২২ আষাঢ়  ১৪২৭  মঙ্গলবার ৭ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

করোনা মোকাবিলায় চিনের সাহায্যের আর্তি! বিদ্বেষ ভুলে জিনপিংকে ফোন ট্রাম্পের

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: March 28, 2020 8:54 am|    Updated: March 28, 2020 12:07 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা ভাইরাস নিয়ে এতদিন চিনের উপর রীতিমতো আক্রমণাত্বক মেজাজে ছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প (Donald Trump)। কিন্তু নিজের দেশে সংক্রমণের হার বাড়তেই সুর নরম করে ফেললেন তিনি। বিবাদ ভুলে ফোন করে ফেললেন উলটো মেরুতে অবস্থান করা চিনের প্রেসিডেন্টকে। মারক ভাইরাসের মোকাবিলায় একসাথে কাজ করার অঙ্গীকার করলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

 

[আরও পড়ুন: প্রিন্স চার্লসের পর এবার বরিস জনসন, করোনায় আক্রান্ত ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী]

 

মারণ ভাইরাসের উৎসস্থল কোথায়, তা নিয়ে এতদিন এই দুই রাষ্ট্রনেতার মধ্যে কাদা ছোঁড়াছুড়ি চলছিল। জৈবিক অস্ত্র হিসেবে ব্যবহার করার জন্য চিনই ভাইরাসটি তৈরি করেছে। এই অভিযোগে খোদ মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং মার্কিন বিদেশ সচিব মাইক পেম্পেও করোনাভাইরাসকে ‘চিনা ভাইরাস’ বলে কটাক্ষ করেছেন। ট্রাম্পের এই মন্তব্যে তীব্র আপত্তি জানিয়েছে চিনও। এই সঙ্ঘাতের আবহেই বৃহস্পতিবার ট্রাম্প ইঙ্গিত দেন, প্রয়োজনে চিনের
প্রেসিডেন্টের সাথে কথা বলবেন তিনি। শনিবার টুইট করে তিনি নিজেই জানালেন জিনপিংয়ের (Xi Jinping) সাথে তাঁর কথা হয়েছে। মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, “বিশ্বের একটা বড় অংশে দাপট দেখাচ্ছে করোনা ভাইরাস। চিন এই ভাইরাস নিয়ে অনেক কিছু জানে। ওরা শুরু থেকে এর মোকাবিলা করে আসছে। এ নিয়ে চিনের প্রেসিডেন্টের সাথে কথা হল, আমরা খুব ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করব এবং এই ভাইরাসের মোকাবিলা করব”। কূটনৈতিকদের মতে, আসলে মার্কিন প্রেসিডেন্ট নিজের দেশে সংক্রমণের হার নিয়ে উদ্বিগ্ন। আর চিনের সাহায্য ছাড়া যে করোনার মোকাবিলা সম্ভব নয়, তাও বুঝে গিয়েছেন তিনি। সে কারনেই বেজিংয়ের প্রতি সুর নরম তাঁর। 

[আরও পড়ুন: করোনা আক্রান্ত সহকর্মীর সঙ্গে সেলফি, সাসপেন্ড পাকিস্তানের ৬ সরকারি কর্তা]

করোনা সংক্রমণে চিন ও ইতালিতে পিছনে ফেলে দিয়েছে আমেরিকা। ইতিমধ্যেই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে এই মারক ভাইরাসের কবলে পড়েছেন অন্তত ১ লক্ষ মানুষ। বিশ্বের সবচেয়ে বেশি মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন মার্কিন মুলুকেই। তাই উদ্বিগ্ন ট্রাম্প একপ্রকার বাধ্য হয়েই জিনপিংয়ের দ্বারস্থ হলেন।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement