BREAKING NEWS

১৬ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৭  শনিবার ৩০ মে ২০২০ 

Advertisement

‘করোনা চ্যালেঞ্জ’ নিয়ে কমোড চাটাই কাল! মারণ ভাইরাসে আক্রান্ত টিকটক স্টার

Published by: Sayani Sen |    Posted: March 28, 2020 4:50 pm|    Updated: March 28, 2020 4:50 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়ার জন্য কত কিছুই না করেন অনেকে। কেউ কেউ অনেক সময় খ্যাতির লোভে জীবনের ঝুঁকিও নিয়ে ফেলেন। তার বিনিময়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় বাড়ে জনপ্রিয়তা। ক্যালিফোর্নিয়ার টিকটকার লার্জও তার ব্যতিক্রম নন।  তিনিও নানা কাণ্ডকারখানা করে জনপ্রিয়তা পেয়েছেন যথেষ্ট। তবে এবার শুধু জনপ্রিয়তা নয় টিকটক ভিডিও তৈরি করতে গিয়ে অজান্তে শরীরে বাসা বাঁধার সুযোগ করে দিলেন করোনা ভাইরাসকে। 

করোনা আতঙ্কে কাঁপছে গোটা বিশ্ব।  কিন্তু মডেল ও টিকটকার আভা লাউজিকে সে ভয় বিশেষ কাবু করতে পারেননি।  বরং বিপদের সময়েও একের পর এক টিকটক ভিডিও তৈরি করছিলেন তিনি। ফলে জনপ্রিয়তার গ্রাফও ঊর্ধ্বমুখীই ছিল তাঁর। মিয়ামির মডেল আভা সম্প্রতি টিকটকে ‘করোনা চ্যালেঞ্জ’ নেন। জিভ দিয়ে কমোড চেটে এই চ্যালেঞ্জের সূত্রপাত করেন তিনি। যদিও বেশিরভাগ নেটিজেনই তাঁর এই কাজের সমালোচনা করেন। আভার মতোই চ্যালেঞ্জ নেন বছর একুশের টিকটক স্টার লার্জ। তিনিও চাটেন কমোড। ওই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেন। মেলে ব্যাপক জনপ্রিয়তা। এরপর ধীরে ধীরে বাসের হাতল, নার্সিংহোমের বিছানা চাটার চ্যালেঞ্জ নেন। সেই ভিডিও দেখেও লাইক, কমেন্টের বন্যা বইতে থাকে।

[আরও পড়ুুন: সংক্রমণের ভয়, সন্তানকে বুকে জড়াতে না পেরে কাঁদছেন চিকিৎসক]

এ পর্যন্ত সব ঠিকঠাকই ছিল। কিন্তু সম্প্রতি জ্বর, সর্দি, কাশিতে ভুগতে থাকেন লার্জ। সন্দেহ হয় তাঁর পরিজনদের। ভরতি করা হয় হাসপাতালে। তাঁর শারীরিক পরীক্ষা নিরীক্ষা করা হয়। তাতেই দেখা গিয়েছে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত লার্জ। আপাতত হাসপাতালে ভরতি রয়েছেন ক্যালিফোর্নিয়ার ওই টিকটকার। বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, বাসের হাতল, কমোড, হাসপাতালের বিছানা চাটার মাধ্যমে তাঁর শরীরে এই মারণ ভাইরাস বাসা বাঁধতে পারে। জনপ্রিয়তার লোভে এ কাজ না করলেই ভাল হত বলেই দাবি ওই টিকটকারের।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement