২২ আষাঢ়  ১৪২৭  মঙ্গলবার ৭ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

গণতন্ত্রের ধাক্কায় কুপোকাত ট্রাম্প, উত্তাল ওয়াশিংটন ডিসি থেকে সরল ফৌজ

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: June 5, 2020 9:42 am|    Updated: June 5, 2020 9:42 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গণতন্ত্রের দাওয়াই যে কতটা কড়া তা এবার টের পেলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। কার্যত ঢোক গিলেই, কৃষ্ণাঙ্গ জর্জ ফ্লয়েড হত্যার প্রতিবাদে উত্তাল রাজধানী ওয়াশিংটন ডিসি থেকে ফৌজ সরিয়ে নিতে হল তাঁকে।

[আরও পড়ুন: ‘তাণ্ডবের ছবি দেখে মর্মাহত’, আমফান দুর্গত এলাকায় সাহায্যের বার্তা ফরাসি প্রেসিডেন্টের]

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর, মার্কিন সময় মতে বৃহস্পতিবার আমেরিকার রাজধানী ওয়াশিংটন ডিসি থেকে ফৌজের এলিট বাহিনী 82nd Airborne-এর কয়েকশো জওয়ানকে ব্যারেকে ফেরার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। শীঘ্রই তারা নর্থ ক্যারোলাইনার ফোর্ট ব্রেগ সেনাঘাঁটিতে ফিরে যাবে। উল্লেখ্য, মিনিসোটায় পুলিশের হাতে কৃষ্ণাঙ্গ যুবক জর্জ ফ্লয়েড খুন হওয়ার পর থেকেই বিক্ষোভে উত্তাল হয়ে উঠে আমেরিকা। প্রায় গোটা দেশেই ছড়িয়ে পড়ে বিক্ষোভ। অনেক ক্ষত্রেই হিংসাত্মক ঘটনা ঘটে। পরিস্থিতি এমন জায়গায় পৌঁছায় যে হোয়াইট হাউসের গোপন বাঙ্কারে লুকোতে হয় মার্কিন প্রেসিডেন্টকে। এহেন সঙ্কটে রাজধানী ওয়াশিংটন ডিসি’র সুরক্ষায় ন্যাশনাল গার্ডের পাশপাশি ফৌজ মোতায়েন করার নির্দেশ দেন ট্রাম্প।

এদিকে, নিরীহ বিক্ষোভকারীদের বিরুদ্ধে ফৌজ মোতায়েন নিয়ে সরব হয়েছেন দেশের প্রাক্তন সেনাপ্রধান জন এলেন, মার্কিন জয়েন্ট চিফ অফ স্টাফের প্রেসিডেন্ট মার্ক মাইলে, প্রাক্তন প্রতিরক্ষা সচিব জিম ম্যাটিস-সহ অনেকেই। শুধু তাই নয়, জওয়ানদের উদ্দেশে মাইলে স্পষ্ট বার্তা দেন, শান্তিপূর্ণভবে জমায়েত করে বিক্ষোভের অধিকার সবার আছে। এটাই আমেরিকা। সকলকেই সংবিধানের মূল্যবোধ তুলে ধরতে হবে। বুধবার হোয়াইট হাউসে যান বর্তমান প্রতিরক্ষা সচিব মার্ক এসপার। বিশ্লেষকদের মতে, বিক্ষোভকারীদের বিরুদ্ধে ট্রাম্পের ফৌজ মোতায়েনের সিদ্ধান্ত মেনে নিতে পারছেন না অনেকেই। বিশ্বের অন্য প্রান্তে গণতন্ত্রের প্রতি বিশেষ সম্মান না দেখালেও, নিজের দেশে সাংবিধানিক মূল্যবোধ ও গণতান্ত্রিক অধিকার রক্ষায় অতি তৎপর মার্কিনিরা। ফলে একনায়কতন্ত্র ফলাতে গিয়ে রীতিমতো বিপাকে পড়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প।

[আরও পড়ুন: ‘ড্রাগন’ বধে নয়া ফাঁদ, অস্ট্রেলিয়ার সেনাঘাঁটিতে পা রাখবে ভারতীয় ফৌজ!]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement