২৬  শ্রাবণ  ১৪২৯  মঙ্গলবার ১৬ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

রাশিয়ার গোলায় ভেঙেছে বাড়ি, মেরামতির টাকা তুলতে উইম্বলডন জয়ই লক্ষ্য ইউক্রেনীয় তারকার

Published by: Anwesha Adhikary |    Posted: June 28, 2022 4:06 pm|    Updated: June 28, 2022 4:06 pm

Ukrainian tennis player wants to win Wimbledon to rebuilt house destroyed by Russia | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রায় চার মাস ধরে চলছে রাশিয়া-ইউক্রেন (Russia-Ukraine War) রক্তক্ষয়ী যুদ্ধ। ঘরবাড়ি হারিয়ে শরণার্থী হয়েছেন ইউক্রেনের হাজার হাজার মানুষ। তবুও শান্ত হচ্ছে না রুশ সেনা। প্রত্যেকদিন নতুন করে হামলা চালাচ্ছে তারা। এরকমই হামলায় বাড়ি ভেঙে গিয়েছে সেদেশের টেনিস খেলোয়াড় আনহেলিনা কালিনিনা। চলতি উইম্বলডনে (Wimbledon) ট্রফি জিততে মাঠে নামছেন অনেক খেলোয়াড়ই। কিন্তু আনহেলিনা খেলবেন অন্য কারণে। ম্যাচ জিতে পুরস্কার মূল্য হিসাবে যত টাকা পাবেন, সেই প্রাপ্ত অর্থ দিয়ে নিজের ভেঙে যাওয়া বাড়ি সারাবেন তিনি।

উইম্বলডনে ২৯ নম্বর বাছাই হিসাবে খেলতে নেমেছেন আনহেলিনা। তিনি জানিয়েছেন, রুশ গোলার আঘাতে ভেঙে গিয়েছে তাঁর মা-বাবার বাড়ি। ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভের থেকে কিছুটা দূরে ইরপিন (Irpin) শহরে থাকেন আনহেলিনার মা-বাবা। কিন্তু যুদ্ধের প্রথম দিকেই ধ্বংস হয়ে যায় সেই বাড়ি। বাধ্য হয়ে আনহেলিনা ও তাঁর স্বামীর বাড়িতে এসে থাকতে শুরু করেন অসহায় দু’জন। টেনিস খেলোয়াড় জানিয়েছেন, রুশ গোলা আছড়ে পড়ার ফলে গর্ত হয়ে গিয়েছিল তাঁর বাড়ির দেওয়ালে। কিন্তু সেই বাড়ি সারানোর জন্য যথেষ্ট অর্থ নেই।

[আরও পড়ুন: এবার নিলামে মারাদোনার বিশ্বকাপ জয়ের জার্সি, কত দাম উঠতে পারে জানেন?]

আনাহেলিনা জানেন, উইম্বলডনে ভাল খেলাটা তাঁর জন্য কতটা গুরুত্বপূর্ণ। কারণ এই প্রতিযোগিতার নিয়ম অনুযায়ী, যত বেশি ম্যাচ জিতবেন একজন খেলোয়াড়, তাঁর পুরস্কার মূল্য তত বেড়ে যাবে। সেই কারণে আনাহেলিনা মরিয়া হয়ে উঠেছেন এই টুর্নামেন্টে ভাল খেলার জন্য। ইতিমধ্যেই প্রথম রাউন্ডের ম্যাচ জিতেছেন তিনি। কিন্তু তাতেই থেমে থাকতে চান না। প্রসঙ্গত, ইউক্রেনে (Ukraine) হামলার প্রতিবাদ জানাতে রাশিয়া ও বেলারুশের খেলোয়াড়দের বহিষ্কার করা হয়েছে উইম্বলডন থেকে।

আনাহেলিনা (Ukrainian Tennis Player) বলেছেন, “জানি আমি সুপারস্টার নই। কিন্তু তাও আমার সেরাটা দিয়ে চেষ্টা করছি যেন ভাল খেলতে পারি। আমার দাদু-ঠাকুমা এখনও আটকে রয়েছেন। তাঁদের বাড়ির আশেপাশে লাগাতার হামলা চালাচ্ছে রুশ সেনা। আমার হাতে অর্থ এলে তাঁদেরকেও উদ্ধার করতে পারব আমি। তাঁরাই আমাকে ভাল খেলার অনুপ্রেরণা যোগাচ্ছেন।”

[আরও পড়ুন: সিরিজের শেষ ম্যাচে আজ আইরিশদের মুখোমুখি ভারত, উমরানকে নিয়ে ধৈর্য ধরতে বলছেন হার্দিক

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে