BREAKING NEWS

১৫ মাঘ  ১৪২৮  শনিবার ২৯ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

সোশ্যাল মিডিয়ায় ইসলামবিরোধী পোস্ট, চাকরি খোয়ালেন কানাডার ভারতীয় বংশোদ্ভূত যুবক

Published by: Bishakha Pal |    Posted: May 8, 2020 5:04 pm|    Updated: May 8, 2020 5:04 pm

Indian origin man terminated from his job as his social media post was against Islam

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ইসলামবিরোধী মন্তব্য করায় চাকরি খোয়ালেন কানাডার এক ভারতীয় বংশোদ্ভূত ব্যক্তি। রবি হুডা নামে ওই ব্যক্তি রিয়েল এস্টেটের এজেন্ট। এছাড়া কানাডার একটি স্কুলের পরিচালন বোর্ডে সদস্য ছিলেন তিনি। ইসলামবিরোধী মন্তব্য করায় তাঁকে সেই পদ থেকে সরিয়ে দিয়েছে স্কুল কর্তৃপক্ষ।

মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোতে ইসলামবিরোধী মন্তব্য করায় চাকরি হারানো নতুন কিছু নয়। অনেক প্রবাসী ভারতীয়ই এর শিকার হয়েছেন। কিন্তু তাই বলে কানাডায় এমন ঘটনা ঘটবে, তা বোধহয় স্বপ্নেও ভাবতে পারেন না কেউ। কিন্তু অবাক করার মতো এমন ঘটনা সত্যিই ঘটেছে কানাডায়। যদিও আচমকা রবি হুডাকে ছাড়িয়ে দেওয়া হয়নি। বিতর্ক বেশ কিছুদিন ধরেই চলছিল। সম্প্রতি কানাডায় শব্দদূষণ আইনে সংশোধন করা হয়। এত দিন শুধুমাত্র গির্জার ঘণ্টা বাজানোর ক্ষেত্রে ছাড় ছিল। কিন্তু সংশোধিত আইনে বলা হয়, নির্দিষ্ট সময় ও ডেসিবেলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রেখে সমস্ত ধর্মেই শব্দের ক্ষেত্রে ছাড় দেওয়া হবে। সেক্ষেত্রে মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষের আজান দেওয়াও এর আওতাভুক্ত হয়। এরপরই বাঁধে গন্ডগোল।

[ আরও পড়ুন: করোনা আক্রান্তের সেবা করতে গিয়ে ভারতীয় বংশোদ্ভূত ডাক্তার বাবা-মেয়ের মৃত্যু ]

রবি হুডা নামে এই ব্যক্তি এক বিতর্কিত মন্তব্য করেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় তিনি লেখেন, ‘এবার উট বা ছাগলের পিঠে সওয়ারিদের জন্য নতুন রাস্তা হবে? পশুবলিকেও মান্যতা দেওয়া হবে? মহিলাদের ঘুরে বেড়াতে হবে বোরখা পরে?’ তাঁর এই মন্তব্য ঘিরে সোশ্যাল মিডিয়ায় বিতর্কের ঝড় ওঠে। বিতর্কের মাঝে ওই পোস্টটি সোশ্যাল সাইট থেকে মুছে দেন রবি। কিন্তু থামেনি নিন্দুকরা। ইসলামবিরোধী পোস্ট করার জন্য ক্ষুব্ধ হয় ইসলামপন্থী সংগঠনগুলিও। নেটদুনিয়াতেই পালটা আঘাত আসে রবির দিকে। ‘কানাডিয়ান অ্যান্টি হেট নেটওয়ার্ক’ নামে একটি টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে তাঁর মন্তব্যের নিন্দা করা হয়। এরপরই আসে দুঃসংবাদ। ‘আরই/ম্যাক্স কানাডা’ নামে যে রিয়েল এস্টেট কোম্পানিতে কাজ করতেন তিনি, সেখান থেকে তাঁকে বরখাস্ত করা হয়। এ প্রসঙ্গে সংস্থার তরফ থেকে জানানো হয়, তারা সর্বধর্মে বিশ্বাসী। রবির মন্তব্যের সঙ্গে তারা সহমত পোষণ করে না। সেই কারণেই বরখাস্ত করা হয়েছে রবিকে। শুধু তাই নয়। কানাডার ম্যাকভিলে পাবলিক স্কুলের পরিচালন বোর্ডেরও সদস্য ছিলেন রবি। সেখান থেকেও সরিয়ে দেওয়া হয় তাঁকে। স্কুলের তরফে জানানো হয়, রবির ইসসাম বিরোধিতা তারা মেনে নেয় না। তাই এমন সিদ্ধান্ত।

[ আরও পড়ুন: রাজকোষ গড়ের মাঠ, লকডাউন তুলে দিচ্ছে ‘ফতুর’ পাকিস্তান ]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে