BREAKING NEWS

৪ মাঘ  ১৪২৭  সোমবার ১৮ জানুয়ারি ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

জানেন, কলকাতার কোন খাবার সবচেয়ে প্রিয় বাগানের নয়নের মণি রয় কৃষ্ণর?

Published by: Abhisek Rakshit |    Posted: November 29, 2020 6:26 pm|    Updated: November 29, 2020 6:26 pm

An Images

স্টাফ রিপোর্টার: কার কত বল পজেশন ছিল। কে ক’টা পাস খেলেছে। কে কত গোলের সুযোগ পেয়েও হারিয়েছে। এগুলি এখন সব অতীত। আইএসএলের ইতিহাসে এটাই লেখা থাকবে, প্রথম কলকাতা ডার্বিতে এসসি ইস্টবেঙ্গলের বিরুদ্ধে প্রথম গোল করেছিলেন এটিকে মোহনবাগানের (Atk Mohunbagan) রয় কৃষ্ণ (Roy Krishna)। সবুজ-মেরুন জনতা কৃষ্ণ প্রেমে মজলে কী হবে, রয় কৃষ্ণ নিজে মজেছেন কলকাতার (Kolkata) ফুচকায়। শুনতে আজব হলেও এটাই সত্যি। টাইট ডায়েটের মধ্যেও ফুচকা প্রেমে মজেছেন এটিকে মোহনবাগানের গোল মেশিন। যা এই মরশুমে ভীষণ ভাবে মিস করছেন।

পর পর দুটো ম্যাচেই গোল। স্বাভাবিক ভাবেই ব্যারেটো, ওডাফা, সনি নর্ডির পর সবুজ-মেরুন জনতার এখন নয়নের মণি রয় কৃষ্ণ। ফিজির তারকা বলছেন, “সময় কম পেলেও গত মরশুমে মাঝেমধ্যেই কলকাতা ঘুরে দেখতাম। হাওড়া ব্রিজকে বারবার দেখতাম। দারুণ লাগত রাস্তার পাশে ছোট কোনও দোকান থেকে চা খেতে। আর সঙ্গে ফুচকা। আমাদের টাইট ডায়েটের মধ্যে ফুচকা খাওয়া একদমই ঠিক নয়। কিন্তু মাঝে মধ্যেই ফুচকা খেয়েছি।”

[আরও পড়ুন: বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ধর্ষণ, যৌন নির্যাতন! বিস্ফোরক অভিযোগ বাবর আজমের বিরুদ্ধে]

এদিন সম্পূর্ণ খোলামেলা ছিলেন ডার্বি ম্যাচের নায়ক। টিমমেট প্রবীর দাসকে নিয়ে মজা করে বলছিলেন, “আমার স্ত্রীর থেকে বোধহয় বেশি আমাকে টেক্সট করে প্রবীর। শুরুতে যখন কলকাতায় এসেছিলাম, কোনও বন্ধু ছিল না। প্রবীর অবশ্য শুরুর দিন থেকেই আমার বন্ধু হয়ে গিয়েছে। যখন প্র‌্যাকটিস থাকে না, প্রবীরের মজার মজার কথা শুনে সময় কেটে যায়। ওর বাড়িতে গিয়ে ওর মা’র হাতের মাছ রান্নাও খেয়েছি।’’ রয় কৃষ্ণ এদিন এতটাই ভাল মুডে ছিলেন যে বলছিলেন, “প্রবীর, প্রীতম, অরিন্দম, প্রণয় সবাইকে বলেছি, মরশুম শেষে ফিজিতে আমার বাড়ি ঘুরে আসতে। ওদের এখানে বাঙালি সংস্কৃতি আমি দেখেছি। ওরাও এবার আমার বাড়ি গিয়ে ফিজির সংস্কৃতি দেখে নিক।”

খেলার পাশাপাশি সময় কাটানোর জন্য রয় কৃষ্ণর হবি হল হিন্দি সিনেমা দেখা। কৃষ্ণ বললেন, “অমিতাভ বচ্চনের ফ্যান আমি। দারুণ লাগে ওঁর সিনেমা দেখতে।” তাহলে অমিতাভের প্রিয় ডায়ালগ? হাসতে হাসতে কৃষ্ণ বললেন, “ডন কো পকড়না মুশকিল হি নহি, নামুমকিন হ্যায়।” হয়তো অমিতাভ বচ্চনের ডায়ালগ বললেন। কিন্তু পর পর দু’ম্যাচে যা পারফরম্যান্স দেখিয়েছেন, আসলে সেটা যে আইএসএলের অন্যান্য দলগুলির জন্য রয় কৃষ্ণর ডায়ালগ হয়ে যাচ্ছে, সেটা এখন সবাই বুঝতে পারছেন।” কিন্তু আপনার প্রিয় নায়িকা? রয় কৃষ্ণ বললেন, “বিদ্যা বালান। দীপিকা পাড়ুকোন আর প্রিয়াঙ্কা চোপড়াকে আগে ভাল লাগত।” আগে ভাল লাগলে এখন কেন লাগে না? এটিকে মোহনবাগান তারকা হাসতে হাসতে বললেন, “বিয়ে করে নিল যে!” এটাও বলে দিলেন, যদি সুযোগ পেতেন, তাহলে নিশ্চয়ই একটা সিনেমা বানাতেন। বললেন, “থ্রি ইডিয়টস বানাব। অভিনয়ে আমি ছাড়াও থাকবে প্রবীর আর অরিন্দম।”

[আরও পড়ুন: ম্যাচ চলাকালীনই গ্যালারিতে অজি গার্লফ্রেন্ডকে বিয়ের প্রস্তাব ভারতীয় যুবকের, ভাইরাল ভিডিও]

শুক্রবারের ডার্বির প্রসঙ্গে বলছিলেন, “হাবাস বলেছিলেন, ধীরে সুস্থে শুরু করতে। প্রতিপক্ষকে আগে বুঝে নিয়ে সময় সুযোগ পেয়ে ঝাঁপিয়ে পড়তে। সেটাই আমরা করেছি। তবে এরকম একটা ম্যাচ জেতার পর মাঠে সমর্থকদের দেখতে না পেয়ে ভীষণ খারাপ লেগেছে। তবে সকালে ঘুম থেকে উঠে দেখি, একের পর এক মেসেজ আর ভিডিও ক্লিপিংস পাঠানো হয়েছে। কলকাতায় সমর্থকদের সামনে ডার্বি খেলার জন্য মুখিয়ে আছি।’’

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement