BREAKING NEWS

২ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

বিদেশের মাটিতে ইতিহাস গুরপ্রীতের

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: July 5, 2016 4:52 pm|    Updated: July 5, 2016 4:52 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ইউরোপা লিগের প্রথম কোয়ালিফাইং রাউন্ডে মাঠে নেমে ভারতীয় ফুটবলকে এক অন্য মাত্রায় পৌঁছে দিয়েছেন গোলকিপার গুরপ্রীত সিং সান্ধু৷ দেশের মাটিতে নানা ব্যর্থতার জবাব দিয়ে ইতিহাস গড়েছেন ‘পঞ্জাব দা পুত্তর’৷ এর আগে এত বড় মঞ্চে নামেনি কোনও ভারতীয় ফুটবলার৷

নরওয়ের ক্লাব স্তাব্যাকের হয়ে গত বছর অভিষেক ঘটেছিল৷ রুনারের বিরুদ্ধে খেলেছিলেন সেবার৷ দীর্ঘ প্রতিক্ষার পর সেই ক্লাবের হয়েই গত সপ্তাহে ওয়েলসের ক্লাব নোম্যাডসের বিরুদ্ধে মাঠে নামেন ভারতীয় গোলকিপার৷ ২৮ মিনিট গোল পোস্টের নিচে দাঁড়িয়ে কোচের নজর কেড়ে নিতে সফল হন৷ তারপর কব্জিতে চোট পেয়ে মাঠ ছাড়েন গুরপ্রীত৷

দীর্ঘ পরিশ্রম আর অপেক্ষার পর এই দিনটা এসেছে৷ ইউরোপা লিগের কোয়ালিফায়িং রাউন্ডে মাঠে নেমে কেমন লাগল তাঁর? এই প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার সময় ৬ ফুট ৪ ইঞ্চি লম্বা গোলকিপারের গলায় আক্ষেপের সুর৷ প্রাক্তন লাল-হলুদ গোলকিপার বললেন, “ভাল লাগল৷ কিন্তু এত তাড়াতাড়ি মাঠ ছাড়তে চাইনি৷ প্রতিপক্ষ বেশ শক্তিশালী ছিল৷ ১৪ মিনিটেই চোটটা পাই৷ তা সত্ত্বেও খেলা চালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছিলাম৷ এই ২৮ মিনিট সারা জীবন মনে রাখব৷ ইউরোপা লিগে খেলার আনন্দ অনুভব করলাম৷”

আন্তর্জাতিক ক্লাবে খেলার সুযোগ সব ভারতীয় ফুটবলারের জোটে না৷ বিদেশি ক্লাবে খেলার গুরুত্বটা তাই ভালই বুঝেছেন গুরপ্রীত৷ বলছেন, “ভারতের ফুটবলাররা অনেক বেশি বয়সে খেলা শুরু করে৷ ১৬-১৭ বছর বয়সে কেরিয়ার শুরু মানে অনেকটাই দেরি করে ফেলা৷ তার উপর উঠতি খেলোয়াড়দের লক্ষ্য থাকে আই লিগ আর আইএসএল৷ আমার মনে হয়, লক্ষ্যের পরিধিটা বাড়াতে হবে৷ তরুণ ফুটবলাররা যদি বিদেশে প্রশিক্ষণের সুযোগ পায়৷ তাহলে আখেরে ভারতেরই লাভ৷”

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement