BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

মুনাফার লোভে বিদ্বেষ ছড়াচ্ছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ! অভিযোগ তুলে সংস্থা ছাড়লেন ইঞ্জিনিয়ার

Published by: Paramita Paul |    Posted: September 9, 2020 10:15 am|    Updated: September 9, 2020 10:21 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সংস্থার মুনাফা বাড়াতে গিয়ে বিদ্বেষ ছড়াচ্ছে ফেসবুক (Facebook)। এমনই চাঞ্চল্যকর অভিযোগ করে মার্ক জুকারবার্গের সংস্থা ছাড়লেন ইঞ্জিনিয়ার অশোক চান্দওয়ানে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে (USA) কর্মরত ওই ইঞ্জিনিয়ারের অভিযোগে শোরগোল পড়ে গিয়েছে। যদিও অভিযোগ উড়িয়ে ফেসবুকের দাবি, “আমরা বিদ্বেষ ছড়িয়ে মুনাফা করি না। বিদ্বেষমূলক পোস্ট এড়াতে আমরা সমস্ত সতর্কমূলক পদক্ষেপ করছি”।

স্থানীয় সময় অনুযায়ী মঙ্গলবার সকালে ফেসবুকের সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার অশোক চান্দওয়ানে ১৩০০ শব্দের পদত্যাগপত্র জমা করেন। তাতে সংস্থার বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দেন। কোথায় কোথায় কীভাবে বিদ্বেষমূলক পোস্টকে ফেসবুক প্রশয় দিয়েছে, তাও স্পষ্ট করে পদত্যাগপত্রে উল্লেখ করেন তিনি। এক্ষেত্রে আলাদাভাবে মায়ানমার ও কেনোশিয়ার অশান্তির কথা উল্লেখ করেছেন অশোক। বলেছেন, কেনশিয়ায় একদল উগ্রপন্থী বন্দুক নিয়ে বিক্ষোভ দেখানোর উসকানি দেয়। সেই পোস্টগুলি সরায়নি ফেবসুক। এমনকী, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ‘লুঠপাট শুরু হলেই, গুলি চালানো শুরু হবে’, এই মন্তব্যের কথাও পদত্যাগপত্রে উল্লেখ করেছেন অশোক। তিনি জানিয়েছেন, “আমি এমন সংস্থার হয়ে আর কাজ করতে পারব না, যাঁরা মার্কিব যুক্তরাষ্ট্র-সহ গোটা বিশ্বে বিদ্বেষ ছড়িয়ে মুনাফা করে।”

[আরও পড়ুন : টিকা নেওয়ার পরই অসুস্থ স্বেচ্ছাসেবক! স্থগিত অক্সফোর্ডের করোনা ভ্যাকসিনের চূড়ান্ত ট্রায়াল]

এরপরই তড়িঘড়িয়ে ফেসবুকের মুখপাত্র Liz Bourgeois জানান,”আমরা বিদ্বেষ ছড়িয়ে মুনাফা করি না। প্রতি বছর কোটি কোটি টাকা বিনিয়োগ করি ব্যবহারকারীদের সুরক্ষা সুনিশ্চিত করতে। নির্দিষ্ট সময় অন্তর নিজেদের নীতির পর্যালোচনা করে থাকি।” তাঁর আরও দাবি, ৯৫ শতাংশ ক্ষেত্রে কোনও বিদ্বেষমূলক পোস্ট নিয়ে অ্য ব্যবহারকারীরা রিপোর্ট করার আগেই আমরা সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নিয়ে ফেলি।” কিন্তু ভারত, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও বিশ্বের অন্যান্য প্রান্তে যখন ফেসবুকের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে, সেই সময় সেই সংস্থারই এক কর্মীর এই অভিযোগ তুলে পদত্যাগ নিসন্দেহে চাঞ্চল্য ছড়াবে। পাশাপাশি ফেসবুকের উপরও চাপ বাড়াবে।

[আরও পড়ুন : জাতীয় পরিচয়পত্রে থাকবে মায়ের নামও, নয়া সিদ্ধান্ত আফগান সরকারের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement