BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘কাশ্মীরে মানবাধিকার বলে কিছু নেই’, অভিযোগ রাষ্ট্রসংঘের বিশেষ প্রতিনিধি দলের

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: August 7, 2020 6:08 pm|    Updated: August 7, 2020 6:08 pm

An Images

ফাইল ফটো

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কাশ্মীরে মানবাধিকার (human rights) বলে কিছু নেই। ভারত সরকার এখনও যদি এই বিষয়ে কোনও পদক্ষে না নেয়, তাহলে পরিস্থিতি সামাল দিতে আন্তর্জাতিক সংগঠনগুলিকে পদক্ষেপ নিতে হবে বলে মন্তব্য করল রাষ্ট্রসংঘের মানবাধিকার পরিষদের বিশেষ প্রতিনিধি দল। ৩৭০ ধারা প্রত্যাহারের পর থেকে ভূস্বর্গের মুসলিম বাসিন্দাদের উপর আক্রমণ চালানো হচ্ছে বলেও অভিযোগ তাদের।

গত পাঁচ আগস্ট জম্মু ও কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা প্রত্যাহারের বর্ষপূর্তি হয়েছে। আর ঠিক সেই দিনই রাষ্ট্রসংঘের মানবাধিকার পরিষদের বিশেষ প্রতিনিধি দল (Special Procedures of the Human Rights Council) -এর তরফে একটি বিবৃতি প্রকাশ করা হয়। তাতে উল্লেখ করা হয়েছে, বিশেষ মর্যাদা প্রত্যাহারের পর থেকে কাশ্মীরের মানুষের জীবন ভয়াবহ হয়ে উঠেছে। প্রতিনিয়তই মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনা ঘটছে। পরিস্থিতি এতটাই উদ্বেগজনক যে ভারত সরকারের এখনই সেখানকার মুসলিম নাগরিকদের জন্য বিশেষ নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা উচিত। অবিলম্বে উপযুক্ত পদক্ষেপ না নিলে পরে পরিস্থিতি সামলানো মুশকিল হয়ে পড়বে। তখন বাধ্য হয়ে আন্তর্জাতিক সংগঠনগুলিকে হস্তক্ষেপ করতে হবে।

[আরও পড়ুন: চিনকে জোর ধাক্কা, মার্কিন সংস্থা থেকেই চিকিৎসা সামগ্রী কেনার নির্দেশ ট্রাম্পের ]

এবিষয়ে গত এক বছরে ওই প্রতিনিধি দলের তরফে তিন থেকে চারটি চিঠি দেওয়া হলেও ভারত সরকার তার কোনও জবাব দেয়নি বলে অভিযোগ। এর পাশাপাশি ওই প্রতিনিধি দল আরও জানিয়েছে যে গত বছরের অক্টোবর থেকে জম্মু ও কাশ্মীরের মানবাধিকার কমিশন বন্ধ রয়েছে। এর ফলে প্রশাসন যখন তখন কাউকে আটক করলে বা মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনা ঘটালেও তার জবাব চাওয়ার কেউ নেই।

[আরও পড়ুন: চিনের সাহায্যে আণবিক বোমা পেতে চলেছে সৌদি আরব! নজর রাখছে উদ্বিগ্ন আমেরিকা]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement