BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

আতঙ্কের মাঝে সুখবর, লন্ডনের করোনা আক্রান্ত সদ্যোজাত সম্পূর্ণ বিপন্মুক্ত

Published by: Sayani Sen |    Posted: March 15, 2020 8:54 pm|    Updated: March 15, 2020 9:01 pm

An Images

ছবি: প্রতীকী

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিপদের মাঝেও শোনা গেল সুখবর। চিকিৎসকরা জানিয়ে দিলেন লন্ডনের করোনা আক্রান্ত সদ্যোজাত সম্পূর্ণ বিপন্মুক্ত। বিভিন্ন ধরনের পরীক্ষা-নিরীক্ষার পরই এ বিষয়ে নিশ্চিত হন চিকিৎসকরা। তবে আপাতত চব্বিশ ঘণ্টা পর্যবেক্ষণে রাখা হবে ওই দুধের শিশুকে। তারপরই হাসপাতাল থেকে ছুটি দেওয়া হবে তাকে।

নর্থ মিডলসেক্স হাসপাতালে সদ্য এই শিশুটির জন্ম দেন এক তরুণী। জন্মের পরেই চিকিৎসকরা দেখেন সদ্যোজাতের শ্বাসকষ্ট হচ্ছে। তার শরীরে করোনা ভাইরাস সংক্রমণের সব উপসর্গও ধীরে ধীরে লক্ষ্য করেন চিকিৎসকরা। তড়িঘড়ি রক্ত পরীক্ষা করা হয়। তাতে ধরা পড়ে সদ্যোজাত সিওভিডি ১৯ পজিটিভ অর্থাৎ সে করোনা ভাইরাস আক্রান্ত। বিশ্বে প্রথমবার লন্ডনের এই সদ্যোজাতর শরীরে মেলে করোনা ভাইরাস। এরপরই আলাদা আইসোলেশন ওয়ার্ডে রেখে তার চিকিৎসা শুরু হয়। তবে বর্তমানে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, ওই সদ্যোজাত সম্পূর্ণ বিপন্মুক্ত। তার শারীরিক পরীক্ষা-নিরীক্ষা এখনও জারি রয়েছে। আপাতত চব্বিশ ঘণ্টা পর্যবেক্ষণে রাখা হবে একরত্তিকে। আপাতত শিশুর মাকেও আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভরতি রাখা হয়েছে। উল্লেখ্য, এর আগে কেরলেও তিন বছরের শিশুর শরীরে মিলেছিল মারণ চিনা ভাইরাসের জীবাণু।

[আরও পড়ুন: করোনা সংক্রমণ রুখতে এ কী করলেন ইটালির প্রৌঢ়! নেটদুনিয়ায় হাসির রোল]

কিন্তু প্রশ্ন একটাই মাতৃগর্ভে থাকাকালীন কীভাবে ভাইরাস তার শরীরে বাসা বাঁধল? যদিও এ বিষয়ে কোনও সুস্পষ্ট তথ্য নেই চিকিৎসকদের কাছে। নর্থ মিডলসেক্স হাসপাতালের চিকিৎসকদের অনেকেই মনে করছেন, শিশুটির মা ভাইরাস আক্রান্ত ছিলেন। তাই গর্ভে থাকাকালীন শিশুর শরীরেও তা সংক্রামিত হয়েছিল। আবার কেউ কেউ বলছেন, প্রসবের প্রায় সঙ্গে সঙ্গেই ভাইরাস তার শরীরে থাবা বসিয়েছে। এই ঘটনার পর থেকে শিশু এবং বৃদ্ধদের সাবধানে থাকার পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement