১২ ফাল্গুন  ১৪২৬  মঙ্গলবার ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

An Images
An Images An Images

দেশের প্রথম মহিলা পাইলট হিসেবে নজির গড়লেন জর্ডনের রাজকুমারী

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: January 16, 2020 9:33 am|    Updated: January 16, 2020 10:07 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দেশের প্রথম মহিলা যুদ্ধবিমান পাইলট হিসেবে ইতিহাস তৈরি করেছেন জর্ডনের রাজকন্যা সালমা মিন্ত আবদুল্লা। ১৯ বছর বয়সী রাজকন্যাকে গত বুধবার এক অনুষ্ঠানে ‘এভিয়েশন উইং’ পড়িয়ে দেন দেশটির রাজা দ্বিতীয় অবদুল্লা।

২০১৮ সালে নভেম্বরে জর্ডনের সামরিক বাহিনীর সঙ্গে বিমান উড়ানোর প্রশিক্ষণ নিয়ে পরীক্ষায় সফল হন রাজকন্যা সালমা। এর আগে ইংল্যান্ডে রয়্যাল মিলিটারি  অ্যাকাডেমি থেকে স্নাতক হন সালমা। আর কয়েকদিনের মধ্যেই বিমান উড়ানোর কাজ শুরু করবেন তিনি।

এক বিবৃতিতে রয়েল হাশেমাইট কোর্ট জানায়, সালমার পাইলট হিসেবে অভিষেক অনুষ্ঠানে অংশ নেন তাঁর মা রানি রানিয়া এবং বড় ভাই যুবরাজ আল হুসেন বিন অবদুল্লা। জর্ডনের  সশস্ত্র বাহিনীতে ফার্স্ট লেফটেন্যান্ট পদে রয়েছেন যুবরাজ হুসেন। এক ইনস্টাগ্রাম পোস্টে বোনকে শুভেচ্ছা জানান তিনি। যুবরাজ বলেন, “জর্ডনের প্রথম নারী পাইলট হওয়ায় তোমাকে অভিনন্দন জানাই। প্রত্যেকবারের  মতোই এবারও প্রতিভা ও পরিশ্রমের ফল পেয়েছ তুমি। এই উইং পড়ায় তোমাকে অভিনন্দন। ভবিষ্যতের জন্য অনেক শুভকামনা।”

এদিকে, রাজকন্যাকে নিয়ে করা যুবরাজের পোস্ট মুহূর্তেই সোশ্যাল মিডিয়ায় বিড়াল হয়ে যায়।  ফেসবুক ও টুইটারে একের পর এক আসতে থাকে শুভেচ্ছা বার্তা-সহ অনেক ইতিবাচক কমেন্ট। এক টুইটার ব্যবহারকারী লেখেন, ‘বড় হয়ে আমি রাজকন্যা হতে চাই স্বপ্নটি এখন নতুন মাত্রা পেল।’

প্রসঙ্গত, ইসলামিক দেশগুলিতে মহিলাদের স্বাধীনতা সেই অর্থে নেই বললেই চলে। সামাজিক তথা মৌলবাদীদের নানা বিধিনিষেধ মেনে চলতে হয় তাঁদের। এহেন সময়ে নিজের কৃতিত্বে নয় নজির গড়েছেন জর্ডনের রাজকন্যা। যদিও, এর আগে দেশের প্রথম মহিলা হিসেবে সামরিক প্রশিক্ষণ শেষ করেছিলেন সালমার পিসি প্রিন্সেস আসিয়া বিনতে হুসেইন। পরে তিনি দেশটির স্পেশ্যাল ফোর্সে যোগ দেন।

[আরও পড়ুন: দেশে উন্নয়ন অধরাই, পদত্যাগ করলেন রাশিয়ার প্রধানমন্ত্রী-সহ গোটা মন্ত্রিসভা]

An Images
An Images
An Images An Images