Advertisement
Advertisement
Imran Khan

‘আমার স্ত্রীর যদি কিছু হয়…’, জেল থেকেই পাক সেনাপ্রধানকে হুঁশিয়ারি ইমরানের

রাওয়ালপিন্ডির আদিয়ালা জেলে রয়েছেন ইমরান।

Published by: Suchinta Pal Chowdhury
  • Posted:April 18, 2024 10:27 am
  • Updated:April 18, 2024 1:43 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: তোষাখানা মামলায় জেলবন্দি রয়েছেন প্রাক্তন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান(Imran Khan)। একই মামলায় গরাদের পিছনে দিন কাটছে তাঁর স্ত্রী বুশরা বিবির। এছাড়াও তাঁদের ঘাড়ে ঝুলছে অবৈধ বিয়ে-সহ একাধিক মামলা। জেলবন্দি অবস্থায় কাপ্তানের স্ত্রীকে খাবারের সঙ্গে বিষ মিশিয়ে খাওয়ানোর অভিযোগ উঠেছিল। এবার স্ত্রীকে নিয়ে পাক সেনাপ্রধান আসিম মুনিরকে কড়া হুঁশিয়ারি দিলেন ইমরান। জেলে বসেই তাঁর হুঙ্কার, “যদি আমার স্ত্রীর কিছু হয় ওকে ছেড়ে দেব না।”

এই মুহূর্তে রাওয়ালপিন্ডির আদিয়ালা জেলে রয়েছেন ইমরান। বুধবার সেখানে এক সাংবাদিকের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে পাকিস্তানের সেনাপ্রধান আসিম মুনিরের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দেন তিনি। একাধিক অভিযোগ জানিয়ে বলেন, “আমার স্ত্রীকে হাজতবাসের জন্য জেনারেল আসিম মুনির দায়ী। বুশরার এই শাস্তির পিছনে হাত রয়েছে মুনিরের। যে বিচারপতি সাজা শুনিয়েছিলেন তাঁকে বাধ্য করা হয়েছিল এই সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য। যদি আমার স্ত্রীর কিছু হয় আমি ওঁকে ছাড়ব না। আমি যতদিন বেঁচে থাকব পার পাবে না আসিম মুনির। ওঁর সমস্ত অবৈধ, অসাংবিধানিক কাজকর্মের কথা ফাঁস করে দেব।”

Advertisement

[আরও পড়ুন: বড়সড় দুর্নীতির অভিযোগ, মালদ্বীপে ভোটের মুখে পর্দাফাঁস ভারত বিরোধী মুইজ্জুর!]

পাশাপাশি প্রাক্তন পাক অধিনায়ক কড়া ভাষায় সমালোচনা করেন বর্তমান সরকারের। পাকিস্তানের শাসনব্যবস্থাকে জঙ্গলরাজের সঙ্গে তুলনা করে তিনি বলেন, “দেশে জঙ্গলের রাজার শাসন চলছে। তিনি চেয়েছিলেন বলে, সব মামলায় নওয়াজ শরিফের সাজা মুকুব করে দেওয়া হয়েছে। কিন্তু আমাদের পাঁচ দিনের মধ্যে তিনটি মামলায় সাজা শোনানো হয়েছিল।”

Advertisement

উল্লেখ্য, ইসলামাবাদের বানিগালার জেলে বন্দি রয়েছেন ইমরানের স্ত্রী বুশরা। এখানেই তাঁকে খাবারের সঙ্গে বিষ খাওয়ানোর অভিযোগ উঠেছিল। গত ফেব্রুয়ারি মাসে পাকিস্তানে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছিল। বুশরার আইনজীবীর অভিযোগ ছিল, ভোটের দিনই বুশরার খাবারে বিষ মিশিয়ে দেওয়া হয়। প্রচণ্ড মশলাদার সেই খাবার খেয়েই তাঁর মুখে আর পেটে ঘা হয়ে যায়। নিজের বয়ানে বুশরা জানিয়েছিলেন, খাবারের মধ্যে ইচ্ছা করে কিছু ঢেলে দিয়েছিলেন জেল আধিকারিকরা। সেই খাবারই জোর করে খাইয়ে দেওয়া হয়।

এই খবর জানতে পেরেই ক্ষোভে ফেটে পড়েছিলেন ইমরানের দল পাক তেহরিক-ই-ইনসাফের সমর্থকরা। পিটিআইয়ের তরফে অভিযোগ ছিল, দেশের ফ্যাসিস্ট সরকার ইচ্ছা করে ইমরানের পরিবারকে আক্রমণ করছে। বুশরা বিবিকে চিকিৎসার সুযোগও দেওয়া হচ্ছে না। এর আগে জেলেই খুন হতে পারেন বলে একাধিকবার আশঙ্কা প্রকাশ করেছিলেন বুশরা বিবিও। এই মুহূর্তে জেলে আঁটসাঁট নিরাপত্তার মধ্যে রাখা হয়েছে ইমরান খানকে।

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ