২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৬ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

বৌদ্ধদের আন্দোলনের ফল, গোহত্যা নিষিদ্ধ হচ্ছে শ্রীলঙ্কায়!

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: September 19, 2020 6:43 pm|    Updated: September 19, 2020 6:43 pm

An Images

ফাইল ফটো

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বৌদ্ধদের দীর্ঘদিনের আন্দোলনের ফলে গোহত্যা নিষিদ্ধ হতে চলেছে শ্রীলঙ্কায়। চলতি সপ্তাহে দলের সংসদীয় কমিটির বৈঠকের সময় সাংসদদের সামনে এই সংক্রান্ত একটি প্রস্তাব রাখেন শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দা রাজাপক্ষে (Mahinda Rajapaksa)। এবিষয়ে সাংসদদের মতামত জানতে চান।

শ্রীলঙ্কার সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা গিয়েছে, সম্প্রতি শাসকদল শ্রীলঙ্কা পোদুজানা পেরামুনা (SLPP)’র সংসদীয় দলের বৈঠকে দেশজুড়ে গোহত্যা বন্ধ করার প্রস্তাব দেন প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দা রাজাপক্ষে। বলেন, দেশের বেশিরভাগ নাগরিকই গোহত্যার বিরোধী। তাকে ভগবান হিসেবে পুজোও করেন অনেকে। তাই এটা নিষিদ্ধ করা উচিত। সঙ্গে সঙ্গে তাঁর এই প্রস্তাবকে সমর্থন জানিয়ে অবিলম্বে এই বিষয়ে আইন প্রণয়ন করার পক্ষে সওয়াল করেন সেখানে উপস্থিত সাংসদরা।

[আরও পড়ুন: পাকিস্তানে ফের অনাচার! হিন্দু কিশোরীকে অপহরণের পর ধর্মান্তরিত করে বিয়ে যুবকের]

এপ্রসঙ্গে শ্রীলঙ্কান মন্ত্রিসভার মুখপাত্র কেহেলিয়া রামবুকবেলা জানান, প্রধানমন্ত্রী দেশজুড়ে গোহত্যা বন্ধ করার প্রস্তাব দিয়েছেন। তাঁকে সমর্থন জানিয়েছেন সংসদীয় কমিটির বৈঠকে উপস্থিত সাংসদরা। আশা করা যাচ্ছে খুব তাড়াতাড়ি এই বিষয়ে আইন প্রণয়ন করা হবে। সরকার এই বিষয়ে নিষেধাজ্ঞা জারি করলে আমাদের দেশের চাহিদা মেটানোর জন্য গরুর মাংস (beef) বিদেশ থেকে আমদানি করা হবে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, শ্রীলংকার জনসংখ্যার মধ্যে ৭০ শতাংশই বৌদ্ধ। তাঁদের অনেকে গরুকে ভগবান জ্ঞানে পুজো করেন। তাই গোহত্যার বিরোধিতায় দীর্ঘদিন ধরেই আন্দোলন চলছে শ্রীলঙ্কায়। এই ইস্যুতে ২০১৩ সালের ২৬ জুন সিংহল রাভায়া সংগঠনের বৌদ্ধ ভিক্ষুরা কলম্বোতে প্রবল বিক্ষোভও দেখিয়ে ছিলেন। গোহত্যা বন্ধের দাবিতে এক বৌদ্ধ ভিক্ষু নিজের শরীরে আগুন দিয়ে আত্মহত্যাও করেন।

[আরও পড়ুন: ‘ওরা ঠগ, মহাত্মা গান্ধীকেও ছাড়েনি’, ফ্লয়েড হত্যার প্রতিবাদীদের তোপ ট্রাম্পের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement