BREAKING NEWS

১৪ ফাল্গুন  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

মনিবকেই ছিঁড়ে খেল ১৮টি সারমেয়! প্রমাণে চোখ কপালে তদন্তকারীর

Published by: Bishakha Pal |    Posted: July 11, 2019 5:46 pm|    Updated: July 12, 2019 8:17 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কে বলে সারমেয় মানেই প্রভুভক্ত? একথা যে পুরোটা সত্যি নয়, টেক্সাসের সারমেয়দল তা প্রমাণ করে দিল। নিজের মালিকের দেহই ছিঁড়েখুঁড়ে খেল প্রায় ১৮টি সারমেয়। পড়ে রইল শুধু হাড়গোড়।

[ আরও পড়ুন: যুদ্ধের ক্ষত সারিয়ে দুই কোরিয়াকে ‘এক করতে’ কিমের দেশে ইন-গুক ]

টেক্সাসের বাসিন্দা পঞ্চাশোর্ধ্ব ফ্রেডি ম্যাক। সঙ্গী বলতে ছিল ১৮টি কুকুর। ওদের সঙ্গেই দিন কাটাতেন ফ্রেডি। পোষ্যদের নিয়ে ভয় তিনি পেতেন না। আর কেনই বা পাবেন? কুকুরের চেয়ে ভাল বন্ধু আর কে হয়? কিন্তু এরাই যে তাঁর দুর্দিন ডেকে আনবে, ঘুণাক্ষরেও বুঝতে পারেননি ফ্রেডি। প্রতিবেশীরা জানিয়েছেন, কুকুরের ভয়েই আত্মীয়রা ফ্রেডির বাড়িতে পা রাখতেন না। কিন্তু তাতে অসুবিধা ছিল না ৫৭ বছরের ওই ব্যক্তির। নিজেই আত্মীয়দের বাড়ি গিয়ে দেখা করে আসতেন। কিন্তু গত একমাস ফ্রেডির কোনও খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না। স্বাভাবিকভাবেই খবর দেওয়া হয় পুলিশে। তদন্ত করতে গিয়ে পুলিশ যা আবিষ্কার করে, তাতে চক্ষু চড়কগাছ কর্তাব্যক্তিদের।

ফ্রেডিকে খুঁজতে যখনই পুলিশ তাঁর বাড়ি গিয়েছে, তখনই পথ আগলে দাঁড়িয়েছে ১৮টি হিংস্র কুকুর। হাজার চেষ্টা করেও বাড়িতে ঢুকে তল্লাশি চালাতে পারেনি পুলিশ। একপ্রকার বাধ্য হয়েই ড্রোনের সাহায্য নিতে হয় পুলিশকে। ড্রোনের সাহায্যেই বাড়িতে চলছিল নজরদারি। তখনই দেখা যায় বাড়ির যত্রতত্র ছড়িয়ে রয়েছে ছেঁড়া কাপড় ও হাড়গোড়। অবস্থা বুঝতে দেরি হয় না তদন্তকারী অফিসারদের। ফ্রেডিকে যে তাঁর পোষ্য সারমেয়রাই ছিঁড়ে খেয়েছে, তা একপ্রকার নিশ্চিত হয়ে যান তাঁরা।

এরপর বাড়ি থেকে কুকুরদের সরিয়ে দেওয়া হয়। তাদের বিষ্ঠাও সংগ্রহ করা হয়। বিষ্ঠা পরীক্ষার পরেই গোয়েন্দাদের সন্দেহ ঠিক বলে প্রমাণিত হয়। কোনও কুকুরের বিষ্ঠায় মিলেছে মানুষের মাথার চুল তো কারও বিষ্ঠায় পোশাকের অপাচ্য অংশ। এরপরেই চাঞ্চল্য ছড়ায়। কারণ ফ্রেডির সূচ্যগ্রও বাড়ির আশপাশে মেলেনি। তদন্তকারীদের কথায়, “সারমেয়দের মানুষের দেহাংশ খাওয়ার ঘটনা বিরল নয়। তবে গোটা একটা মানুষ ও তাঁর পোশাক চেটেপুটে খেয়ে নেওয়ার ঘটনা এই প্রথম। তাও আবার মনিবকেই খেয়ে ফেলবে পোষ্য, প্রথমদিকে বিষয়টা পুরোপুরি বিশ্বাস হচ্ছিল না।” তবে মনিবকে হত্যা করে খেয়েছে না অসুস্থতার কারণে মৃত্যুর পর খাবার হিসাবে চেটেপুটে নিঃশেষ করেছে, সে বিষয়ে এখনও নিশ্চিত নন তদন্তকারীরা।

[ আরও পড়ুন: সাবধান! কিছুক্ষণের মধ্যেই প্রবল ভূমিকম্পে কেঁপে উঠতে পারে দেশ ]

An Images
An Images
An Images An Images