BREAKING NEWS

৫ মাঘ  ১৪২৭  মঙ্গলবার ১৯ জানুয়ারি ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

আফগানিস্তানে হঠাৎ ডোভাল, সন্ত্রাস ইস্যুতে প্রেসিডেন্ট ঘানির সঙ্গে বৈঠক

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: January 14, 2021 3:19 pm|    Updated: January 14, 2021 3:19 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: তালিবান (Taliban)পরবর্তী আফগানিস্তানের সঙ্গে ভারতের সম্পর্ক অত্যন্ত মজবুত। সন্ত্রাসবাদ ইস্যুতে একাধিকবার পাকিস্তানকে একযোগে তুলোধোনা করেছে কাবুল ও নয়াদিল্লি। তবে সম্প্রতি আশরফ ঘানি প্রশাসনের সঙ্গে জঙ্গি তালিবানের আলোচনার আবহে বুধবার আচমকাই কাবুল পৌঁছান ভারতের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভাল (Ajit Doval)।

[আরও পড়ুন: ‘কাশ্মীরের পরিস্থিতি অত্যন্ত উদ্বেগজনক’, দাবি ব্রিটেনের মন্ত্রীর, অস্বস্তিতে দিল্লি]

ভারতের ‘সুপার স্পাই’ হিসেবে পরিচিত ডোভালের এই দু’দিনের হঠাৎ সফর ঘিরে আন্তর্জাতিক মহলে জল্পনা শুরু হয়েছে। ভারতে নিযুক্ত আফগানিস্তানের প্রতিনিধি তাহির কাদিরি টুইট করে জানান, সন্ত্রাসবাদ নিয়ে রাজধানী কাবুলে প্রেসিডেন্ট আশরফ ঘানির সঙ্গে বৈঠক করেন অজিত ডোভাল। সূত্রের খবর, বৈঠকে ঘানি আশা প্রকাশ করেন যে ভারত, ন্যাটো গোষ্ঠী ও অমেরিকার মদতে আফগানিস্তান থেকে জেহাদি শক্তিগুলিকে উৎখাত করা সম্ভব হবে। আফগান জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদ জানিয়েছে, সে দেশের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা হামদুল্লা মহিবের সঙ্গে সন্ত্রাসবাদ, আফগান ভূমে বিদেশি জেহাদি শক্তিগুলির উথ্থান-সহ একাধিক বিষয়ে আলোচনা করেন ডোভাল। আফগান প্রেসিডেন্টের তরফে জারি করা এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, আফগানিস্তানে শান্তি ফেরাতে ও সন্ত্রাসবাদ নির্মূল করতে উভয়পক্ষই একসঙ্গে কাজ করতে সম্মত হয়েছে। এছাড়া, আফগানিস্তানের বিদেশমন্ত্রী মহম্মদ আতমার, তালিবানের সঙ্গে আলোচনায় কাবুলের প্রধান প্রতিনিধি অবদুল্লা অবদুল্লার সঙ্গেও বৈঠক করেন ডোভাল।

উল্লেখ্য, গত বছর কাতারের রাজধানী দোহায় অমেরিকার (USA) সঙ্গে শান্তি আলোচনা শেষ হয় তালিবানের। তারপর গত সপ্তাহে আফগান সরকারের সঙ্গে মোল্লা বরাদারের নেতৃত্বে শান্তি আলোচনা শুরু করেছে জঙ্গি সংগঠনটি। আর এই গোটা প্রক্রিয়ার উপর কড়া নজর রাখছে নয়াদিল্লি। কারণ, তালিবানের শীর্ষ নেতৃত্বকে পরিচালিত করছে পাক গুপ্তচর সংস্থা আইএসআই। কয়েকদিন আগেই মোল্লা বারাদার ও তার সঙ্গীদের অকিস্তানে দেখা গিয়েছল। এহেন পরিস্থিতিতে অজিত ডোভালের কাবুল সফর যে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ তা বলাই বাহুল্য।

[আরও পড়ুন: ইথিওপিয়ায় ফের জঙ্গি হামলা, মৃত কমপক্ষে ৮০]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement