BREAKING NEWS

২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২৫ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

২০২১ সালের এপ্রিলের মধ্যেই ভ্যাকসিন পাবেন আমেরিকার সমস্ত নাগরিক, প্রতিশ্রুতি ট্রাম্পের

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: September 19, 2020 12:56 pm|    Updated: September 19, 2020 12:56 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ২০২১ সালের এপ্রিল মাসের মধ্যেই আমেরিকার ৩৩ কোটি বাসিন্দাকে করোনার ভ্যাকসিন দেওয়া হবে বলে শুক্রবার ঘোষণা করলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প (Donald Trump)। এর আগে অবশ্য অক্টোবরেই ভ্যাকসিন দেওয়া শুরু হয়ে যাবে বলে ঘোষণা করেছিলেন তিনি।

শুক্রবার একটি সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি বলেন, ‘প্রশাসনের অনুমোদন পেলেই আমেরিকায় করোনার ভ্যাকসিন দেওয়ার কাজ শুরু হবে। প্রতিমাসে কয়েক লক্ষ করে ভ্যাকসিন দেওয়ার মতো প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। আশা করা যায়, আগামী বছরের এপ্রিল মাসের মধ্যেই সমস্ত আমেরিকানকে দেওয়ার মতো ভ্যাকসিনের ডোজ আমাদের কাছে থাকবে।’

[আরও পড়ুন: মহামারীর কোপে মিলছে না ফি, দেশজুড়ে ‘বিক্রির’ পথে এক হাজার স্কুল! ]

এদিকে ট্রাম্প যখন ৩ নভেম্বরের ভোটের আগে ভ্যাকসিনকে তুরুপের তাস করে প্রচার চালাচ্ছেন তখন দেশের করোনা (Corona) পরিস্থিতি নিয়ে তাঁর তীব্র সমালোচনা করলেন প্রতিদ্বন্দ্বী জো বিডেন। বললেন, অতিমারীর আতঙ্ককে ট্রাম্প যেভাবে হেলাফেলা করেছেন তা ‘অপরাধ’। ট্রাম্পের প্রশাসনকেও ‘একেবারে দায়িত্বজ্ঞানহীন’ বলে তুলোধনা করেছেন বিডেন। নিজের শহর স্ক্রান্টনের কাছাকাছি, মুজিক টাউন হলে বক্তৃতা দিচ্ছিলেন ডেমোক্র্যাটিক পার্টির প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী জো বিডেন। সেখানে তিনি বলেন, “আমেরিকানদের সত্যিটা বলতে হবে। কিন্তু, ট্রাম্প সরকার একবারও সেটা করতে এগিয়ে আসেনি। প্রেসিডেন্টের উচিত পদত্যাগ করা।”

করোনা ভাইরাসের প্রভাব কী মারাত্মক হতে পারে জেনেও তাকে গুরুত্ব দেননি ট্রাম্প। যা নিয়ে বিডেনের মন্তব্য, “উনি সব জানতেন, অথচ কিছুই করেননি। এটা তো অপরাধ। আমি কোনওদিন ভাবতে পারিনি এতটা অকর্মণ্য, দায়িত্বজ্ঞানহীন প্রশাসন দেখতে হবে।” আমেরিকার বিদেশনীতি নিয়ে বিডেন বলেছেন, অন্য দেশে মার্কিন বাহিনী কমাতে চান তিনি। রাশিয়াকে ‘প্রতিপক্ষ’ হিসেবে অভিহিত করলেও চিন তাঁর কাছে ‘প্রতিযোগী’। তিনি চান চিনের সঙ্গে বাণিজ্যিক সম্পর্ক আরও ভাল করতে।

পার্টির তরফ থেকে নমিনেশন জেতার পরে এটাই ছিল বিডেনের প্রথম লাইভ অনুষ্ঠান, যেখানে তিনি দর্শকদের স্বতঃস্ফূর্ত প্রশ্নের জবাব দিলেন। করোনাকালে আয়োজিত অনুষ্ঠানে দর্শকাসন ছিল না। বরং ৩৫টা গাড়ি টাউন হল চত্বরে পার্ক করে তার আশপাশে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে জড়ো হয়েছিলেন দর্শকরা।

[আরও পড়ুন: মোদির অনুপ্রেরণাই ভারতের করোনা যুদ্ধে বড় ভূমিকা নিয়েছে, দাবি কেমব্রিজের সমীক্ষায়]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement