২৬  শ্রাবণ  ১৪২৯  শনিবার ১৩ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

ভারতে কবে থেকে শুরু হবে খেলাধুলো? নীল নকশা তৈরি করছে অলিম্পিক সংস্থা

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: May 5, 2020 4:50 pm|    Updated: May 5, 2020 4:53 pm

The IOA has prepared a blueprint for resumption of sports in India

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: লকডাউনের জেরে ভারতে সবরকম খেলাধুলো বন্ধ। শুধু ভারত বললে ভুল হবে। বিশ্বজুড়েই খেলার মাঠে থাবা বসিয়েছে করোনা। হয় বাতিল, নয় স্থগিত করে দিতে হয়েছে বহু টুর্নামেন্ট। কিন্তু এভাবে তো বেশিদিন চলতে পারে না। তাছাড়া সরকারও লকডাউনের বাঁধন আস্তে আস্তে হালকা করছে। আর ইউরোপের বহু দেশে ধীরে ধীরে খেলাধুলো শুরুও হচ্ছে। তাই ভারতও আর পিছিয়ে থাকতে নারাজ। যত শীঘ্র সম্ভব খেলাধুলো চালু করতে চায় অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশন (Indian Olympic Association)। এবং সেজন্য একটি নীল নকশা তৈরি করা হয়েছে।

নীল নকশায় বলা হয়েছে,
১। আমাদের ধীরে ধীরে খেলার মাঠে ফিরতে হবে।
২। প্রথমে শারীরিক সংস্পর্শ এড়িয়ে চলা যায় এমন খেলা শুরু করতে হবে।
৩। খেলার সঙ্গে যুক্ত সবার সঙ্গে আলোচনা করতে হবে।
৪। ক্রীড়া, স্বাস্থ্য, গ্রাম ও নগরোন্নয়ন মন্ত্রকের সাহায্য নেবে অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশন
৫। অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশন সমর্থকদের সঙ্গে সোশ্যাল মিডিয়ায় আরও দৃঢ় সম্পর্ক তৈরি করবে। যাতে তাঁদের মনোভাব বোঝা যায়।
৬। খেলার মাঠে ফেরার পরামর্শ এবং উপায় সংক্রান্ত একটি শ্বেতপত্র প্রকাশ করবে অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশন।

[আরও পড়ুন: লকডাউনের জেরে বন্ধ প্র্যাকটিস, পাতিয়ালা সাইয়ে দিশেহারা অ্যাথলিটরা]

এই নীল নকশার দ্বিতীয় অংশে খেলার সঙ্গে যুক্ত সব মহলের সঙ্গে পরামর্শ নেওয়ার কথা বলা হয়েছে। তাতে কী কী প্রশ্ন করা হবে, সেটাও বলা হয়েছে। প্রশ্নগুলি হল,
১। খেলার মাঠে ফেরার সঠিক কৌশল এবং সময় কী হবে?
২। নতুন করে খেলা শুরু করার আগে কী কী পরিবর্তন প্রয়োজন?
৩। অ্যাথলিটদের স্বাস্থ্য, সুরক্ষা এবং সামাজিক দুরত্ব কীভাবে বজায় রাখা সম্ভব?
৪। এখনই কি দর্শক ভরতি মাঠে খেলা সম্ভব?
৫। স্কুল, কলেজে স্থানীয় স্তরের খেলাধুলা কবে থেকে শুরু করা উচিৎ?

[আরও পড়ুন: ‘আগামী বছরও বাতিল হতে পারে অলিম্পিক’, আশঙ্কা আয়োজক কমিটির প্রধানের]

ইন্ডিয়ান অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশন এই প্রশ্নগুলি অ্যাথলিট, কোচ, মেডিক্যাল স্টাফ ও অন্যান্য সাপোর্ট স্টাফকে করবে। ম্যাচ অফিসিয়াল, সংবাদমাধ্যম, স্পনসরদের কাছেও পরামর্শ নেওয়া হবে। তারপরই আগামী ২০ মে তারা একটা শ্বেতপত্র প্রকাশ করবে। সেদিনই স্পষ্ট হবে ভারতে খেলাধুলোর ভবিষ্যৎ।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে