১ কার্তিক  ১৪২৬  শনিবার ১৯ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

১ কার্তিক  ১৪২৬  শনিবার ১৯ অক্টোবর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পুলওয়ামা কাণ্ডের প্রতিশোধ নিতে পাকিস্তানে ঢুকে হামলা চালিয়েছে ভারতীয় বায়ুসেনা৷ এয়ারস্ট্রাইকে ধ্বংস করেছে বালাকোটে গজিয়ে ওঠা জঙ্গি ঘাঁটি৷ যে আঘাত এখনও ভুলতে পারেনি পাকিস্তান৷ কিন্তু তাতেও সন্ত্রাসবাদের রাস্তা থেকে হাঁটতে নারাজ ইসলামাবাদ৷ সূত্রের খবর, এই সাত মাসের মধ্যে বালাকোটের ওই ধ্বংস হয়ে যাওয়া ক্যাম্পাসকে আবার সক্রিয় হয়েছে জইশ-ই-মহম্মদ৷ এবং সেখানে গোপনে জেহাদি শিক্ষা নিচ্ছে ৪০-এরও বেশি জইশ জঙ্গি৷ কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা বিলোপ পর, এখন যাদের একমাত্র উদ্দেশ্য উপত্যকা-সহ ভারতের পশ্চিমাংশে বড়সড় নাশকতা ঘটানো৷

[ আরও পড়ুন: খাবারের মেনুতে ‘নমো’ ছোঁয়া, হিউস্টনে প্রধানমন্ত্রীর জন্য এলাহি আয়োজন ]

গোয়েন্দা সংস্থা রিসার্চ অ্যান্ড অ্যানালিসিস উইংয়ের একটি রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়েছে, পাকিস্তান সরকারের মদতপুষ্ট আফগান জঙ্গিদের পাশাপাশি ভারতে হামলা চালানোর ছক কষছে জইশ-ই-মহম্মদ। তাদের লক্ষ্য জম্মু ও কাশ্মীরে থাকা নিরাপত্তা বাহিনীর জওয়ানরা। ওই রিপোর্ট আরও জানা গিয়েছে, গত ১৯ আগস্ট পাকিস্তানের ভাওয়ালপুরের মার্কাজ উসমান-ও-আলি এলাকায় বৈঠকও করেছে জঙ্গিরা। তাদের নেতৃত্বে ছিল জইশ প্রধান মাসুদ আজহারের ভাই রউফ আসগর। সেই মিটিংয়ে কাশ্মীরের বিভিন্ন স্কুল ও সরকারি বিল্ডিংয়ে বিস্ফোরণ ঘটানোর পাশাপাশি জম্মু ও কাশ্মীরের পুলিশকর্তাদের খুন করা নিয়েও আলোচনা হয়েছে।

[ আরও পড়ুন: হিউস্টন বিমানবন্দরে নমোর কীর্তি মন জয় করল মার্কিন মুলুকের ]

এছাড়া গত মে মাসেই মন্দির শহর বারাণসীতে রেইকি করে গিয়েছে লস্কর জঙ্গি উমর মাদনি৷ এক নেপালী সঙ্গীকে নিয়ে মে মাসের চারদিন সেখানে থাকে সে৷ লস্করের নেটওয়ার্ক বিস্তারের জন্য বিভিন্ন জনের সঙ্গে দেখা করে সে৷ মগজধোলাই করে যুবকদের নিজেদের মডিউলে সামিল করার চেষ্টা করে৷ জানা গিয়েছে, কেবল বারাণসী নয় ফইজাবাদ, গোরক্ষপুরের মতো উত্তরপ্রদেশের একাধিক শহর, এমনকী কলকাতায় এসেও রেইকি করেছে উমর৷ এ রাজ্যের সীমান্তবর্তী এলাকায় লস্করের মডিউল তৈরির চেষ্টায় রয়েছে এই জঙ্গি৷ এছাড়া ভারতে ঢোকার লক্ষ্যে নিয়ন্ত্রণ রেখার ওপারে অপেক্ষা করছে ৫০ জনেরও বেশি জঙ্গি৷ উপত্যকায় ভয়ংকর নাশকতা ঘটানোর উদ্দেশ্যে, এদের ভারতে অনুপ্রবেশ করানোর মরিয়া চেষ্টা চালাচ্ছে পাক সেনা ও আইএসআই৷ জঙ্গিদের ভারতে ঢোকানোর জন্য নিয়ন্ত্রণ রেখার কাছে জোহলি, বাগরি ও নিউ বাথলা পোস্টকে ব্যবহার করছে পাক সেনা৷ সেখানেই নিশ্চিন্তে দিন কাটাচ্ছে পঞ্চাশেরও বেশি জঙ্গি৷ সুযোগ বুঝে তাদের অনুপ্রবেশ করানো হবে ভারতে৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং