BREAKING NEWS

২৭ আষাঢ়  ১৪২৭  রবিবার ১২ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

জঙ্গি হাফিজের গ্রেপ্তারি ‘লোক দেখানো’, পাকিস্তানের অস্বস্তি বাড়িয়ে বার্তা ট্রাম্প প্রশাসনের

Published by: Tanujit Das |    Posted: July 20, 2019 11:33 am|    Updated: July 20, 2019 5:03 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ‘‘জঙ্গি নেতা হাফিজ সইদকে গ্রেপ্তার করেছে পাকিস্তান ঠিকই, তবে তা নেহাতই লোক দেখানো৷’’ ইমরান সরকারের অস্বস্তি বাড়িয়ে শুক্রবার এমনই বার্তা দিল ট্রাম্প প্রশাসন৷ কটাক্ষের সুরে এই শীর্ষ আধিকারিক জানালেন, ‘‘অতীতের দিকে চোখ রাখলেই আমরা দেখতে পাব, আগেও এই ঘটনা ঘটেছে৷ তবে এবার আমরা এর বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা চাই৷ আমরা আশা করব, পাকিস্তান যথাযথ ভাবে বিষয়টির মোকাবিলা করবে৷’’ ট্রাম্পঘনিষ্ঠ আধিকারিক যখন এ কথা বলছেন, তার কয়েকদিনের মধ্যেই প্রথমবার মার্কিন প্রেসিডেন্টের মুখোমুখি হবেন পাক প্রধানমন্ত্রী৷ ফলে ইসলামাবাদ সম্পর্কে ওয়াশিংটনের এই মনোভাব, বৈঠকের আগেই ইমরান খানকে যথেষ্ট চাপে রাখবে বলে মনে করছেন আন্তর্জাতিক বিশেষজ্ঞরা৷

[ আরও পড়ুন: স্থূল মহিলারা স্বর্গে যেতে পারবেন না, ফাদারের কথা শুনে এ কী করলেন যুবতী!]

এবার প্রথম নয়, অতীত ঘাটলে দেখা যাবে মুম্বই হামলার মাস্টারমাইন্ড হাফিজ সইদকে ২০০১ থেকে এখনও পর্যন্ত মোট সাতবার গ্রেপ্তার করেছে পাক পুলিশ৷ তবে এটুকুই! প্রত্যেকবারই জেলের মধ্যে বহাল তবিয়তে দিন কাটিয়েছেন লস্কর প্রধান৷ ভিভিআইপি ট্রিটমেন্টে বিলাসবহুল জীবপযাপন করেছেন তিনি৷ তারপর নিয়মমাফিক মিলেছে রেহাই৷ এ দিনের বক্তব্যে সন্ত্রাসবাদের প্রতি পাকিস্তানের এই দ্বিচারিতার দিকেই ইঙ্গিত করেন ট্রাম্প প্রশাসনের ওই আধিকারিক৷ সাফ জানান, ‘‘আমরা চোখ বন্ধ করে নেই৷ কোনও ঘোরের মধ্যেও নেই৷ ইতিহাস সম্পর্কে আমাদের সম্যক জ্ঞান রয়েছে৷ খোলা চোখে আমরা বিষয়টা স্পষ্ট দেখতে পাচ্ছি৷ আগেও হাফিজ সইদ গ্রেপ্তার হয়েছে৷ কিন্তু তাতেও লস্করের কাজকর্মে কোনও প্রভাব পড়েনি৷ সে জন্যই এবার আমরা কড়া পদক্ষেপ দেখতে চাইছি৷ এবং আমরা সমগ্র বিষয়টি নজরে রাখছি৷’’

[ আরও পড়ুন: গাড়িতেই বেকড বিস্কুট! আমেরিকার তাপমাত্রা চিন্তা বাড়াচ্ছে আবহাওয়াবিদদের ]

প্রসঙ্গত, পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর এই প্রথম ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে বৈঠক করবেন ইমরান খান৷ সূত্রের খবর, আগামী ২২ জুলাই তিনদিনের মার্কিন সফরে যাচ্ছেন পাক প্রধানমন্ত্রী৷ যে বৈঠকের দিকে চেয়ে রয়েছে নয়াদিল্লিও৷ ভারতের আশা, এই বৈঠক থেকে সন্ত্রাসবাদ ইস্যুতে পাকিস্তান কড়া বার্তা দেবেন ডোনাল্ড ট্রাম্প৷ আমেরিকা, ফ্রান্স, ইংল্যান্ড-সহ অন্যান্যদের সহায়তায় ইতিমধ্যেই জঙ্গি মাসুদ আজহারকে আন্তর্জাতিক জঙ্গির তকমা দিয়েছে রাষ্ট্রসংঘ৷ দীর্ঘ টালবাহানার পর যে প্রস্তাবকে সমর্থন করেছে পাকিস্তানের সব ঋতুর বন্ধু চিনও৷ এমনকী, পাকিস্তানকে ‘ধূসর তালিকাভুক্ত’ করেছে এফএটিএফ। সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে পাকিস্তানকে ইতিমধ্যেই চরম হুঁশিয়ারি দিয়েছে ‘দ্য ফিনান্সিয়াল অ্যাকশন টাস্ক ফোর্স’ (এফএটিএফ)। এই পরিস্থিতিতে, সন্ত্রাসবাদ ইস্যুতে পাকিস্তান সম্পর্কে মার্কিন প্রশাসনের এই মন্তব্য, আমেরিকা সফরের আগে পাক প্রধানমন্ত্রীকে চাপে রাখবে বলেই মত বিশেষজ্ঞদের৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement