্রমণ করতে পারেনি কাতার। সুযোগ পেলেই সাহাল আবদুল সামাদ, উদান্ত সিংরা প্রতি-আক্রমণে যাচ্ছিলেন। একাধিক সহজ সুযোগও তৈরি হয়েছিল। কিন্তু, আক্রমণভাগে অভিজ্ঞ সুনীলের অনুপস্থিতি এদিন ভোগাল ভারতকে। সুনীল যদি জ্বরের জন্য ছিটকে না যেতেন তাহলে হয়তো ফলাফল অন্য হতে পারত। এদিনের ম্যাচে অপ্রত্যাশিত এক পয়েন্ট পেয়ে বাছাই পর্বের পরের রাউন্ডে যাওয়ার আশা জিইরে রাখল ভারতীয় দল।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং