BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

করোনা মোকাবিলায় ব্যর্থ! অ্যানিমেশনের মাধ্যমে আমেরিকাকে নিয়ে ‘মশকরা’ চিনের

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: May 3, 2020 12:19 pm|    Updated: May 3, 2020 12:37 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা আবহে আমেরিকা ও চিনের (China) দ্বন্দ্বে নতুন মাত্রা। অ্যানিমেশনের মাধ্যমে আমেরিকার যাবতীয় অভিযোগ খারিজ করে দিল চিন। যদিও, নিন্দুকেরা বলছেন, আসলে করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ট্রাম্পের ব্যর্থতা নিয়ে ‘মশকরা’ করছে বেজিং।

ব্যাপারটা একটু খোলসা করে বলা যাক। করোনা ভাইরাস চিনে শুরু থেকে মহামারি আকার নিলেও এখনও পর্যন্ত করোনায় মৃত‌্যুর সংখ‌্যা সব থেকে বেশি আমেরিকায়। কিন্তু নিজের দেশের এই দুরবস্থার দায় শুরু থেকেই চিনের উপর চাপিয়ে আসছেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প (Donald Trump)। তাঁর অভিযোগ, চিন করোনা নিয়ে শুরু থেকেই তথ্য গোপন করে আসছে। চিনের গবেষণাগারে করোনা ভাইরাস মনুষ্যসৃষ্ট হতে পারে বলেও তোপ দেগেছেন তিনি। এমনকী, বেজিংয়ের কাছ থেকে ক্ষতিপূরণও দাবি করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। কোভিড-১৯ ভাইরাস ছড়ানো নিয়ে হোয়াইট হাউস যখন তোপ দাগছে, বেজিংয়ের তখন পালটা চাল, করোনা নিয়ে আগাম সতর্ক করা সত্ত্বেও কান দেয়নি ওয়াশিংটন।

[আরও পড়ুন: বাদ সাধল হোয়াইট হাউস, করোনা নিয়ে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে সাক্ষী দেবেন না ফাউচি]

সম্প্রতি চিনের সরকারি সংবাদমাধ্যম একটি অ্যানিমেশন ভিডিও প্রকাশ করেছে। যাতে দেখানো হয়েছে, চিনের করোনা যোদ্ধারা অনেক আগেই আমেরিকাকে সতর্ক করেছিল। কিন্তু মার্কিন মুলুক তাতে কান দেয়নি। ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে, চিনের এক যোদ্ধা আমেরিকার ‘স্ট্যাচু অফ লিবার্টি’র কাছে গিয়ে জানাচ্ছে, ‘আমরা একটা ভাইরাস আবিষ্কার করেছি।’ ‘স্ট্যাচু অফ লিবার্টি’ তাতে উত্তর দিচ্ছে, ‘তাতে কি, এটা তো সামান্য একটা ফ্লু।’ এরপর চিনের ওই করোনা যোদ্ধা ‘স্ট্যাচু অফ লিবার্টি’কে একের পর এক সাবধানবানী শোনাচ্ছে, কিন্ত সে কিছুতেই পাত্তা দিচ্ছে না। মাস্ক পরা বা লকডাউন করা সবকিছুকেই ‘বর্বরোচিত’ বলে আখ্যা দিচ্ছে আমেরিকা। শেষে যখন আমেরিকায় সংক্রমণ বেড়ে চলছে, তখন সেই ‘স্ট্যাচু অফ লিবার্টি’ই চিনকে তোপ দাগছে। তথ্য গোপনের অভিযোগ তুলছে। ভিডিওটির শেষে দেখা যাচ্ছে, ‘স্ট্যাচু অফ লিবার্টি’ জ্বরে লাল হয়ে যাচ্ছে। তবুও বলছে, আমরাই ঠিক ছিলাম।

[আরও পড়ুন: করোনা-ভূমিকম্পের জোড়া ধাক্কা সামলে হাসছে ক্রোয়েশিয়া, গল্প শোনালেন প্রবাসী গবেষক]

এক মিনিট ৪৬ সেকেন্ডের এই ভিডিও ক্লিপটির নাম দেওয়া হয়েছে,’একদা কোনও এক ভাইরাস।’ এই ভিডিওটি ইতিমধ্যেই ভাইরাল হয়ে গিয়েছে। যা আর যাই হোক মার্কিন প্রেসিডেন্ট
ট্রাম্পকে খুশি করবে না।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement