BREAKING NEWS

২ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ইস্টবেঙ্গলের সামনে আইএসএলের দরজা খুলে দেওয়ার নেপথ্য কারিগর সৌরভও! কী বললেন দাদা?

Published by: Abhisek Rakshit |    Posted: September 2, 2020 9:52 pm|    Updated: September 2, 2020 10:11 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:‌ সমস্ত জল্পনার অবসান ঘটিয়ে ইনভেস্টর এল ইস্টবেঙ্গলে (East Bengal)। ফলে নতুন করে আইএসএলে খেলার জন্য দরজা খুলে গেল ইস্টবেঙ্গলের জন্য। আর এজন্য হস্তক্ষেপ করেছেন খোদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। তবে এর পাশাপাশি অবদান রয়েছে বিসিসিআই সভাপতি তথা বাংলার মহারাজ সৌরভ গাঙ্গুলিরও।

সূত্রের খবর, সৌরভই (Sourav Ganguly) মূলত আম্বানি পরিবারের সঙ্গে কথা বলে ইস্টবেঙ্গলকে আইএসএলে খেলার বিষয়টি পাকা করেছেন। কারণ আইএসএলে খেলার সময়সামী ইতিমধ্যে পার হয়ে গিয়েছিল। লাল–হলুদ কর্তারা বসেছিলেন ভাল ইনভেস্টর পাওয়ার আশায়। এর মধ্যেই ‘‌শ্রী সিমেন্ট’‌–এর সঙ্গে কথাবার্তা এগোতে থাকে। এবং সবশেষে সৌরভের কথাতেই নাকি ইস্টবেঙ্গলকে আইএসএলে নিতে রাজি হয় FSDL।

[আরও পড়ুন: ইবিজায় পার্টির খেসারত!‌ করোনায় আক্রান্ত নেইমার, দাবি ফরাসি সংবাদমাধ্যমের]

এর আগে ইস্টবেঙ্গলের শীর্ষকর্তারা বেশ কয়েকজন ইনভেস্টরের সঙ্গে কথা বলার পরও তা ভেস্তে যায়। এর মধ্যেই এটিকে–মোহনবাগান এক হয়ে আইএসএল খেলার কথা জানায়। শেষপর্যন্ত বিষয়টিতে হস্তক্ষেপ করেন মুখ্যমন্ত্রী। বিষয়টি দেখতে বলেন মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাসকে। আর তারপরই শুরু হয় ‘‌শ্রী সিমেন্ট’‌–এর সঙ্গে কথাবার্তা। কিন্তু তখনও প্রশ্ন ছিল, ইনভেস্টর এলেই ISL খেলা সম্ভব!‌ কারণ FSDL সংস্থার কর্তাদের সঙ্গে লাল হলুদের সম্পর্ক ভাল ছিল না। তারা শুরু থেকে বলে এসেছিল ১৫ কোটি টাকা না দিলে তাদের নাম নথিভুক্ত করা যাবে না। কিন্তু ওই অর্থ ক্লাব দিতে চায়নি। এই নিয়ে জটিলতা সৃষ্টি হয়। তখনই নাকি আসরে নামেন সৌরভও। এটিকের অংশীদার হওয়ায় মোহনবাগান ক্লাবের বোর্ড অব ডাইরেক্টরে রয়েছেন। তা সত্ত্বেও ইস্টবেঙ্গলের সাহায্যে এগিয়ে আসেন।

[আরও পড়ুন: মুখ্যমন্ত্রী পাশে দাঁড়ানোয় এবার আইএসএলে খেলবে ইস্টবেঙ্গলও, ঘোষণা করে দিল ক্লাব]

জানা গিয়েছে, মাঝে লাল–হলুদ কর্তা দেবব্রত সরকারের সঙ্গে ইনভেস্টর নিয়ে কথা বলেন সৌরভ। তারপরই মুকেশ আম্বানি (Mukesh Ambani) এবং তাঁর ছেলে আকাশ আম্বানির সঙ্গে ফোনে ইস্টবেঙ্গলের আইএসএল অংশগ্রহণের বিষয়ে কথা বলেন সৌরভ। জবাবে আকাশ তাঁকে জানান, বিষয়টি নিয়ে নীতা আম্বানির সঙ্গে এবং এফএসডিএল কর্তাদের সঙ্গে কথা বলবেন তিনি। এরপর সৌরভও ফের কথা বলেন এফএসডিএল কর্তাদের সঙ্গে। তাঁদের বোঝান, আইএসএলের জনপ্রিয়তার জন্য ইস্টবেঙ্গলের প্রয়োজন কতটা!‌ আশ্বস্ত করেন ক্লাবের তরফ থেকে এ ধরনের জটিলতা আর সৃষ্টি হবে না। দরকার হলে নিজে গোটা বিষয়টি দেখবেন। আর এরপরই সুর নরম করে FSDL‌। যদিও এদিন ওই বিষয়ে কোনও মন্তব্যে করেননি সৌরভ। শুধু বলেন, ‘‘ইস্টবেঙ্গল বড় ক্লাব, তারা আইএসএল খেলতই। আমি শুধু ওদের দিকনির্দেশ করেছি।’’

[আরও পড়ুন: এই ক্লাবের সঙ্গেই পাঁচ বছরের চুক্তি করতে চলেছেন মেসি, দাবি স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যমের]

এদিকে, ইস্টবেঙ্গলের ইনভেস্টর পাওয়ার ব্যাপারে প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে মোহনবাগান সচিব সৃঞ্জয় বোস বলেন, ‘‌‘‌ফুটবলের জন্য ভাল খবর যে ইস্টবেঙ্গলও আইএসএল খেলবে। অনেকেই যখন চিন্তিত হয়ে পড়েছিলেন মোহনবাগান ও ইস্টবেঙ্গলের ডার্বি ম্যাচ আর দেখা যাবে না, তখন তারা আইএসএল খেলতে পারায় সেই পরিস্থিতির অবসান হল। ইস্টবেঙ্গল কর্তারা যে কাজটি পারেননি, শেষ পর্যন্ত তা করতে হল রাজ্যের মাননীয় মুখ্যমন্ত্রীকে। সেই জন্য তাঁকে ধন্যবাদ জানাই।’‌’‌

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement