BREAKING NEWS

২ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

সাহসিকতায় বিশ্ব দরবারে সেরার শিরোপা ক্যাপ্টেন রাধিকার

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: July 9, 2016 4:46 pm|    Updated: July 9, 2016 4:48 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সাহসই তাঁর একমাত্র সম্বল৷ এই সম্বল নিয়েই সমুদ্রের নোনা জলে দাপিয়ে বেড়ান রাধিকা মেনন৷ ভারতের প্রথম মহিলা মার্চেন্ট নেভির ক্যাপ্টেন৷ এবারে এল আন্তর্জাতিক সম্মানও৷ প্রথম মহিলা হিসেবে ভারতের এই কন্যা পেতে চলেছেন ‘এক্সেপশনাল ব্রেভারি অ্যাট সি অ্যাওয়ার্ড’৷ ইন্টারন্যাশনাল মেরিটাইম অর্গানাইজেশনের পক্ষ থেকে এই সম্মান পাচ্ছেন রাধিকা৷

সমুদ্রে ঘোর বিপদে পড়া ৭ মৎস্যজীবীর প্রাণ বাঁচানোর জন্য এই আন্তর্জাতিক সম্মান উঠল রাধিকার হাতে৷ গত বছর জুন মাসে প্রবল সামুদ্রিক ঝড়ের কবলে পড়ে অন্ধ্রের ‘দুর্গাম্মা’ নামে একটি মাছধরা নৌকা৷ অন্ধ্রপ্রদেশের কাঁকিনাড়া থেকে হাবুডুবু খেতে খেতে ওড়িশার গোপালপুরে চলে যায়৷ পথ হারিয়ে সাত দিন ধরে ভাসতে থাকে গভীর সমুদ্রে৷ খাবারের অভাবে শুধু মাছের বাক্সের বরফ খেয়ে প্রাণ বাঁচিয়েছিলেন নৌকার ৭ মৎস্যজীবী৷ নৌকাটির ইঞ্জিনও কাজ করছিল না। বাঁচার আশা ছেড়েই দিয়েছিলেন মৎস্যজীবীরা৷ এমনকী মৎস্যজীবীদের পরিবারের লোকজনও ধরে নিয়েছিলেন, তাঁরা কেউ আর বেঁচে নেই৷ সেই পরিস্থিতি থেকে তাঁদের উদ্ধার করেন ক্যাপ্টেন মেনন ও তাঁর টিম৷ মৎস্যজীবীদের শেষকৃত্যের জন্য গ্রামে যখন তোড়জোড় চলছিল, তখনই আসে এই অবিশ্বাস্য উদ্ধারের খবর৷

আপাতত শিপিং কর্পোরেশন অফ ইন্ডিয়ার ‘সম্পূর্ণ স্বরাজ্য’ অয়েল ট্যাঙ্কারের দায়িত্বে রয়েছেন ক্যাপ্টেন রাধিকা৷ সমুদ্রে কাজ করতে হলে বিপদে পড়া মানুষের প্রাণ বাঁচানো তাঁর দায়িত্বের মধ্যেই পড়ে বলে মনে করেন রাধিকা৷ তবে আন্তর্জাতিক পুরস্কার পেয়ে তিনি সম্মানিত ও কৃতজ্ঞ বলেই জানিয়েছেন৷ তাঁর এই কৃতিত্বকে কুর্নিশ জানিয়েছেন কিংবদন্তি শচীন তেন্ডুলকরও৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement