BREAKING NEWS

২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২২ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

অরুণলালকে সম্মান দিচ্ছে মোহনবাগান

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: July 27, 2016 1:37 pm|    Updated: July 27, 2016 1:37 pm

An Images

স্টাফ রিপোর্টার: অরুণলালকে বিশেষ সম্মানে সম্মানিত করতে চায় মোহনবাগান৷ ২৯ জুলাই মোহনবাগান দিবসের দিন তাঁকে আমন্ত্রণ জানানো হচ্ছে৷

উত্তরপ্রদেশের মোরাদাবাদে জন্ম জগদীশলাল অরুণলালের৷ ৬০ বছরের বৈচিত্র্যময় ক্রিকেট জীবনে দিল্লি থেকে খেলা শুরু করলেও বাংলাতেই তাঁর আসল পরিচিতি৷ বাংলার হয়ে যেমন একটানা রঞ্জি খেলেছেন৷ আবার ভারতের হয়ে ১৯৮২ থেকে ১৯৮৯ পর্যন্ত টানা খেলেছেন৷ ১৯৭৯-তেতে দিল্লি থেকে কলকাতায় চলে আসার পর আর নিজভূমিতে কখনও ফিরে যাননি৷

শুধু খেলা নয়, জাতীয়তাবাদ তুলে ধরার জন্য দূরদর্শন কিছুদিন আগে একটা গান রচনা করেছিল৷ ‘মিলে সুর মেরা তুমহারা’র সেই গানে গলা মিলিয়ে ছিলেন অরুণলাল৷ খেলা ছাড়ার পর ক্রিকেট অ্যাকাডেমির পাশাপাশি তিনি কমেন্ট্রিতে জড়িয়ে পড়েন৷ তবে দুরারোগ্য ক্যানসারে আক্রান্ত হয়ে কয়েকমাস চলে গিয়েছিলেন সকলের অন্তরালে৷ গত মাসেই ক্যানসারকে জয় করে ফিরে এসেছেন৷ জীবনের সঙ্গে লড়াই করে ফিরে আসাকেই বিশেষভাবে সম্মানিত করতে চায় মোহনবাগান৷

চুনী গোস্বামী, সুব্রত ভট্টাচার্য, সত্যজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের মতোই তিনি একসময় ছিলেন মোহনবাগানের ঘরের ছেলে৷ বহু বছর ময়দানে ক্রিকেট খেলেছেন মোহনবাগানের হয়ে৷ নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক ক্লাবকর্তা বলছিলেন, “অরুণলালের লড়াইকে সম্মান না জানিয়ে উপায় নেই৷ তিনি একদিকে যেমন খেলার মাঠে লড়াই করে প্রতিপক্ষকে ধরাশায়ী করতেন৷ ঠিক একইভাবে মাঠের বাইরেও ক্যানসারের মতো দুরারোগ্য ব্যাধিকে হার মানিয়েছেন৷ তারজন্য তাঁকে সম্মান জানানো উচিত৷ তাছাড়া তিনি তো হলেন মোহনবাগানের ছেলে৷ তাঁর এই লড়াইকে যদি আমরা স্বীকৃতি না দিই তাহলে কে দেবে?”

মোহনবাগান দিবসের দিন এবার সঙ্গীত পরিবেশন করবেন তিন বিশিষ্ট সঙ্গীতশিল্পী শিবাজী চট্টোপাধ্যায়, ইমন ও বিনোদ রাঠোর৷ এছাড়া যেমন খেলাধুলো হয় এবারও তেমন হবে৷ আরও ঠিক হয়েছে, এবার সংবর্ধনা মঞ্চে কার্যনির্বাহি কমিটির প্রতিটি সদস্যের জন্য আলাদা আলাদা চেয়ার থাকবে৷ যা আগে কখনও হয়নি৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement