BREAKING NEWS

২২  মাঘ  ১৪২৯  সোমবার ৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

ট্রাফিক আইন ভাঙলেও হবে না জরিমানা, ভোটের মুখে ‘উপহার’ গুজরাটের মন্ত্রীর, তুঙ্গে বিতর্ক

Published by: Kishore Ghosh |    Posted: October 22, 2022 4:25 pm|    Updated: October 22, 2022 4:25 pm

Gujrat Home Minister announces that No fine for violating traffic rules till Oct 27 | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আগামী ডিসেম্বর মাসে গুজরাটে (Gujarat) ভোট, তারে আগে এসে পড়েছে দীপাবলি (Diwali)। এই সুযোগে সে রাজ্যের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বিপজ্জনক ‘উপহার’ ঘোষণা করলেন আমজনতার জন্যে। সুরাটের (Surat) একটি সভায় গুজরাটের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হর্ষ সংঘভি ঘোষণা করেছেন, আগামী ২১ থেকে ২৭ অক্টোবর, দীপাবলি উৎসবের সপ্তাহে ট্রাফিক আইন ভাঙলেও জরিমানা করবে না রাজ্যের ট্রাফিক পুলিশ। এই ছাড় ঘোষণার পরে সরব হয়েছে বিরোধীরা। তাদের বক্তব্য, ভোটের জন্য যা খুশি করছে বিজেপি সরকার। এই সিদ্ধান্ত বিপজ্জনক। যদিও বিরোধী পক্ষের দাবি উড়িয়ে দিয়েছে গেরুয়া শিবির।

শুক্রবার সুরাটের সভায় দাঁড়িয়ে গুজরাটের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হর্ষ সংঘভি বলেন, “আজ অর্থাৎ ২১ অক্টোবর থেকে ২৭ অক্টোবর অবধি গুজরাট ট্রাফিক পুলিশ আইন লঙ্ঘনে কোনওরকম জরিমানা করবে না। যদি কেউ হেলমেট বা ড্রাইভিং লাইসেন্স ছাড়া রাস্তায় ধরা পড়েন, কিংবা অন্য কোনও ট্রাফিক আইন না মানেন, তবে পুলিশ তাদের উপদেশ দিয়ে ছেড়ে দেবে, জরিমানা করবে না।” তবে এইসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, “তার মানে এই নয় যে আপনারা ট্রাফিক আইন মানা বন্ধ করে দেবেন। কিন্তু যদি কোনও ভুল করেন, তবে একদিন জরিমানা করা হবে না।”

[আরও পড়ুন: বাংলা, বিহার ভেঙে কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল! ‘বিজেপির চক্রান্ত ব্যর্থ হবেই’, দাবি সুখেন্দুশেখরের]

হর্ষের আজব দীপাবলি ‘উপহার’ নিয়ে বিতর্কের ঝড় উঠেছে গুজরাটে। বিরোধী নেতা ও নেটিজেনদের একাংশের দাবি, এই সিদ্ধান্ত আসলে নির্বাচনী গিমিক। আমজনতাকে বিপজ্জনক উপহার দিয়ে ভোটে জিততে মরিয়া গেরুয়া শিবির। প্রতিবাদে কংগ্রেস নেতা জিগনেশ মেবানি টুইট করেন, “নির্বাচন বড় বালাই! অনেক কিছু করিয়ে নেয়।” রাষ্ট্রীয় লোকদল প্রধান সাংসদ জয়ন্ত সিং চৌধুরী কড়া সমালোচনা করেন বিজেপির। বলেন, “ভোটের জন্য মানুষের জীবন নিয়ে খেলতে চাইছে গেরুয়া শিবির।” এর জন্য নির্বাচন কমিশনকেও দায়ী করেন জয়ন্ত। তাঁর কথায়, “নির্বাচনের দিনক্ষণ ঘোষণা দেরি হওয়াতেই আজব সিদ্ধান্ত নিচ্ছে বিজেপি সরকার।”

[আরও পড়ুন: পুরুষ সঙ্গীকে মারধর করে তরুণীকে অপহরণ, গণধর্ষণের পর রাস্তায় ফেলে পালাল ১০ দুষ্কৃতী ]

প্রসঙ্গত, ক’দিন আগে স্কুলের ছাত্র রূপে দেখা গেল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে (Narendra Modi)। গুজরাট (Gujarat) সফরে গান্ধীনগরে মিশন স্কুল অফ এক্সিলেন্সের (Mission School of Exelecne) সূচনার পরে একটি সরকারি স্কুলে যান৷ তখন ক্লাসে পড়ুয়াদের সঙ্গে একবেঞ্চে বসে সময় কাটান৷ সেই ছবি প্রকাশ্যে আসে। যা দেখার পর আপ (AAP) জানায, নরেন্দ্র মোদি গুজরাট বিধানসভা নির্বাচন জেতার জন্য আম আদমি পার্টির নেতাকে নকল করেছে। উল্লেখ্য, মাঝে সরকারি স্কুলে গিয়ে ছাত্রদের সঙ্গে ক্লাসে বসতে দেখা গিয়েছিল দিল্লির শিক্ষামন্ত্রী মণীশ সিসৌদিয়াকে (Manish Sisodia)।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে