৪ কার্তিক  ১৪২৬  মঙ্গলবার ২২ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ‘মারি ছোড়িয়া ছোড়ো সে কম হ্যায় কে’। ‘দঙ্গল’ ছবির সেই বিখ্যাত সংলাপের আরও একবার মর্যাদা রাখলেন ফোগাট পরিবারের কন্যা। দুর্দান্ত পারফর্ম করে ২০২০ টোকিও অলিম্পিকের ৫৩ কেজি বিভাগে যোগ্যতা অর্জন করলেন ভিনেশ ফোগাট। চলতি বিশ্ব কুস্তি চ্যাম্পিয়নশিপের দ্বিতীয় রেপেচেজ রাউন্ডে সারা অ্যান হিল্ডারব্র্যান্টকে হারিয়ে টোকিও অলিম্পিকের টিকিট নিশ্চিত করে ফেলেন হরিয়ানার তারকা কুস্তিগির।

[আরও পড়ুন: পি ভি সিন্ধুকে বিয়ে করতে চান ৭০ বছরের বৃদ্ধ! রাজি না হলে অপহরণের হুমকি]

মঙ্গলবারই প্রি-কোয়ার্টার ফাইনালে হেরে খেতাব জয় থেকে ছিটকে গিয়েছিলেন ভিনেশ। তবে অলিম্পিকে ঠাঁই পাওয়াকেই পাখির চোখ করেছিলেন। সেই লক্ষ্যেই রিংয়ে নামেন এদিন। প্রথম রেপেচেজ রাউন্ডে ব্লাহিন্যাকে ৫-০ ব্যবধানে হারান ভারতীয় কুস্তিগির। তারপর বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপে রুপোজয়ী সারাকে ৮-২ ব্যবধানে পরাস্ত করেন ভিনেশ। এবার ব্রোঞ্জ পদকের জন্য তিনি মুখোমুখি হবেন গ্রিসের মারিয়া প্রিভোলারাসির। অলিম্পিকে নিজের জায়গা নিশ্চিত হওয়ায় উচ্ছ্বসিত ভিনেশ বলেন, “টোকিও যাচ্ছি জেনে অনেকটা স্বস্তি বোধ করছি। কিন্তু এখানে এখনও লড়াই বাকি। পরের বাউটে পদক জিততে পারি। সেটা হাতছাড়া করতে চাই না।”

[আরও পড়ুন: বিরিয়ানিতে নিষেধাজ্ঞা, পাক ক্রিকেটারদের ডায়েট চার্ট বেঁধে দিলেন কোচ মিসবা]

বিশ্ব কুস্তি চ্যাম্পিয়নশিপের পঞ্চম দিন নিজের অভিযান শুরু করেছিলেন ভিনেশ। শুরুটা যদিও মন্দ হয়নি। অলিম্পিকে ব্রোঞ্জজয়ী সুইডিশ তারকা সোফিয়া ম্যাটসনকে ১৩-০ ব্যবধানে হারান তিনি। তবে কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে জাপানের মায়ু মুকাইদার কাছে মুখ থুবড়ে পড়েন। ৭-০ ব্যবধানে পরাস্ত হন তিনি। কিন্তু রেপেচেজ রাউন্ডে অংশ নেওয়ার পথ খোলা ছিল ভিনেশের সামনে। আর তাকেই পুরোদস্তুর কাজে লাগান তিনি। কমনওয়েলথ ও এশিয়ান গেমসে সোনা জিতলেও তিনবারের চেষ্টায় একবারও এই টুর্নামেন্টে খেতাবের মুখ দেখেননি তিনি। কিন্তু চতুর্থবার ফের তাঁর সামনে জয়ের হাতছানি। গ্রীক কুস্তিগিরকে হারাতে পারলেই পদক নিশ্চিত করবেন তিনি।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং