২০ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ৭ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

আজ যুবভারতীতে চার্চিলের বিরুদ্ধে সোনির সঙ্গে শুরু থেকে শিল্টনও

Published by: Sulaya Singha |    Posted: November 25, 2018 11:26 am|    Updated: November 25, 2018 1:47 pm

Mohun Bagan to face Churchill Brothers

ছবি: অচিন্ত্য রায়

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিনয়। নম্রতা। সামনের মানুষকে সম্মান দেওয়া। এই ধরনের কথা বললে সবার আগে মনে পড়ে লখনউবাসীদের কথা। শনিবার সকালের মোহনবাগান লন হঠাৎ করেই যেন মনে করিয়ে দিল নবাবদের শহরকে। দেখে বোঝার উপায় নেই জায়গাটি গোষ্ঠ পাল সরণি নাকি গোমতী নগর!

লজ্জাবতী গাছের মতো নুইয়ে পড়া শুরু করলেন চার্চিল ব্রাদার্স কোচ পেত্রে গিগিউ। রোমানিয়ার বাসিন্দা শুরু থেকেই মোহনবাগানকে তুলতে থাকলেন সপ্তম স্বর্গে। বলছিলেন, “চারটে ম্যাচ খেলে ফেললেও এই ম্যাচটাই আমাদের আসল পরীক্ষা। মোহনবাগান খুব ভাল দল। তাছাড়া ওদের সঙ্গে রয়েছে প্রচুর ইতিহাস। কলকাতা তো ফুটবলের শহর। এখানে এসে খেলা সবসময়ই স্পেশ্যাল। একে অ্যাওয়ে ম্যাচ, তার উপর সামনে মোহনবাগান। একটা পয়েন্ট পেলেই আমাদের জন্য যথেষ্ট। ছেলেদের বলেছি খোলামনে খেলতে। আমাদের উপর তো কোনও চাপ নেই। যা চাপ সব ওদের। তাই আশা করি আমরা ভাল ফুটবল উপহার দিতে পারব।”

[চোট সারিয়ে ফের বাজিমাত, বিশ্বকাপে ব্রোঞ্জ পেলেন দীপা]

ছ’বছর আগে আই লিগ চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল চার্চিল ব্রাদার্স। তবে তা এখন গল্পগাথা। শেষ কয়েক বছর চার্চিল খেলেছে শুধু অবনমন বাঁচাতে। তাও গত বছর তারা তা বাঁচাতে পারেনি। তবু ফেডারেশন গোয়ার দলটিকে এবার আই লিগে খেলার সুযোগ দিয়েছে। সাম্প্রতিক অতীতের কথা মাথায় রাখলে এমন একটা দলকে খুব একটা গুরুত্ব হয়তো কেউ দেবেন না। কিন্তু সেই হাওয়ায় গা ভাসালেন না মোহনবাগান কোচ শংকরলাল চক্রবর্তী। সাংবাদিক সম্মেলনে একেবারে চার্চিলের সুরেই সুর মেলালেন তিনি। বারবার বললেন, “চার্চিল প্রচণ্ড শক্তিশালী দল।” “ওদের অন্তত আট-নয়জন এমন ফুটবলার আছে, যারা যখন-তখন ম্যাচের রং বদলে দিতে পারে। আমাদের থেকে ওরা দলগতভাবে অনেক শক্তিশালী।”

মুখে যাই বলুন, সবার অলক্ষে কাজের কাজটি অবশ্য ঠিক করে ফেলেন শংকরলাল। কথা ছিল শনিবার সকাল সাড়ে আটটায় শুরু হবে প্র‌্যাকটিস। কিন্তু সাংবাদিক, সদস্য-সমর্থক সবার থেকে আড়াল করতে সদলবলে মাঠে নেমে পড়লেন নির্ধারিত সময়ের প্রায় এক ঘণ্টা আগে। চুপচাপ করে ফেললেন চার্চিল বধের ড্রেস রিহার্সাল। রবিবার সোনির শুরু থেকে খেলা প্রায় নিশ্চিত। চোট কাটিয়ে সুস্থ হয়ে যাওয়ায় খেলবেন শিল্টন পালও। মুখে না বললেও চার্চিল ম্যাচের আগে মোহনবাগানে একটা বিষয় বেশ স্পষ্ট। তা হল ঘরের মাঠে পয়েন্ট নষ্টের ভূত তাড়ানো। গত মরশুমে তিনটি করে ম্যাচ ড্র করে ও হেরে ১৫ পয়েন্ট নষ্ট করেছিল মোহনবাগান। এবারও এখনও পর্যন্ত খেলা একমাত্র হোম ম্যাচে ড্র করেছে মোহনবাগান। যদিও সেই পয়েন্ট নষ্টকে খুব একটা গুরুত্ব দিচ্ছেন না শংকরলাল। বললেন, “ড্র হয়েছে ঠিক। কিন্তু ছেলেরা শেষ ম্যাচটায় দারুণ খেলেছে। ছেলেদের বলেছি ম্যাচটা উপভোগ করতে। তাহলেই ভাল ফুটবল সম্ভব। এতে অতিরিক্ত চাপও আসবে না।”

আজ মোহনবাগান বনাম চার্চিল ম্যাচ শুরু বিকেল পাঁচটায়।

[স্টেডিয়ামে ব্যাগ নিয়ে ঢোকায় সমস্যা? সমাধানে এগিয়ে এল মোহনবাগান ফ্যান ক্লাব]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে