২১ শ্রাবণ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ৬ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

ধোঁয়াশা জিইয়ে রেখে মাসুদকে নিয়ে শীঘ্রই জট খোলার আশ্বাস চিনের

Published by: Tanujit Das |    Posted: April 18, 2019 11:37 am|    Updated: April 18, 2019 11:37 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মাসুদ আজহারকে বিশ্ব সন্ত্রাসবাদী ঘোষণা নিয়ে আইনি জট খুলতে চলেছে। শীঘ্রই এ ব্যাপারে পদ্ধতিগত জটিলতা কেটে যাবে বলে বুধবার জানাল চিন। বেজিংয়ের তরফে জানান হয়েছে, এই মুহূর্তে মাসুদ ইস্যু রাষ্ট্রসংঘে নিষ্পত্তির সন্ধিক্ষণে দাঁড়িয়ে রয়েছে।

[ আরও পড়ুন: দুই ভারতীয় যুবককে শিরশ্ছেদের শাস্তি সৌদিতে, অন্ধকারে নয়াদিল্লি ]

সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে চিনা বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্র জানান, মাসুদের উপর থেকে ‘টেকনিক্যাল হোল্ড’ বা ‘পদ্ধতিগত বাধা’ তুলে নেওয়ার জন্য চিনের উপর কোনও চাপ নেই। এব্যাপারে মিথ্যে রটনা চলছে। এই ‘বাধা’ তুলে নেওয়ার জন্য নিরাপত্তা পরিষদের বাকি চারটি স্থায়ী সদস্য দেশ, আমেরিকা, রাশিয়া, ব্রিটেন, ফ্রান্স চিনকে ২৩ এপ্রিল পর্যন্ত কোনও সময়সীমা বেঁধে দেয়নি। ২৩ এপ্রিলের মধ্যে টেকনিক্যাল হোল তুলে নেওয়ার জন্য চিনকে নিরাপত্তা পরিষদের কোনও দেশ আলটিমেটাম বা চরম হুঁশিয়ারি দেয়নি। লু কাং বলেন, “এমন খবর কোথা থেকে সাংবাদিকরা পেলেন বুঝতে পারছি না। নিরাপত্তা পরিষদ এবং তার সংশ্লিষ্ট ১২৬৭ নম্বর কমিটির কাছে নির্দিষ্ট নির্দেশনামা ও নিয়ম রয়েছে। মাসুদ নিয়ে চিনকে কেউ আলটিমেটামও দেয়নি।”

পাক মদতপুষ্ট জঙ্গি মাসুদ আজহারকে ‘আন্তর্জাতিক জঙ্গি’ তকমা দেওয়া বিষয়ে এদিন এ ভাবেই ব্যাখ্যা করেছে চিন। তিনি আরও জানান, মাসুদ আজহার সম্পর্কে পুরনো অবস্থানেই দাঁড়িয়ে তারা। কিন্তু জট কাটাতে এ বিষয়ে আলোচনা চালানো হচ্ছে। তা নিষ্পত্তির পথেও এগোচ্ছে বলে দাবি করেছে চিন। গত মাসে মাসুদ আজহারকে নিয়ে জট কাটানোর ব্যাপারে ‘ইতিবাচক’ আশার কথা শোনায় চিন। বেজিংয়ের তরফে বলা হয়, ইতিবাচক পথে এগোচ্ছে মাসুদকে নিয়ে আলোচনা। এ বিষয়ে দিল্লি কূটনৈতিক সাফল্য মনে করলেও, ধোঁয়াশায় রয়েছেন আন্তর্জাতিক বিষয়ক বিশেষজ্ঞরা। ইতিবাচক বিষয়টি ‘বন্ধু’ পাকিস্তানের দিক থেকেও হতে পারে বলে অনুমান বিশেষজ্ঞদের।

[ আরও পড়ুন: নোতর দাম পুনর্নির্মাণে অর্থ সংগ্রহ ফরাসি প্রেসিডেন্টের, এগিয়ে এলেন শিল্পপতিরা ]

গত মাসে মাসুদ আজহারকে আন্তর্জাতিক জঙ্গি তকমা দেওয়ার বিষয়ে ভেটো প্রয়োগ করে চিন। এ নিয়ে ৪ বার ভেটো প্রয়োগ করেছে তারা। বেজিং ‘টেকনিক্যাল হোল্ড’ বা ‘পদ্ধতিগত বাধা’ প্রয়োগ করে যুক্তি দেয়, এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে আরও আলোচনার প্রয়োজন। সর্বসম্মতি নিয়েই চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে পৌঁছনো দরকার। ইতিমধ্যে সব পক্ষের মতামত নেওয়া হয়েছে। পুলওয়ামায় হামলার পর মাসুদকে জঙ্গি তকমা দিতে উঠে পড়ে লাগে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। নিরাপত্তা পরিষদে তড়িঘড়ি প্রস্তাব এনে আমেরিকা অপেশাদারি আচরণ দেখিয়েছে বলে দাবি করে চিন।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement