BREAKING NEWS

১৪ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

নতুন ফন্দি চিনের, এবার পাকিস্তানকে অত্যাধুনিক রণতরী বিক্রি করছে বেজিং

Published by: Paramita Paul |    Posted: August 24, 2020 3:10 pm|    Updated: August 24, 2020 3:10 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কাশ্মীর (Kashmir) নিয়ে চিনা প্রতিনিধির কাছে উদ্বেগ প্রকাশ করেছিলেন পাকিস্তানের বিদেশমন্ত্রী । এরপরই ভারতের উপর চাপ বাড়াতে ইসলামাবাদকে (Islamabad) অত্যাধুনিক যুদ্ধজাহাজ (Warship) দিল ‘ড্রাগন’। একটা নয়, ২০২১ সালের মধ্যে অত্যাধুনিক ক্ষমতাসম্পন্ন চারটি যুদ্ধজাহাজ দিতে চলেছে চিন। ওয়াকিবহাল মহল বলছে, চিনে তৈরি হওয়া যুদ্ধজাহাজগুলি হাতে পেলে কয়েকগুণ ক্ষমতাশালী হয়ে উঠবে পাকিস্তানি (Pakistan) নৌসেনা।

চিনা সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, ইসলামাবাদের সঙ্গে কৌশলগত সম্পর্ক আরও মজবুত করছে বেজিং (Bejing)। তারই অংশ হিসেবে রবিবার প্রথম যুদ্ধজাহাজটি ইসলামাবাদের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। এখনও পর্যন্ত যতগুলি যুদ্ধজাহাজ বিদেশি সেনাকে বিক্রি করা হয়েছে, তার মধ্যে সবচেয়ে বড় কমব্যাট শিপ (Combat Ship) হল এটি। রণতরীটিতে রয়েছে মিসাইল প্রতিরোধক ক্ষমতা। পাশাপাশি, অত্যাধুনিক যুদ্ধ সরঞ্জম বহন করার ক্ষমতা রয়েছে জাহাজটির। রবিবার সাংহাইয়ের হুদোং ঝংহুয়া শিপইয়ার্ডে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল। সেখানে চিনের নৌসেনা ও রণতরী প্রস্তুতকারক সংস্থার তাবড়-তাবড় কর্তারা হাজির ছিলেন। সেই অনুষ্ঠানেই অত্যাধুনিক রণতরীটিকে সর্বসমক্ষে নিয়ে আসা হয়।

[আরও পড়ুন : প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফকে ‘পলাতক’ ঘোষণা করল পাকিস্তান]

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি চিনের বিদেশমন্ত্রী ওয়াং ই-এর সঙ্গে আলোচনায় জম্মু-কাশ্মীরের পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছিলেন পাকিস্তানের বিদেশমন্ত্রী শাহ মহম্মদ কুরেশি। এরপরই অত্যাধুনিক রণতরীটি প্রকাশ্যে আনল চিন। যা পাকিস্তানের হাতে তুলে দেওয়া হবে। এদিকে সীমান্ত নিয়ে ভারতের সঙ্গে চিন ও পাকিস্তানের সম্পর্কে টানাপোড়েন চলছে। তার মধ্যেই দুদেশের মধ্যে সামরিক সরঞ্জাম আদান-প্রদানের উপর কড়া নজর রাখছে ভারতও।

[আরও পড়ুন : পাকিস্তানের পাশে থাকার ফল! চিনের সঙ্গে ১০ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের চুক্তি বাতিল সৌদির]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement