৩২ শ্রাবণ  ১৪২৬  রবিবার ১৮ আগস্ট ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রাক্তন নৌসেনা আধিকারিক কুলভূষণ যাদবের মৃত্যুদণ্ডের প্রসঙ্গ উঠল সংসদেও। গতকালই আচমকা ওই আধিকারিকের ফাঁসির নির্দেশ দেয় পাক সেনা আদালত। এদিন সংসদে এ নিয়ে চরম নিন্দার ঢেউ ওঠে।

বানরের স্বভাব কাটিয়ে মানুষের মতো খেতে শিখেছে ‘বন্য’ বালিকা ]

মৃত্যুদণ্ডের খবর পাওয়া মাত্র ভারতের পক্ষ থেকে তীব্র প্রতিক্রিয়া জানানো হয়। কোনও আন্তর্জাতিক নিয়মকানুন না মেনেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ ভারতের। পাশাপাশি এ ঘটনাকে সুপরিকল্পিত হত্যা বলেও আখ্যা দেওয়া হয়েছে। আগামী বুধবার বেশ কিছু পাক বন্দিকে ছেড়ে দেওয়ার কথা ছিল ভারতের। কিন্তু কুলভূষণের মৃত্যুদণ্ডের পাল্টা হিসেবে সে প্রক্রিয়ায় স্থগিতাদেশ জারি করা হয়। ডেকে পাঠানো হয় পাক রাষ্ট্রদূত আবদুল বাসিতকে। তাঁর হাতেও তুলে দেওয়া হয় প্রতিবাদ পত্র।

মোদির শিক্ষাগত যোগ্যতা জানতে চেয়ে গ্রেপ্তারের মুখে কেজরি ]

এদিকে আজ সংসদে অল ইন্ডিয়া মজলিশ-এ-ইত্তেহাদুল মুসলিমিনের প্রধান আসাদউদ্দিন ওয়াইসি জানান, পাকিস্তানের সেনা আদালত আসলে ভুয়ো। কোনও প্রমাণ ছাড়াই ওখানে সব বিচার হয়ে যায়। সরকার যেন সমস্ত প্রভাব খাটিয়ে কুলভূষণকে নিরাপদে দেশে ফিরিয়ে আনে। এদিন কুলভূষণ প্রসঙ্গে সরকারের নীরবতা নিয়ে খানিকটা সমালোচনা করে কংগ্রেসও। কং নেতা মল্লিকাজুন খাড়গে জানান, এই সিদ্ধান্ত যদি কার্যকর হয়, তবে জানতে হবে, ঠান্ডা মাথায় খুন করা হল। তাঁর দাবি, তা হলে সেটা বর্তমান সরকারের দূর্বলতা বলেই সাব্যস্ত হবে।

এদিকে কূলভূষণ প্রসঙ্গে সরব হয় শিব সেনাও। জানানো হয়, এবার পাকিস্তানের মুখোশ খুলে দেওয়া উচিত। কুলভূষণের সঙ্গে যা করা হয়েছে ঠিক সেভাবেই পাল্টা বদলা নেওয়া উচিত পাক বন্দিদের সঙ্গেও।

নাগপুরে এদিন পাকিস্তানের বিরুদ্ধে প্রতিবাদে সামিল হন সাধারণ মানুষ।


সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী অনন্ত কুমার জানান, গোটা দেশই কুলভূষণের পাশে আছে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীই এ ব্যাপারে যা জানানোর জানাবেন। তারপরই রাজনাথ সিং, কুলভূষণ যাতে বিচার পান তার সর্বোত চেষ্টা চালাবে ভারত। বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজও জানিয়েছেন, এই ঘটনার প্রভাব পড়বে দুই দেশের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের ক্ষেত্রেও। পাকিস্তানকে কড়া হুঁশিয়ারি দিয়ে তাঁর বার্তা, ভারত এই সিদ্ধান্ত কখনওই মেনে নেবে না।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং