BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

পাকিস্তানের ‘বেয়াদপি’, সংসদে জবাব রাজনাথের

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: August 5, 2016 1:59 pm|    Updated: August 5, 2016 2:39 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সন্ত্রাসবাদ নিয়ে সার্ক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বৈঠকে সরব হয়েছিলেন রাজনাথ সিং৷ শুক্রবার সংসদে নাম না করে ফের একবার পাকিস্তানের ‘বেয়াদপি’র বিরুদ্ধে মুখ খুললেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী৷ সার্ক সম্মেলনে তিনি কোন বিষয়গুলি তুলে ধরেছিলেন মূলত তা-ই সংসদে জানান এদিন৷ যেভাবে নাম না করে ইসলামাবাদের দিকে হুঁশিয়ারি দিলেন, কূটনৈতিকভাবে তা বেশ তাৎপর্যপূর্ণ৷

এদিন রাজনাথ বলেন, “সন্ত্রাসই মানবতাবাদের সবথেকে বড় শত্রু৷” বিশ্বের প্রতিটি দেশকে সন্ত্রাসবাদ রোখার আহ্বান জানিয়েছেন রাজনাথ৷ যেভাবে একের পর এক জঙ্গিদের ‘শহিদ’ বা ‘স্বাধীনতা সংগ্রামী’র মর্যাদা দিচ্ছে ইসলামাবাদ, তার বিরুদ্ধেও সরব নয়াদিল্লি৷ সার্ক গোষ্ঠীভুক্ত স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীদের বৈঠকে এই প্রসঙ্গটি উত্থাপন করেছিলেন রাজনাথ৷ তারপরই ইসলামাবাদ রাজনাথের ভাষণ সেন্সর করার সিদ্ধান্ত নেয়৷ আজ সংসদে সেই বিষয়টি উত্থাপন করে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, “সন্ত্রাসবাদীদের কোনওভাবেই ক্ষমা করা চলবে না৷ যে দেশ বা ব্যক্তি সন্ত্রাসকে সমর্থন করছে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে হবে৷ সন্ত্রাসীদের কোনওভাবেই শহিদ বা স্বাধীনতা সংগ্রামীর মর্যাদা দেওয়া চলবে না৷ এই কাজ অত্যন্ত নিন্দনীয়৷ কড়াভাবে সন্ত্রাসবাদকে মোকাবিলা করতে হবে৷” সার্ক সম্মেলনের প্রসঙ্গ উত্থাপন করে রাজনাথ বলেন, “শুধু সন্ত্রাসবাদী নয়, সার্ক গোষ্ঠীভুক্ত দেশগুলি শিশু ও নারীশিক্ষা নিয়েও আমি বক্তব্য রেখেছি৷ তুলে ধরেছি আমাদের দেশে জন-ধন-যোজনার মতো জনহিতকর প্রকল্পের কথাও৷

সম্প্রতি কাশ্মীরে বুরহান ওয়ানির মৃত্যুকে কার্যত শহিদের মর্যাদা দিয়েছে ইসলামাবাদ৷ যেভাবে তাঁর মৃত্যুকে কেন্দ্র করে উস্কানিমূলক বক্তব্য পাক আধিকারিকরা রেখেছেন, ফলে তপ্ত হয়েছে কাশ্মীর৷ বুরহানকে শহিদের মর্যাদা দিয়েই ভারতে উত্তেজনা ছড়ানোর এক ঘৃণ্য চক্রান্ত শুরু করেছে ইসলামাবাদ৷ সাধারণ মানুষকে প্রাণ দিতে হয়েছে৷ উত্তেজিত কাশ্মীরকে শান্ত করতে শুক্রবারও বিভিন্ন এলাকায় কারফিউ জারি করা হয়েছে৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement