১০ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২৬ নভেম্বর ২০২০ 

Advertisement

করোনার পর আরও এক বিরল ভাইরাসের হানা, এবার ঘাঁটি কানাডা

Published by: Paramita Paul |    Posted: November 5, 2020 4:47 pm|    Updated: November 5, 2020 4:47 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: একে করোনায় রক্ষে নেই, নিত্যনতুন ভাইরাস দোসর। এবার সেরকমই ভাইরাস ঘাঁটি গেড়েছে কানাডায় (Canada)। বুধবারই এই বিরল ভাইরাস (Virus) নিয়ে সতর্ক করেছে সে দেশের স্বাস্থ্যবিভাগ।

কানাডার আলবার্তা প্রদেশের এক বাসিন্দার শরীরে সোয়াইন ফ্লু-র (Swine Flue) ‘H1N2’ ভাইরাসের খোঁজ মিলেছে। মানবদেহে এই ভাইরাসের উপস্থিতি খুবই বিরল বিষয়। এই ব্যাপারটাই বিশেষজ্ঞদের বেশি করে ভাবাচ্ছে। তবে স্বস্তির কথা, এই ভাইরাস চট করে একজন মানুষের থেকে অন্য জনের শরীরে ছড়ায় না। ফলে এ যাত্রায় কিছুটা হলেও রক্ষে পাওয়া গিয়েছে। না হলে ফের বিশ্বে করোনা মহামারীর মতো পরিস্থিতি হতে পারত।

[আরও পড়ুন : শিখ সম্প্রদায়ের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা! কর্তারপুর গুরুদ্বারের নিয়ন্ত্রণ কেড়ে নিল ইমরানের প্রশাসন]

অক্টোবর মাসের মাঝামাঝি কানাডার আলবার্তা প্রদেশের এর ব্যক্তি অসুস্থ হয়ে পড়েন৷ তাঁর শরীরে ইনফ্লুয়েঞ্জার লক্ষ্মণ দেখা গিয়েছিল। কিন্তু কিছুতই তাঁর অসুখ সারছিল না। একাধিক পরীক্ষা নীরিক্ষার পর বোঝা যায় তিনি ‘H1N2’ ভাইরাসে আক্রান্ত। কানাডার ওই অংশে এই সময় সাধারণ ইনফ্লুয়ঞ্জার সংক্রমণ দেখা যায় বলে স্বাস্থ্য বিভাগ জানিয়েছেন। সকলেই দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠছেন। আর কেউ এই ভাইরাসে সংক্রমিত হননি। সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি কীভাবে করোনা আক্রান্ত হলেন তা খতিয়ে দেখছে স্বাস্থ্যবিভাগের কর্তারা।

উল্লেখ্য, ‘এইচ ১ এন ১’ ভাইরাসে মানুষ আক্রান্ত হলেও ‘H1N2’ ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার ঘটনা বিরল৷ গত ১৫ বছরের গোটা বিশ্বে মাত্র ২৭ জন এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন৷ তবে এর আগে কানাডাতে এই ভাইরাসের সংক্রমণ ঘটেনি বলেই খবর। স্বাস্থ্যকর্তাদের মতে, খাবারের মাধ্যমে এই ভাইরাস মানুষের দেহে প্রবেশ করতে পারে না। ফলে শূকরের মাংস থেকে এই ভাইরাস সংক্রমিত হয়েছে তা বলা যায় না। একমাত্র শূকরের সংস্পর্শে এলেই এই ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভবনা থাকছে।

[আরও পড়ুন : মার্কিন নির্বাচনে ইতিহাস! মোট ভোটের নিরিখে ওবামার রেকর্ডও ভেঙে ফেললেন বিডেন]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement