৪ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

মেয়েকে ধর্ষণ করে ২২ বছরের হাজতবাস বাবার

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: July 29, 2016 8:15 pm|    Updated: July 29, 2016 8:15 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: জন্মদাতা পিতা মেয়ের দুঃখে কষ্টে সঙ্গে থাকে। তার ভাল-মন্দের খেয়াল রাখে। বাবা সম্পর্কে এই ধারণাগুলোই সমাজে প্রচলিত। কিন্তু অস্ট্রেলিয়ার এক বাবা যা করলেন, তাতে পিতৃত্বের সংজ্ঞাটাই পাল্টে গেল।

এই বাবা দীর্ঘদিন ধরে নিজের মেয়েকে ধর্ষণ করেছে। শুধু তাই নয়, অচেনা ব্যক্তিদের ডেকে এনে তাদের দিয়েও মেয়ের ধর্ষণ করিয়েছে। কেন জানেন? জানলে অবাক হতে হয়। কারণ মেয়েকে ধর্ষিতা হতে দেখে দারুণ আনন্দ পেত এই ব্যক্তি। মেয়ের কাতর আর্তনাদ তার এতটাই প্রিয় যে ধর্ষণের ভিডিও করে রাখত সে। স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগের ভিত্তিতে গতবছর ধর্ষণকারীকে গ্রেফতার করা হয়। মেয়েকে ধর্ষণ করার অপরাধে তাকে ২২ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে অস্ট্রেলীয় জেলা আদালত। তা সত্ত্বেও চোখে মুখে অপরাধ বোধের ছিটেফোঁটা নেই তার। বরং তার দাবি, এমন অপরাধের জন্য ২২ বছরের জেলহাজতের শাস্তিটা বড্ড বেশি! আদালত তাকে লঘু পাপের গুরু দণ্ড দিয়েছে বলে মনে করে সে। তাই আদালতের কাছে এই শাস্তির বিরুদ্ধে চ্যালেঞ্জ জানিয়েছে সে।

২০১৩ থেকে ২০১৫-র মধ্যে মেয়েকে ৬১ বার ধর্ষণ করেছে সে। আদালতে অকপটে এ কথা স্বীকারও করেছে অভিযুক্ত। তখন তার মেয়ের বয়স ১১ বছর। ৪২ বর্ষীয় বাবা এও জানায়, সোশ্যাল মিডিয়ায় ছ’জন ব্যক্তির সঙ্গে তার পরিচয় হয়েছিল। তাদেরকে দিয়েও মেয়েকে ধর্ষণ করিয়েছে।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement