১৫ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

ব্রেক্সিট উত্তাপে ফুটছে ব্রিটেন, পরিস্থিতি সামলে ট্রাম্পকে অভিনব উপহার মে-র

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: June 4, 2019 10:05 am|    Updated: June 4, 2019 2:27 pm

British PM May gives draft of Atlantic Charter to Trump

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক আরও মজবুত করে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে এক অভিনব উপহার দিলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী টেরেসা মে৷ সোমবার, দু’দেশের বন্ধুত্বের প্রতীক হিসেবে ট্রাম্পকে ‘আটলান্টিক চার্টার’-এর একটি খসড়া উপহার দেন মে ও তাঁর স্বামী ফিলিপ৷ 

[আরও পড়ুন: মাঝরাতের আতঙ্ক! জানলার কাঁচ ভেঙে ঢুকে পড়ল কে]

১৯৪১ সালে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের আবহে ‘আটলান্টিক চার্টার’ সই করেন তৎকালীন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী উইনস্টন চার্চিল ও মার্কিন প্রেসিডেন্ট ফ্র্যাঙ্কলিন ডি রুজভেল্ট৷ এই সমঝোতার উপর ভিত্তি করেই পরে রূপ নেয় রাষ্ট্রসংঘ ও ওয়ার্ল্ড ট্রেড অর্গানাইজেশন৷ এই সমঝোতার মাধ্যমে পরস্পরের মধ্যে বাণিজ্য ও অন্যান্য ক্ষেত্রে সহযোগিতা বাড়িয়ে তোলার জন্য অঙ্গীকারবদ্ধ হন তৎকালীন দুই রাষ্ট্রপ্রধান৷ ওই চুক্তিরই একটি খসড়া নিজের হাতে তৈরি করেছিলেন চার্চিল৷ যাতে লাল পেন্সিল দিয়ে আঁকিবুকি কেটে বেশ কিছু সংশোধনও করেছিলেন তিনি৷ সোমবার ওই দুর্লভ ও ঐতিহাসিক খসড়াটি মার্কিন প্রেসিডেন্টকে উপহার স্বরূপ দেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী মে ও তাঁর স্বামী ফিলিপ৷ এছাড়াও এদিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে চার্চিলের লেখা ‘দ্য সেকেন্ড ওয়ার্ল্ড ওয়ার’ বইটির প্রথম সংস্করণ উপহার দেন ব্রিটেনের রানি এলিজাবেথ দ্বিতীয়৷ এদিন বিকেলে যুবরাজ চার্লস ও তাঁর স্ত্রী ক্যামিলা সঙ্গে চা পান করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট৷ এদিন রাতে বাকিংহাম প্যালেসে অতিথি ত্রাম্পের জন্য বিশেষ নৈশভোজের আয়োজন করেছিলেন রানি এলিজাবেথ৷ সেখানে উপস্থিত ছিলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী-সহ একাধিক রাজনৈতিক ও প্রভাবশালী ব্যক্তি৷ 

তবে ট্রাম্পের সফরে সবটাই যে মধুর তা নয়৷ গতকাল স্টেনস্টেড বিমানবন্দরে নেমেই লন্ডনের মেয়র সাদিক খানকে ‘অপদার্থ’ ও ‘বোকা’ বলে তোপ দাগেন ট্রাম্প৷ এর পালটা দেন সাদিকও৷ শুধু তাই নয়, আজ লন্ডনের ট্রাফালগার স্কোয়ারে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ মিছিলের নেতৃত্ব দেবেন লেবার পার্টির নেতা জেরেমি করবিন৷ এদিন মে-র অঙ্গে বৈঠকেও বসতে চলেছেন ট্রাম্প৷ আকারে ইঙ্গিতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট সাফ বুঝিয়ে দিয়েছেন যে, ইউরোপীয় ইউনিয়ন ছেড়ে বেরিয়ে এলে ব্রিটেনের সঙ্গে আলাদা বাণিজ্য চুক্তি করেত আগ্রহী আমেরিকা৷ আগামী শুক্রবার বা ৭ জুন কনজারভেটিভ পার্টির নেত্রী হিসেবে পদত্যাগ করবেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী টেরেসা মে৷ ছাড়তে পারেন প্রধানমন্ত্রীর পদটিও৷ তার আগেই মে-র সঙ্গে আলোচনায় বসতে চলেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট৷ তবে ট্রাম্প-মে আলোচনায় ব্রেক্সিট জট খোলার কোনও সম্ভাবনা নেই বলেই মনে করছে বিশ্লেষকদের একাংশ৷ ন্যাটোর গুরুত্বপুর্ণ সদস্য হিসেবে এবং সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে আমেরিকার সঙ্গে রয়েছে ব্রিটেন৷ কিন্তু ডেভিড ক্যামেরন ক্ষমতাচ্যুত হওয়ার পর মে সরকারের সঙ্গে একাধিক বিষয়ে মতবিরোধ হয়েছে ট্রাম্প প্রশাসনের৷ রবিবার বিতর্ক বাড়িয়ে চুক্তিহীন ব্রেক্সিটের পক্ষে মত দেন ট্রাম্প৷           

[আরও পড়ুন বোমার আঘাতে ছিন্নভিন্ন ইসলামিক স্টেটের কেরল শাখার প্রধান]  

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে