১৪  আশ্বিন  ১৪২৯  রবিবার ২ অক্টোবর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

টেনিসকে বিদায় জানালেন কিংবদন্তি ফেডেরার, শেষ হয়ে গেল ‘ফেডেক্স যুগ’

Published by: Krishanu Mazumder |    Posted: September 15, 2022 7:10 pm|    Updated: September 15, 2022 10:00 pm

Roger Federer confirmed that he is to retire from official competition | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বহু ব্যবহারে ক্লিশে হয়ে যাওয়া শব্দবন্ধনীটা আরও একবার প্রয়োগ করা যায় রজার ফেডেরারের (Roger Federer) জন্য। তিনি এলেন, দেখলেন আর জয় করে নিলেন। ৪১ বছর বয়সে টেনিস ব়্যাকেট তুলে রাখার সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেললেন ২০ টি গ্র্যান্ড স্ল্যামের মালিক। সোশ্যাল মিডিয়ায় চার পাতার আবেগঘন বার্তায় ফেডেরার জানিয়ে দিলেন, লন্ডনে পরের সপ্তাহ থেকে শুরু হতে চলা লেভার কাপই তাঁর শেষ এটিপি টুর্নামেন্ট হতে চলেছে। এর পরেও টেনিস খেলবেন তিনি, টেনিসের সঙ্গে যোগাযোগও থাকবে তাঁর। কিন্তু গ্র্যান্ড স্ল্যামে আর দেখা যাবে না ফেডেক্সকে। দীর্ঘ ২৪ বছরের প্রতিযোগিতামূলক টেনিস জীবনে  ফেডেরার ফুল ফুটিয়েছেন প্রায় সব ধরনের কোর্টে। কবির কথায়, যেখান দিয়ে হেসে গেছে, হাসি তারা রেখে গেছে। অস্ট্রেলিয়ান ওপেন(Australian Open) জিতেছেন ছ’ বার, ফরাসি ওপেন (French Open) একবার, উইম্বলডনের (Wimbledon) ঘাসের কোর্টে ফেডেরার জিতেছেন ৮ বার। আর যুক্তরাষ্ট্র ওপেনে জয় লাভ করেছেন পাঁচ বার। 

ফেডেরার লিখেছেন, ”গত তিন বছর ধরে চোট আর অস্ত্রোপচার আমাকে একাধিক বার চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়েছে। আমি চোট-আঘাত সারিয়ে পুরোদস্তুর তৈরি হয়ে কোর্টে ফেরার চেষ্টা করেছি। কিন্তু আমি জানি আমার শরীরের ক্ষমতা এবং তার সীমাবদ্ধতা। শেষের দিকে আমার শরীর আমাকে ইঙ্গিত দিত। আমার এখন ৪১ বছর বয়স। দীর্ঘ ২৪ বছরে দেড় হাজারের বেশি ম্যাচ আমি খেলেছি। টেনিস আমাকে উদারভাবে কাছে টেনে নিয়েছে, যা আমি কল্পনাও করতে পারিনি, স্বপ্নেও দেখিনি তা। টেনিস থেকে কখন বিদায় নিতে হবে, এটা উপলব্ধি করার সময় এসে গিয়েছে।”  আর অন্তরাত্মার ডাকে সাড়া দিয়েই রজার ফেডেরার জানিয়ে দিলেন তাঁর সিদ্ধান্ত। 

[আরও পড়ুন: বাট্টা, বেবি ওভার, ট্রাই বল শব্দগুলির অর্থ কী? একমাত্র কোহলি জানেন এগুলোর মানে]

লন্ডনে আগামী সপ্তাহ থেকে শুরু হতে চলেছে লেভার কাপ। আর সেটাই যে ফেডেরারের শেষ এটিপি টুর্নামেন্ট হতে চলেছে, তা জানিয়ে দিয়েছেন কিংবদন্তি স্বয়ং। ফেডেরার লিখেছেন, ”লেভার কাপই হতে চলেছে আমার শেষ এটিপি টুর্নামেন্ট। তবে তার পরেও আমাকে টেনিস খেলতে দেখা যাবে। কিন্তু গ্র্যান্ড স্ল্যাম বা কোনও ট্যুরে আমাকে আর খেলতে দেখা যাবে না।” 

টেনিস কোর্ট ফেডেরারকে অভিজ্ঞ করেছে। প্রাণের প্রিয় টেনিসকে বিদায় জানাতে বুক নিশ্চয় কেঁপেছে ফেডেরারের। কিংবদন্তি টেনিস তারকা বলছেন, ”এটা আমার কাছে মিঠেকড়া এক সিদ্ধান্ত। ট্যুরে যা শিখেছি, তা তো মিস করবই। একই সঙ্গে আরও অনেক কিছু রয়েছে যা উদযাপন করাই যায়। আমি নিজেকে বিশ্বের অন্যতম ভাগ্যবান একজন বলে মনে করি। টেনিস খেলার জন্য বিশেষ ট্যালেন্ট দিয়ে আমাকে পাঠানো হয়েছিল। আমি যে লেভেলে খেলেছি তা আমি কোনওদিন কল্পনাই করিনি, ভাবিওনি।” 

ফেডেরার তাঁর স্ত্রী মিরকাকে ধন্যবাদ জানিয়ে লিখেছেন, ”মিরকা আমাকে প্রতিটি ফাইনালের আগে সতর্ক করে দিত। আট মাসের সন্তানসম্ভবা থাকার সময়েও আমার অসংখ্য ম্যাচ দেখেছে। আমার চার সন্তানকেও আমি ধন্যবাদ জানাতে চাই। ওদের সমর্থন আমি সবসময়ে পেয়েছি। স্ট্যান্ড থেকে আমার পরিবার আমাকে সমর্থন করছে, আমার জন্য চিৎকার করছে , সেই মুহূর্ত চিরকাল মনে রাখার মতোই। আমার অভিভাবক, আমার বোনকেও এই পরিসরে ধন্যবাদ জানাই। আমার সমস্ত পুরনো কোচদের ধন্যবাদ জানাতে চাই। আমাকে সঠিক পথ দেখিয়েছেন ওঁরাই। আপনাদের সবাইকে শ্রদ্ধা জানাই। সুইস টেনিসকেও অসংখ্য ধন্যবাদ। তরুণ খেলোয়াড় হিসেবে আমার উপরে আস্থা রেখেছিল ওরা।” 

ফেডেরার ধন্যবাদ জানিয়েছেন তাঁর প্রতিপক্ষদেরও। ফেডেরারের বিরুদ্ধে নাদাল, নোভাক জোকোভিচরা একাধিক মহাকাব্যিক ম্যাচের জন্ম দিয়েছেন। সব মিলিয়ে লাভবান হয়েছে টেনিস। ফেডেরার লিখেছেন, ”আমার প্রতিপক্ষদের ধন্যবাদ জানাতে চাই। তাঁদের বিরুদ্ধে আমি অনেক মহাকাব্য ম্যাচ খেলেছি। সেই ম্যাচগুলো আমি কোনওদিনই ভুলব না। আমরা কোর্টে সততার সঙ্গে লড়াই করেছি, সেই লড়াইয়ে ছিল প্যাশন- তীব্রতা। মহান খেলাটার ইতিহাসকে আমি চিরকাল সম্মান করে এসেছি।  নিজের সেরাটা দিয়েছি। আমরা একে অপরকে ছাপিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেছি আর তার ফলে সমৃদ্ধ হয়েছে টেনিস।” 

দিনকয়েক আগে মহিলাদের সার্কিট থেকে বিদায় নিয়েছিলেন সেরিনা উইলিয়ামস। এবার রজার ফেডারারও জানিয়ে দিলেন তিনি সরে দাঁড়াচ্ছেন। দুই গ্রেটের টেনিস জার্নি শেষ হয়ে গেল প্রায় একই সময়ে। দু’ জনে মিলে জিতেছেন ৪৩টি গ্র্যান্ড স্ল্যাম। ফেডেরার ২০টি এবং সেরিনা ২৩টি।  সব শেষে ফেডেরার লিখেছেন, ” টেনিস তোমাকে ভালবাসি, তোমাকে ছেড়ে যাব না।” টেনিসের সঙ্গে ফেডেরারের রোম্যান্স যে চিরকালের। 

 

[আরও পড়ুন: কাতারের স্টেডিয়ামে চূড়ান্ত অব্যবস্থা, ফুটবল বিশ্বকাপ ফাইনালের আয়োজন ঘিরে সংশয়]

 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে