৫ আশ্বিন  ১৪২৬  সোমবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কাশ্মীর ইস্যুতে ভারতের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের সমস্ত সীমা আগেই পার করেছে পাকিস্তান৷ ফেক নিউজ, ফেক ভিডিও ছাড়িয়ে বিশ্বকে বিভ্রান্ত করার যে চেষ্টা ইসলামাবাদ করেছে, তা আগেই ব্যর্থ হয়েছে৷ কিন্তু তাতেও যেন দমতে নারাজ ইমরানের দেশ৷ সমস্ত মাত্রা ছাড়িয়ে মঙ্গলবার পর্ন তারকা জনি সিনসকে ‘অন্ধ কাশ্মীরি যুবক’ বলেও দাবি করে বসেন ভারতে নিযুক্ত প্রাক্তন পাক রাষ্ট্রদূত আবদুল বাসিত৷ নেটিজেনদের পাশাপাশি, যার মোক্ষম উত্তর দিলেন পর্ন তারকা নিজেই৷ প্রত্যুত্তরে পাক আমলাকে সোশ্যাল মিডিয়ায় মশকরার পাত্র বানিয়ে ছাড়লেন তিনি৷

[ আরও পড়ুন: বাড়ির খাবারে অরুচি, একটানা ৭ বছর ফ্রেঞ্চ ফ্রাই খেয়ে দৃষ্টি হারাল কিশোর ]

সোমবার জনি সিনসের একটি পর্ন ছবির দৃশ্য রিটুইট করেন এই প্রাক্তন পাক আমলা৷ টুইটারে তিনি লেখেন, ‘‘অনন্তনাগের বাসিন্দা ইউসুফ…পেলেটের আঘাতে নিজের দৃষ্টিশক্তি হারিয়েছেন…এবার সবাই প্রতিবাদ সরব হন৷’’ অর্থাৎ পর্নস্টার জনি সিনসকে কাশ্মীরের বাসিন্দা ‘ইউসুফ’ বলে দাবি করেন আবদুল বাসিত৷ জানান, ভারতীয় সেনার ছোঁড়া পেলেট বুলেটের আঘাতে দৃষ্টিশক্তি হারিয়েছে ইউসুফ(জনি সিনস)৷ এই অত্যাচারের বিরুদ্ধে আওয়াজ তোলা প্রয়োজন আরজি জানান তিনি৷ এই রিটুইটের পরই নেটিজেনদের রোষের মুখে পড়েন আবদুল বাসিত৷ সোশ্যাল মিডিয়ায় শুরু হয় তীব্র সমালোচনা৷

[ আরও পড়ুন: ব্রিটেনের ভারতীয় দূতাবাসে ভাঙচুর পাক বংশোদ্ভূতদের, নিন্দায় সরব আন্তর্জাতিক মহল ]

বাসিতের লেখাটি রিটুইট করেন প্রখ্যাত সাংবাদিক মাইলা ইনায়াত৷ টুইটারে তিনি লেখেন, পর্নস্টার জনি সিনসকে কাশ্মীরের নাগরিক ভেবে ভুল করেছেন প্রাক্তন পাক রাষ্ট্রদূত আবদুল বাসিত৷ এছাড়া নেটিজেনরাও বিষয়টা নিয়ে মশকরা শুরু করেন৷ মঙ্গলবার বসিতকে উত্তর দিলেন পর্ন তারকা জনি সিনস নিজেই৷ পালটা টুইটে মজা করে প্রথমে বাসিতকে ফলোয়ার্স বা অনুরাগী বাড়ার জন্য শুভেচ্ছা দেন তিনি৷ তারপর বলেন, ‘‘আমি সুস্থ রয়েছি৷ আমার চোখও ভাল রয়েছে৷’’

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং