BREAKING NEWS

১৭ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  শনিবার ৪ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

বেজিংয়ের উৎকন্ঠা বাড়িয়ে জামিনে মুক্ত হংকংয়ের গণতন্ত্রকামী ধনকুবের জিমি লাই

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: December 24, 2020 4:06 pm|    Updated: December 24, 2020 4:06 pm

Hong Kong pro-democracy tycoon Jimmy Lai granted bail | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বেজিংয়ের উৎকন্ঠা বাড়িয়ে জামিনে মুক্ত হংকংয়ের গণতন্ত্রকামী ধনকুবের জিমি লাই। বুধবার ১.৩ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের ব্যক্তিগত বন্ডের বিনিময়ে স্বায়ত্বশাসিত প্রদেশটির মিডিয়া টাইকুন ও গন্ততন্ত্রের দাবিতে আন্দোলনের অন্যতম মুখ লাইকে জামিন দেয় হংকংয়ের একটি আদালত।

[আরও পড়ুন: এবার দক্ষিণ আফ্রিকায় মিলল আরও বেশি সংক্রামক করোনা ভাইরাস! বাড়ছে আতঙ্ক]

একটি দুর্নীতি মামলায় ডিসেম্বরের ৩ তারিখ থেকে পুলিশ হেফাজতে ছিলেন ৭৩ বছর বয়সের লাই। বরাবরই বেজিংয়ের স্বৈরচারের বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন ‘Next Digital’ মিডিয়া সংস্থার কর্ণধার। তাঁর পরিচালিত হংকংয়ের সংবাদপত্র ‘Apple Daily’-কে চিনে সংবাদ মাধ্যমের অন্তিম ‘স্বাধীন গড়’ হিসেবে মনে করে ওয়াকিবহাল মহল। এর আগে, গত আগস্ট মাসে লাই ও তাঁর এক ছেলে ইয়ানকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে যায় পুলিশ। তার আগে এক সাক্ষাৎকারে লাই সাফ জানিয়েছিলেন, হংকংয়ে থেকেই তিনি গণতন্ত্রের পক্ষে লড়াই চালিয়ে যাবেন। নয়া জাতীয় নিরপত্তা আইনে তাঁকে নিশানা করবে বেজিং বলে সেখানে আশঙ্কা প্রকাশ করেছিলেন তিনি, সেই আশঙ্কাই সত্যি হয়। বিশ্লেষকদের মতে, লাইয়ের প্রভাব প্রতিপত্তিতে রাশ টানতে তৎপর হয়েছে জিনপিং প্রশাসন। তাই মিথ্যা মামলায তাঁকে ফাঁসিয়ে জেলে পাঠাতে মরিয়া কমিউনিস্ট পার্টি। কিন্তু আদালত লাইকে জামিন দেওয়ায় কিছুট হলেও উদ্বিগ্ন বেজিং।

উল্লেখ্য, গত জুন মাসে আন্তর্জাতিক মঞ্চের প্রতিবাদ হেলায় উড়িয়ে হংকং নিয়ে বিতর্কিত জাতীয় নিরাপত্তা বিল পাশ করে চিন। বিতর্ক উপেক্ষা করেই ‘National security legislation for Hong Kong’ শীর্ষক বিলটিতে সই করেন চিনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং। এর ফলে স্বায়ত্বশাসিত প্রদেশটির উপর বেজিংয়ের রাশ আরও মজবুত হয়েছে। তারপরই চিনের উপর চাপ বাড়িয়ে হংকংয়ের (Hong Kong) ৩০ লক্ষ বাসিন্দাকে নাগরিকত্ব দেওয়ার কথা ঘোষণা করে ব্রিটেন। শুধু তাই নয়, সদ্য হংকংয়ের ‘চিনপন্থী’ প্রশাসক ক্যারি লাম-সহ ১০ জন উচ্চপদস্থ চিনা আধিকারিকের উপর ভ্রমণ ও আর্থিক বিষয় সংক্রান্ত নিষেধাজ্ঞা চাপিয়েছে ওয়াশিংটন। হংকংয়ের স্বায়ত্তশাসনের অধিকার ক্ষুণ্ণ করে নিপীড়ন চালাচ্ছে বেজিং যার জেরে এই পদক্ষেপ করা হয়েছে বলে জানিয়েছে ট্রাম্প প্রশাসন। 

[আরও পড়ুন: হত্যার ষড়যন্ত্রে অভিযুক্ত সৌদি যুবরাজকে রক্ষাকবচ দিতে চলেছে ট্রাম্প প্রশাসন]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে