৭ ফাল্গুন  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: এবার প্রধানমনরী নরেন্দ্র মোদির বিরুদ্ধে তোপ দগলেন মার্কিন ধনকুবের জর্জ সোরস। সুইত্‍‌জারল্যান্ডের দাভোসে আয়োজিত ওয়ার্ল্ড ইকনমিক সামিটে তিনি দাবি করেছেন, ভারতে উগ্র রাষ্ট্রবাদ বাড়ছে।

সম্মেলনে বক্তৃতায় সোরস বলেন, ‘ক্রমশ উগ্র রাষ্ট্রবাদ বাড়ছে। এর সবচেয়ে বেশি কুপ্রভাব পড়েছে ভারতে। ওই দেশে গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে নির্বাচিত নরেন্দ্র মোদির সরকার হিন্দুরাষ্ট্র গঠন করার প্রস্তুতি নিচ্ছে। শুধু তাই নয়, কাশ্মীরে দমননীতি চালিয়ে লক্ষ লক্ষ মুসলিমদের নাগরিকত্ব কেড়ে নেওয়ার চেষ্টা চালানো হচ্ছে।’

মার্কিন ধনকুবেরের এহেন মন্তব্যে ইতিমধ্যে শুরু হয়েছে সমালোচনা। অনেকেই তাঁকে সমর্থন করলেও ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয় নিয়ে কথা বলায় তাঁর বিরুদ্ধে তোপ দেগেছেন অনেকেই। সব মিলিয়ে সোরসের বক্তব্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া পাওয়া গিয়েছে। তবে শুধু প্রধানমন্ত্রী মোদি নয়, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে ‘আত্মকেন্দ্রিক ও জালিয়াত’ বলেছেন তিনি। চিনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংকে একনায়ক বলেও সমালোচনা করেছেন সোরস।

উল্লেখ্য, সদ্য দাভোসের এই সম্মেলনেই পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সঙ্গে বৈঠকের পর  কাশ্মীর নিয়ে মধ্যস্থতার প্রস্তাব দিয়েছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তারপরই ভারতের বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্র রবীশ কুমার সাফ জানালেন, কাশ্মীর ইস্যুতে তৃতীয় কোনও ব্যাক্তি বা পক্ষের হস্তক্ষেপ চায় না ভারত। ইমরানের উদ্দেশে রবীশ বলেন, “আগে পাকিস্তান সন্ত্রাসে মদত দেওয়া বন্ধ করুক।” সব মিলিয়ে কাশ্মীর ইস্যুতে তৃতীয় পক্ষের হস্তক্ষেপ কোনওভাবেই মেনে নেবে না নয়াদিল্লি।             

[আরও পড়ুন: পাকিস্তানে হিন্দু নাবালিকাকে জোর করে ধর্মান্তকরণ, নির্যাতিতাকে হোমে পাঠাল আদালত]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং