BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

সরছে না বিপদের খাঁড়া, গত ২৪ ঘণ্টায় চিনে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত একশো

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: April 12, 2020 4:42 pm|    Updated: April 12, 2020 4:42 pm

An Images

ফাইল ফটো

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফাঁড়া যেন কেটেও কাটছে না। বেশ কয়েকমাস ধরে কঠিন লড়াইয়ে করোনা ভাইরাসের কবল থেকে সবে বেরিয়ে আসছিল চিন। ইউহানে যেন মুক্তির হাওয়া। লকডাউন উঠে গিয়েছে, ৮ তারিখ থেকে ইউহানের দরজা খুলে গিয়েছে সকলের জন্য। এমনই সময়ে ফের বিপদ যেন মাথাচাড়া দিয়ে উঠল। নতুন করে ফের চিনে থাবা বসাল নোভেল করোনা ভাইরাস। গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্তের সংখ্যা একশ ছুঁইছুঁই। এই পরিসংখ্যান মিলেছে চিনের সরকারি মাধ্যমের টুইট থেকেই।

চিনের ন্যাশনাল হেলথ কমিশন জানাচ্ছে, গত ৬ মার্চের পর একদিনে এত সংখ্যক মানুষের আক্রান্ত হওয়া এই প্রথম। তাদের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, চিনে এই মুহূর্তে করোনা পজিটিভের সংখ্যা ৮৩ হাজারের কিছু বেশি। তার উপর চিন্তা বাড়িয়েছে উপসর্গহীন রোগীদের সংখ্যা। সূত্রের খবর, চিনে অন্তত ৬৩ জন এরকম বাহকের সন্ধান পাওয়া গিয়েছে। যাঁদের শরীরে কোনও উপসর্গ নেই, অথচ পরবর্তী সময়ে করোনা পজিটিভ হয়েছেন তাঁরা। সূত্রের আরও খবর, শুক্র ও শনিবার যে ৯৯ জনের শরীরে COVID-19 এর অস্তিত্ব মিলেছে, তাঁদের মধ্যে মাত্র ২ জন স্থানীয় বাসিন্দা। বাকিরা বিদেশ ফেরত। অর্থাৎ মনে করা হচ্ছে, মাঝে কয়েকদিনের জন্য ইউহানের লকডাউন তুলে দেওয়ার ফলে বাইরে থেকে যাঁরা শহরে প্রবেশ করেছেন, তাঁদের মাধ্যমেই নতুন করে সংক্রমণ দেখা দিয়েছে।

[আরও পড়ুন: একাকীত্বের সাক্ষী বিশ্ব, ক্যামেরার সামনে ইস্টারের প্রার্থনা সারলেন পোপ ফ্রান্সিস]

শুধু ইউহান নয়, চিনের অন্যতম বড় বাণিজ্য শহর সাংহাইতেও প্রায় একই চিত্র। সেখানেও বিদেশ ফেরত বেশিরভাগের শরীরে মিলেছে নোভেল করোনা ভাইরাসের জীবাণু। এঁদের মধ্যে বেশিরভাগই ফিরেছিলেন রাশিয়া থেকে। যে দেশে করোনা ভাইরাস অনেক পরে থাবা বসালেও ইতিমধ্যে আক্রান্তের সংখ্যা ২০০০ ছাড়িয়েছে। রাশিয়ার লাগোয়া উত্তর-পূর্ব চিনের হেইলংজিয়াং প্রদেশ। সংক্রমণ বাড়তে থাকায় ১৩ তারিখ পর্যন্ত ওই সীমান্ত বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। কিন্তু তাতেও চিন্তা কমছে না। ঘুরে দাঁড়ানোর মুহূর্তেই নতুন করে করোনা সংক্রমণের ঘটনায় রীতিমতো আতঙ্কিত চিন। ভাইরাসকে দমন করা যে মোটেই সহজ নয়, তা বোধহয় হাড়ে হাড়ে টের পাচ্ছে শি জিনপিং প্রশাসন।

[আরও পড়ুন: করোনা নিয়ে অধিকৃত কাশ্মীরে নোংরা খেলা পাকিস্তানের! ফাঁস চাঞ্চল্যকর তথ্য]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement