৩২ শ্রাবণ  ১৪২৬  রবিবার ১৮ আগস্ট ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বয়সের কাছেই যেন শেষমেশ হার মানতে হল। এনার্জিতে ভরা তারুণ্যের কাছেই হার মানলেন সেরেনা উইলিয়ামস। আর তাই শনিবাসরীয় উইম্বলডন সাক্ষী রইল অঘটনের। ৩৭ বছরের মার্কিন তারকাকে হেলায় হারিয়ে কেরিয়ারের প্রথম উইম্বলডন খেতাব জিতলেন সিমোনা হালেপ।

গোটা টুর্নামেন্টে একের পর এক কম বয়সি প্রতিপক্ষকে হারিয়ে চমকে দিয়েছিলেন সেরেনা। ২৪তম গ্র্যান্ড স্লামটি তাঁর দখলে যাওয়া যেন ছিল শুধুই সময়ের অপেক্ষা। নয়া ইতিহাসের প্রতীক্ষায় ছিলেন টেনিসপ্রেমীরা। ফাইনালের কোর্টও সেই প্রহরই গুনছিল। কিন্তু সব সমীকরণ পালটে দিলেন রোমানিয়ান টেনিস তারকা। গতবারের ফরাসি ওপেন চ্যাম্পিয়নের দুর্দান্ত এনার্জি ও স্ট্র্যাটেজির কাছেই হার মানতে হল বিশ্বের প্রাক্তন এক নম্বর তারকাকে। শুরু থেকেই খেলায় কর্তৃত্ব বজায় রেখেছিলেন তিনি। তাই স্ট্রেট সেটে মাত্র ৫৬ মিনিটে অনায়াসেই জিতে নেন ফাইনালের লড়াই। হালেপের পক্ষে ম্যাচের ফল ৬-২, ৬-২। প্রথম রোমানিয়ান হিসেবে প্রথমবার উইম্বলডন খেতাব ঘরে তুললেন হালেপ। ম্যাচের পর উচ্ছ্বসিত তারকা বলেন, “এর আগে এত ভাল ম্যাচ কখনও খেলিনি। এই মুহূর্তটার জন্য অনেক অপেক্ষা করেছি। কোর্টে নামার আগে পেটে ব্যথা করছিল। কিন্তু খেলা শুরু হতেই সব ভুলে নিজের সেরাটা দিই। রয়্যাল বক্সের সামনে জিতে কতটা ভাল লাগছে ভাষায় প্রকাশ করতে পারছি না।”

[আরও পড়ুন: সেমিফাইনালে আদৌ কি নো বলে আউট ছিলেন ধোনি? জেনে নিন আসল ঘটনা]

ইতিহাস গড়ার থেকে মাত্র একধাপ দূরে ছিলেন সেরেনা। ২৩টি গ্র্যান্ড স্লামের মালকিন আর একটি খেতাব জিতলেই ওপেন এরায় সর্বোচ্চ গ্র্যান্ড স্লামজয়ী মার্গারেট কোর্টের বিরল রেকর্ড স্পর্শ করতেন। শেষবার ২০১৭ সালে অস্ট্রেলিয়া ওপেন জিতেছিলেন সেরেনা। তারপর থেকে মেজর খেতাব জয়ের অপেক্ষা ক্রমেই দীর্ঘ হয়েছে। উইম্বলডন তাঁর চেনা মাটি। এই কোর্টে সাত-সাতটি খেতাব রয়েছে তাঁর। এবারও যে ছন্দে ফাইনালে পৌঁছেছিলেন, তাতে তাঁকেই ফেভরিট ধরা হয়েছিল। কিন্তু ঠান্ডা মাথায় শেষমেশ বাজিমাত করলেন হালেপই। এই উইম্বলডনের প্রাপ্তি একটাই। চেনা তারকাদের ছাপিয়ে টেনিসের আকাশে উজ্জ্বল হয়ে উঠছেন আগামীরা। 

[আরও পড়ুন: কোহলিদের বিদায়ে কুরুচিকর পোস্ট, নেটদুনিয়ায় রোষের মুখে বিবেক ওবেরয়]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং