BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

লাদাখে সংঘর্ষের আবহেই চিনা ফৌজের সঙ্গে যৌথ মহড়ায় ভারতীয় সেনা

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: August 26, 2020 7:04 pm|    Updated: August 26, 2020 7:13 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: লাদাখ সীমান্তে সংঘর্ষের আবহেও চিনা ফৌজের সঙ্গে যৌথ মহড়ায় অংশ নেবে ভারতীয় সেনা। জানা গিয়েছে, রাশিয়ায় আয়োজিত ‘ক্যাভকাজ় ২০২০’ নামে ওই মহড়ায় আয়োজক রাশিয়া-সহ ১৯টি দেশ অংশ নেবে।

[আরও পড়ুন: পাকিস্তান থেকে RDX ও অস্ত্র পাচারের জের, রাজস্থানে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ১০ ব্যক্তির]

সেনা সূত্রে খবর, শুধু চিন নয়, পাকিস্তানের ফৌজের সঙ্গেও আগামী মাসে যৌথ মহড়ায় নামবে ভারতীয় বাহিনী। তবে সামরিক মহড়ায় অংশগ্রহণকারী সমস্ত সৈনিকদের করোনা পরীক্ষার পর ১৪ দিন কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে। এর পরে রাশিয়া পৌঁছনোর পরে আর এক দফা করোনা পরীক্ষা করা হবে সকলের। বিশেষ বাহিনী-সহ বিভিন্ন বিভাগের সেনা অফিসাররা যোগ দেবেন ওই দলে। থাকছেন ভারতীয় বায়ুসেনা ও নৌসেনার প্রতিনিধিও। সূত্রের খবর, সেপ্টেম্বরের ১৫ থেকে ২৬ তারিখ পর্যন্ত চলবে মহড়া। বাহিনীর পাশাপাশি তিনটি জাহাজও মহড়ায় শামিল করতে চলেছে চিন।

বিশ্লেষকদের মতে, চিন-ভারত সংঘাত মেটাতে পর্দার আড়ালে থেকে চেষ্টা চালাচ্ছে রাশিয়া। বেজিং অব নিয়াদিল্লি দুইয়ের উপরই প্রভাব থাকায় এই কাজে সুবিধাজনক অবস্থায় রয়েছে মস্কো। আর সাউথ ব্লকও চাইছে রুশ হস্তক্ষেপে বিবাদ মেটাতে। ফলে সামরিক মহড়ার মাধ্যমে কূটনীতির মঞ্চে যে ত্রিপাক্ষিক আলোচনা সম্ভব তা স্পষ্ট।

এদিকে, গালওয়ানে সংঘাত নিয়ে ভারতের সঙ্গে বোঝাপড়ায় আসতে চাইছে চিন। গালওয়ানের সংঘর্ষে শহিদ হয়েছিলেন ২০ জন ভারতীয় সেনা। সেই রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষকে দুর্ভাগ্যজনক এবং ইতিহাসের দৃষ্টিকোণ থেকে বিক্ষিপ্ত ঘটনা ব্যক্ত করে ভারত-চিন দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক মেরামতির কথা বললেন চিনা রাষ্ট্রদূত সুন ওয়েইডং। গত ১৮ আগস্ট একটি ওয়েবিনারে এই মন্তব্য করেন সুন। গতকাল মঙ্গলবার সেই বিবৃতি প্রকাশ করেছে দূতাবাস। ঐতিহাসিক দৃষ্টিভঙ্গি থেকে গালওয়ানের ঘটনা বিক্ষিপ্ত। তবে ২০ জন ভারতীয় সেনার শহিদ হওয়ার ঘটনা দুর্ভাগ্যজনক বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি। সব মিলিয়ে নয়াদিল্লির সঙ্গে আপাতত বিবাদ মিটিয়ে নিতে চাইছে বেজিং বলেই মনে করছেন অনেকে।

[আরও পড়ুন: সিপিএমের আন্দোলন ঘিরে উত্তপ্ত ত্রিপুরা, গ্রেপ্তার প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকার]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement