১৫ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

‘বন্ধু’ কিমের সুস্থতার খবরে বেজায় খুশি ট্রাম্প, টুইটে ঝরে পড়ল প্রেম

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: May 3, 2020 5:37 pm|    Updated: May 3, 2020 5:37 pm

'I am glad to see he is back', Trump lauded Friend Kim Jong Un

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মৃত্যু জল্পনা উড়িয়ে শুক্রবারই জনসমক্ষে এসেছেন তিনি। তিনি বেঁচে আছেন, নাকি প্রয়াত হয়েছেন? গত প্রায় ৩ সপ্তাহ ধরে বিশ্বজুড়ে এই প্রশ্ন ঘোরাফেরা করছিল। তাঁর স্বাস্থ্য নিয়ে নানারকম গুজব-জল্পনাও ছড়িয়েছে। কিন্তু শুক্রবার উত্তর কোরিয়ার (DPR Korea) শাসক কিম জং উন (Kim Jong-Un) সুনচন শহরে একটি সার কারখানার উদ্বোধন করতে জনসমক্ষে এসে সব জল্পনা উড়িয়ে দেন। তাঁর সুস্থতার খবর পেয়েই নড়েচড়ে বসেছে আমেরিকা। ‘বন্ধু’ কিমের সুস্থতার খবরে যারপরনাই আপ্লুত মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প (Donald Trump)।

ট্রাম্প জানিয়েছেন, কিম সুস্থ হয়ে জনসমক্ষে আসায় তিনি খুবই খুশি। টুইট করে তিনি লিখেছেন, ‘একজনের জন্য অন্তত আমি খুব খুশি, সে সুস্থ হয়ে ফিরেছে।’ প্রসঙ্গত, উত্তর কোরিয়ার সরকারি সংবাদমাধ্যম KCNA জানিয়েছে, শুক্রবার রাজধানী পিয়ংইয়ংয়ের কাছে সুনচন এলাকার একটি সারের কারখানা উদ্বোধন করতে যান কিম জং উন। ফিতে কেটে কারখানার উদ্বোধনের পাশাপাশি যাবতীয় সুযোগ-সুবিধা সম্পর্কে খোঁজখবরও নেন কিম। সেসময় তাঁর সঙ্গে ছিলেন প্রশাসনের কিছু শীর্ষস্থানীয় কর্তা এবং বোন কিম ইয় জং। ওই কারখানা উদ্বোধনের সমাবেশে নাকি বহু সাধারণ মানুষ কিমকে করতালি দিয়ে অভ্যর্থনাও জানায়। অনুষ্ঠানে উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রপ্রধান আবেগপ্রবণ হয়ে বলেন, “আজ আমার ঠাকুরদা এবং বাবা বেঁচে থাকলে আধুনিক সারের কারখানা দেখে অত্যন্ত খুশি হতেন।” তবে এই সবটাই উত্তর কোরিয়ার সরকারি সংবাদ মাধ্যম KCNA-র দাবি।

[আরও পড়ুন: মৃত্যু জল্পনার অবসান, বহাল তবিয়তে জনসমক্ষে এলেন কিম!]

উল্লেখ্য, গত সোমবার কিমের স্বাস্থ্য নিয়ে জল্পনা বাড়িয়েছিলেন ট্রাম্পই। হোয়াইট হাউসে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে ট্রাম্প বলেছিলেন, “আমার কিম জং উনের সঙ্গে খুব ভাল সম্পর্ক। আমি যদি আজ মার্কিন প্রেসিডেন্ট না হতাম তাহলে এতদিন কোরিয়ার সাথে যুদ্ধ করতে হত আমেরিকাকে। আমি জানি ও এখন কেমন আছে। কিছুদিন পরই আপনারাও জানতে পাবেন। এখন আমি কিছু বলতে পারব না। আশা করি ও ভালই আছে।” মার্কিন প্রেসিডেন্টের এই বক্তব্যকে অনেকেই কিমের জীবিত থাকার ইঙ্গিত বলে মনে করেছেন সেইসময়। শুক্রবার কিম সুস্থসবল হয়ে আত্মপ্রকাশ করার খবর চাউর হতেই রবিবার বন্ধুর জন্য উচ্ছ্বাস দেখা গেল ট্রাম্পের টুইটে।

[আরও পড়ুন: করোনা মোকাবিলায় ব্যর্থ! অ্যানিমেশনের মাধ্যমে আমেরিকাকে নিয়ে ‘মশকরা’ চিনের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে