১৫ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

করোনা আবহে সুখবর দিলেন বরিস জনসন, পুত্রসন্তানের বাবা হলেন ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: April 29, 2020 4:25 pm|    Updated: April 29, 2020 4:25 pm

Boris Johnson and Carrie Symonds announce birth of baby boy

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা যুদ্ধে জয়ী হওয়ার পর সুখবর দিলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। বুধবার বরিসের বাগদত্তা ক্যারি সাইমন্ডস মা হলেন। জন্ম দিলেন এক ফুটফুটে পুত্রসন্তানের। দুজনেই একটি বিবৃতিতে সুখবরটি দিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রীর মুখপাত্র জানিয়েছেন, লন্ডনের একটি হাসপাতালে শিশুপুত্রের জন্ম দিয়েছেন বরিসের স্ত্রী। মা ও সন্তান দুজনেই সুস্থ আছে।

ব্রিটেনে করোনা পরিস্থিতি ভয়াবহ। মৃত ও আক্রান্তের সংখ্যা লাফিয়ে বাড়ছে রোজ। আক্রান্ত হয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নিজেও। তবে সংকটের মধ্যেও স্বস্তি দিয়ে কিছুদিন আগে করোনাকে হারিয়ে সুস্থ হয়ে কাজে ফিরেছেন তিনি। তখনই জানা গিয়েছিল, সন্তানসম্ভবা বাগদত্তা ক্যারি। অনেকেই আশঙ্কা করেছিলেন ক্যারি ও তাঁর সন্তানের করোনা হবে না তো? কিন্তু আশঙ্কাকে দূরে সরিয়ে সুস্থ সন্তানের জন্ম দিয়েছেন বরিসের বাগদত্তা। ব্রিটেনের স্বাস্থ্যসচিব ম্যাট হ্যানকক টুইট করে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে জানিয়েছেন, ‘বরিস ও ক্যারির জন্য ভীষণ খুশি। এমন সময়ে এই খুশির খবর নিঃসন্দেহে উপভোগ্য।’

[আরও পড়ুন: সম্পর্কে অবনতির ইঙ্গিত! প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে ‘আনফলো’ করল হোয়াইট হাউস]

প্রসঙ্গত, ২৫ মার্চ বরিস জনসনের সামান্য উপসর্গ ধরা পড়ে। তারপরই ব্রিটেনের মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিকের পরামর্শ পরীক্ষা করান। ১০ ডাউনিং স্ট্রিটেই তাঁর নমুনা পরীক্ষা করা হয়। তাতেই দেখা যায়, কোভিড-১৯ (COVID-19) আক্রান্ত হয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। সেইসময় তিনি সুস্থ ছিলেন। দেশের কাজও চালিয়ে যাবেন বলে জানিয়েছিলেন। কিন্তু বাস্তবে তা হয়নি। হোম আইসোলেশনে থাকার পরও শারীরিক অবস্থার কোনও উন্নতি হচ্ছিল না। ছাড়ছিল না জ্বরও। বাধ্য হয়ে এপ্রিলের প্রথম সপ্তাহে ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনকে লন্ডনের একটি হাসপাতালে ভরতি করা হয়।

[আরও পড়ুন: ‘আগে আমাদের কথা শোনা উচিত ছিল’, রাষ্ট্রনেতাদের তুলোধোনা WHO প্রধানের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে