৩০ কার্তিক  ১৪২৬  রবিবার ১৭ নভেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পাইলটের সঙ্গে মারামারি করেছিল মদ্যপ প্রেমিক। এর জেরে কাজ খোয়াতে হল ব্রিটিশ এয়ারওয়েজের এক বিমানসেবিকাকে। ঘটনাটি ঘটেছে সিঙ্গাপুরে। সিডনি থেকে লন্ডনগামী একটি বিমান যখন সিঙ্গাপুরে দাঁড়িয়ে ছিল তখন মারামারি হয়ে বলে জানা গিয়েছে। এতদিন বিমানে দুই সহযাত্রীর মধ্যে বচসা বা যাত্রীদের সঙ্গে বিমান কর্মীদের গন্ডগোলের অনেক ঘটনা ঘটেছে। কিন্তু, এই ধরনের কোনও ঘটনা কখনও ঘটেনি বলে জানাচ্ছেন বিমান পরিবেষার সঙ্গে যুক্ত মানুষরা।

[আরও পড়ুন: ‘মেয়েটির হাত পচে গিয়েছিল’, নারকীয় সিরিয়ার বিভীষিকা শোনালেন ডাক্তার]

ব্রিটিশ এয়ারওয়েজ সূত্রে খবর, সম্প্রতি সিডনি থেকে লন্ডনগামী ওই বিমানে ভ্রমণ করার জন্য প্রেমিককে আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন নাটালি ফ্লিন্ডাল নামে এক বিমানসেবিকা। সেই আমন্ত্রণে সাড়া দিয়ে বিমানে উঠে পিছন দিকের একটি সিটে বসেছিলেন তাঁর প্রেমিক। তিনি মদ্যপ অবস্থায় ছিলেন বলেও অভিযোগ। বিমানের মধ্যে কোনও গন্ডগোল না হলেও বিপত্তি হয় সেটি সিঙ্গাপুরে নামার পর। সিঙ্গাপুর থেকে কয়েকঘণ্টা বাদে বিমানটির লন্ডনের উদ্দেশে উড়ে যাওয়ার কথা ছিল। তাই সেখানকার একটি হোটেলে বিমানটির পাইলট, কর্মী ও যাত্রীদের রাখার ব্যবস্থা করেছিল ব্রিটিশ এয়ারওয়েজ কর্তৃপক্ষ। হোটেলের রিসেপশনে আচমকা নাটালির প্রেমিকের সঙ্গে বচসা শুরু হয় বিমানের পাইলটের। শেষপর্যন্ত তা হাতাহাতিতেও পরিণত হয়। পরে সেখানে উপস্থিত বিমান সংস্থার অন্যকর্মীরা দু’জনকে নিরস্ত করে গন্ডগোল থামায়।

যদিও গন্ডগোল সেখানেই শেষ হয়নি। মারামারির খবর বিমান সংস্থার কাছে যেতেই নাটালি ফ্লিন্ডালকে চাকরি থেকে বরখাস্ত করে তারা। আর এতেই অসন্তোষ তৈরি হয়েছে নাটালির সহকর্মীদের মধ্যে। তাঁদের অভিযোগ, এই ঘটনায় পাইলট ও নাটালির প্রেমিক দু’জনেরই দোষ আছে। নাটালি তাঁর প্রেমিকের কৃতকর্মের জন্য চাকরি খোয়ালেও পাইলটের বিরুদ্ধে কোনও ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। কেন এই ধরনের পক্ষপাতিত্ব করা হল তার কোনও কারণ জানা যায়নি।

[আরও পড়ুন:কঙ্গোয় দুর্ঘটনাগ্রস্ত বাসে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড, ঝলসে মৃত কমপক্ষে ৩০]

তবে এপ্রসঙ্গে ব্রিটিশ এয়ারওয়েজের এক মুখপাত্র বলেন, ‘আমরা সবসময় আমাদের সহকর্মীদের কাছ থেকে অত্যন্ত ভদ্র ব্যবহার আশাকরি। তার অন্যথা হলেই কড়া পদক্ষেপ নেওয়া হয়।’

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং