BREAKING NEWS

১৬ ফাল্গুন  ১৪২৬  শনিবার ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

আমাজন কর্তার মোবাইল হ্যাক, নাম জড়াল সৌদি যুবরাজ সলমনের  

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: January 22, 2020 3:05 pm|    Updated: January 22, 2020 3:05 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফের বির্তকে সৌদি আরবের যুবরাজ মহম্মদ বিন সলমন।এবার বহুজাতিক অনলাইন বিপণী সংস্থা আমাজনের সিইও জেফ বেজোসের মোবাইল হ্যাকিং কাণ্ডে নাম জড়াল তাঁর। 

বিশ্বের অন্যতম বিত্তবান ব্যক্তি আমাজন কর্তা জেফ বেজোস। সম্পত্তির পরিমাণ প্রায় ১০ হাজার ৯৬০ কোটি ডলার। ২০০৮ সালে বেজোসের সঙ্গে মোবাইলে মেসেজ আদান প্রদান হয় সৌদি যুবরাজ সলমনের। সেই সময় আমাজন কর্তাকে যুবরাজ সলমনের ব্যক্তিগত মোবাইল থেকে পাঠানো হয় একটি ভিডিও বার্তা। ডিজিটাল ফরেন্সিক অ্যানালাইজ নামের একটি সংস্থার দাবি, সেই ভিডিয়োর মধ্যে লুকিয়ে ছিল ‘হ্যাকিং টুল’ বা ফোন থেকে তথ্য চুরি করার প্রযুক্তি। যার মাধ্যমে চুরি হয় বেজ়োসের মোবাইলের বেশ কিছু তথ্য। এই অভিযোগের ভিত্তিতে আন্তর্জাতিকভাবে তদন্ত চলছিল। সন্দেহ করা হয়েছে, বেজ়োসের বান্ধবীর সঙ্গে ব্যক্তিগত মেসেজের তথ্যও চুরি হয়েছে। যদিও আমাজনের ব্যবসা সংক্রান্ত কোনও গুরুত্বপূর্ণ নথি হ্যাক হয়েছে কিনা এখন নিশ্চিত নয়।

যুবরাজ সলমনের বিরুদ্ধে ওঠা এই অভিযোগে রীতিমতো তোলপাড় আন্তর্জাতিক মহল।এমনিতেই যথেষ্ট প্রভাবশালী বলে জানা জায় সলমনকে। সৌদি ‘সিক্রেট সার্ভিসেস’ বা গোয়েন্দা বিভাগের উপর তাঁর দখল অনেকটাই। ফলে আমাজনের সিইও-র মোবাইল হ্যাকিংয়ে তাঁর হাত থাকতে পরে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকদের একাংশ। এর আগে, সাংবাদিক জামাল খাশোগ্গির হত্যায় নাম জড়িয়েছিল সৌদি যুবরাজের। যদিও সৌদির অভ্যন্তরীণ তদন্তে কোথায় সলমনের নাম উল্লেখ করা হয়নি।  

উল্লেখ্য, গত বছরই স্ত্রী ম্যাকেনজির সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদ হয় জেফ বেজ়োসের। অভিযোগ, এরপরই মার্কিন সাংবাদিক লরেন সানচেজের সঙ্গে পরকীয়ায় জড়ান তিনি। এদিকে, হ্যাকিংয়ের সব অভিযোগ ফুৎকারে উড়িয়ে দিয়েছে সৌদি প্রশাসন। বিবৃতি দিয়ে জানানো হয়েছে, এই অভিযোগ ভিত্তিহীন। নিরপেক্ষ তদন্তের দাবি তোলে সলমনের প্রশাসন। তবে, এই সব অভিযোগ বিভিন্ন সংবাদ-মাধ্যমে প্রকাশিত  হয়েছে। এ বিষয়ে মুখে কুলুপ এঁটেছে তদন্তকারী সংস্থা।

[আরও পড়ুন: কাশ্মীর ইস্যুতে পাকিস্তানকে মদত, ভারতের ‘পালটা মারে’ বিপাকে মালয়েশিয়া]

An Images
An Images
An Images An Images