Advertisement
Advertisement
Pakistan

ইমরান হত্যার চেষ্টায় আলোচিত আইএসআই কর্তা ‘ডার্টি হ্যারি’

কে এই কুখ্যাত ‘ডার্টি হ্যারি’?

All about the 'Dirty Harry' ISI officer, whom Imran Khan blamed for his condition | Sangbad Pratidin
Published by: Monishankar Choudhury
  • Posted:May 11, 2023 8:50 am
  • Updated:May 11, 2023 10:52 am

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মঙ্গলবার গ্রেপ্তারির ঠিক আগে ইসলামাবাদ আদালতে যাওয়ার পথে প্রাক্তন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান চেঁচিয়ে বলেছিলেন, “কান খুলে শুনুন, একজন গোয়েন্দা কর্মকর্তার নাম উল্লেখ করেছি, যে আমাকে দু’ বার হত্যার চেষ্টা করেছে।” তারপর থেকেই সামনে আসছে একের পর এক কন্সপিরেসি থিওরি।

পাকিস্তানের বর্তমানে অর্থনীতির অবস্থা তুলে ধরে ওই আইএসআই অফিসার-সহ তাঁর সঙ্গে জড়িতদের উদ্দেশে রীতিমতো হুঁশিয়ারির সুরে তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) প্রধান বলেছিলেন, দেশে কয়েকজন দুর্নীতিবাজকে প্রশ্রয় দেওয়া হচ্ছে। আর বুধবার পিটিআই-এর সমর্থকরা দাবি করেছেন তাঁদের নেতাকে ফাঁসানো এবং খুনের চেষ্টা করছে পাক গুপ্তচর সংস্থা আইএসআই। আর এই ষড়যন্ত্রের নেপথ্যে রয়েছে আইএসআইয়ের কর্তা ‘ব্রিগেডিয়ার’ বা ‘ডার্টি হ্যারি’। এঁর আসল নাম ফয়জল নাসির। আইএসআইয়ের এই কমান্ডারের কলকাঠিতেই নাকি ইমরানকে খুনের ছক কষা হচ্ছে বলে দাবি করেছে পিটিআই। সাংবাদিক আরশাদ শরিফ খুনেও এই আইএসআই কমান্ডারের নাম জড়িয়েছিল।

Advertisement

[আরও পড়ুন: বিজেপি-আরএসএসের নির্দেশে জ্বলছে পাকিস্তান! আজব দাবি পাক সরকারের]

ফয়জল নাসিরের উত্থানও হয়েছিল দ্রুত। ইমরানের (Imran Khan) সমর্থকদের কথায়, একজন পাক সেনা অফিসার একদিন হঠাৎ করেই পাক গুপ্তচর সংস্থার কর্মকর্তার পদে উঠে আসেন। মেজর জেনারেল ফয়জল নাসির হন আইএসআইয়ের অন্যতম মাথা। পিটিআই দাবি করেছিল, ইমরান ও তাঁর সমর্থকদের সরিয়ে দিতেই পদোন্নতি দিয়ে আইএসআইয়ে পাঠানো হয় ফয়জলকে। ইমরানের উপর যে হামলা হয়েছিল তার পরিকল্পনাও নাকি ছিল এই ফয়জলেরই। শুটার ঠিক করা থেকে শুরু করে অস্ত্র জোগানো, হামলার পুরো পরিকল্পনাই এই পাক সেনা অফিসারের মস্তিষ্কপ্রসূত বলে দাবি করেছিল পিটিআই।

Advertisement

পাক মিডিয়া একবার জানিয়েছিল, আইএসআই-এর (ISI) ডিরেক্টর জেনারেল লেফটেন্যান্ট জেনারেল নাদিম আঞ্জুমের ডান হাত হিসাবে পরিচিত মেজর জেনারেল ফয়সল নাসির। প্রসঙ্গত, কয়েকদিন আগেই অন্তত ৩০ জন ব্রিগেডিয়ারের পদোন্নতিতে নির্দেশিকা জারি করে পাক সেনা। সেই তালিকায় ছিল ফয়জল নাসিরের নাম। ব্রিগেডিয়ার থাকাকালীন কোর অফ মিলিটারি ইনটেলিজেন্সের দায়িত্ব সামলেছিলেন ফয়জল। সেই কারণেই তাঁকে আইএসআইতে নিয়ে আসা হয়। নিয়ম অনুযায়ী, একসঙ্গে ১০ জনের বেশি ব্রিগেডিয়ারের পদোন্নতি হয় না পাক সেনায়। সেই নিয়ম ভেঙে ফয়সলকে মেজর জেনারেল করা হয়েছে। শুধু মাত্র ইমরানকে সরানোর জন্যই এই পদক্ষেপ বলে দাবি করেছে পিটিআই।

[আরও পড়ুন: তোষাখানা মামলায় দোষী সাব্যস্ত ইমরান খান, আরও বিপাকে পিটিআই প্রধান]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ