BREAKING NEWS

১৪ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

‘করোনা ভাইরাসের প্রভাব থাকবে কয়েক দশক’, সর্তক করলেন WHO’র প্রধান

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: July 31, 2020 10:20 pm|    Updated: July 31, 2020 10:20 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা ভাইরাসের প্রভাব আগামী কয়েক দশক থাকবে বলে সতর্ক করলেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO) -এর প্রধান টেড্রোস আধানম ঘেব্রিয়েসুস। শুক্রবার বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার একটি জরুরি বৈঠকে তিনি এই মন্তব্য করেন বলে জানা গিয়েছে।

শুক্রবার ওই বৈঠকের পর বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পক্ষ থেকে একটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। তাতে সংস্থার প্রধান টেড্রোস আধানম ঘেব্রিয়েসুসের বক্তব্যের উল্লেখ্য করা হয়েছে। তিনি বলেছেন, ‘এই ধরনের মহামারী শতাব্দীতে একবারই হয়। তবে এর প্রভাব পরিলক্ষিত হবে কয়েক দশক ধরে।’

[আরও পড়ুন: ভারতের ঘরে রাফালে আসতেই কাঁপুনি ধরেছে চিন-পাকিস্তানের, কান্নাকাটি শুরু ইসলামাবাদের ]

এর আগে সোমবার করোনার সংক্রমণকে বিশ্বের ইতিহাসে ভয়ংকরতম মহামারী হিসেবে উল্লেখ করেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ডিরেক্টর-জেনারেল টেড্রোস আধানম ঘেব্রিয়েসুস (Tedros Adhanom Ghebreyesus)। এর চেয়ে আপৎকালীন পরিস্থিতিতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে এর আগে কখনও পড়তে হয়নি বলেও জানান। তিনি বলেন,”এই নিয়ে ষষ্ঠবার স্বাস্থ্যক্ষেত্রে জরুরি অবস্থা জারি করল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। তবে নিশ্চিতভাবেই বলা যায়, এই ছ’বারের মধ্যে এটাই সবচেয়ে খারাপ অবস্থা।”

টেড্রোস আরও জানান, সংক্রমণ ছড়ানোর ৬ মাস পরেও এই ভাইরাস গতি বাড়াচ্ছে। শুধু গত ৬ সপ্তাহেই বিশ্বজুড়ে মোট আক্রান্তের সংখ্যাটা দ্বিগুণ হয়ে গিয়েছে। আর বিপদ এখনও বাকি আছে। এই মহামারী থেকে বাঁচার একমাত্র উপায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা। যেখানে স্বাস্থ্যবিধি মানা হচ্ছে, সেখানে সংক্রমণ কমছে। যেখানে মানা হচ্ছে না, সেখানে বাড়ছে। অনেক দেশ ধরেই নিয়েছিল, করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণ করে ফেলেছে তারা। সেই সব দেশেও নতুন করে সংক্রমণ ছড়াচ্ছে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, করোনার আগে সোয়াইন ফ্লু, জিকা ভাইরাস, পোলিও সংক্রমণ এবং দু’বার ইবোলা সংক্রমণের সময়ে বিশ্বজুড়ে স্বাস্থ্যক্ষেত্রে জরুরি অবস্থা জারি করেছিল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। কিন্তু কোনওক্ষেত্রেই পরিস্থিতি এতটা ভয়াবহ হয়নি। 

[আরও পড়ুন: করোনা ভ্যাকসিন জোগান দেবে আমেরিকা, বিশ্ববাসীকে আশ্বাস ট্রাম্পের]

 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement