BREAKING NEWS

২৮ শ্রাবণ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১৩ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

‘মওকা মওকা’র পালটা, অভিনন্দনকে কটাক্ষ করে বিশ্বকাপের বিজ্ঞাপন পাকিস্তানের

Published by: Tanujit Das |    Posted: June 11, 2019 8:44 pm|    Updated: June 12, 2019 12:41 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রেকর্ড বলছে বিশ্বকাপের মঞ্চে আজ পর্যন্ত ভারতকে পরাজিত করতে পারেনি পাকিস্তান৷ বারবারই হেরে ফিরতে হয়েছে তাদের৷ এমতো পরিস্থিতিতে আগামী ১৬ জুন আরও একবার ক্রিকেটীয় যুদ্ধে নামতে চলেছে যুযুধান দু’পক্ষ৷ কিন্তু ময়দানি যুদ্ধে নামার আগেই হয়তো হাল ছেড়েছেন সরফরাজ আহমেদরা৷ যা স্পষ্ট ধরা পেড়েছে, বেসরকারি পাক টেলিভিশন চ্যানেল জ্যাজ টিভির একটি বিজ্ঞাপনে৷ অভিযোগ, সম্প্রতি বিশ্বকাপে ভারত-পাক ম্যাচ নিয়ে যে বিজ্ঞাপন সম্প্রচার করেছে চ্যানেলটি, সেখানে নাকি কটাক্ষ করা হয়েছে ভারতীয় বায়ুসেনার উইং কম্যান্ডারর অভিনন্দন বর্তমানকে৷

[ আরও পড়ুন: ফের সাম্প্রদায়িক সংঘাতে রক্তাক্ত মালি, নিহত অন্তত ১০০]

চলতি বছর পাকভূমিতে ভারতীয় বায়ুসেনার এই উইং কমান্ডার অভিনন্দন আটক হওয়ার পরই, প্রথম যে ভিডিওটি প্রকাশ্যে এসেছিল, এক্ষেত্রেও বিজ্ঞাপনটিকেও তেমনই তৈরি করা হয়েছে৷ জানা গিয়েছে, ওই বিজ্ঞাপনটিতে অভিনন্দন বর্তমানের মতো দেখতে এক ব্যক্তিকে ব্যবহার করা হয়েছে৷ তাকেও বন্দি অবস্থায় দেখানো হয়েছে। আহত অবস্থায় পাক সেনার হাতে বন্দি অভিনন্দনের মতোই জেরায় প্রশ্নের উত্তর দিতে দেখা গিয়েছে ওই অভিনেতাকে। বাস্তবে ভারতীয় বায়ুসেনার কম্যান্ডার যেমন পাক সেনার সমস্ত প্রশ্ন এড়িয়ে গিয়েছিলেন, এক্ষেত্রে এই অভিনেতাকেও তেমনই করতে দেখা গিয়েছে৷ পাক চ্যানেলটির এই বিজ্ঞাপন ছড়িয়ে পড়তেই সোশ্যাল মিডিয়ায় বিতর্কের ঝড় উঠেছে৷ নিন্দায় সরব নেটিজেনদের একাংশ৷

[ আরও পড়ুন: তছরুপের দায়ে গ্রেপ্তার প্রাক্তন পাক প্রেসিডেন্ট আসিফ আলি জারদারি ]

প্রসঙ্গত, গত ১৪ ফেব্রুয়ারি রক্তে লাল হয়েছিল পুলওয়ামা৷ জঙ্গি হামলায় শহিদ হন চল্লিশেরও বেশি সিআরপিএফ জওয়ান৷ গোটা ঘটনায় দেশবাসীর মনে ক্ষোভের আগুন জ্বলতে শুরু করে৷ পুলওয়ামায় হামলার ঠিক বারোদিনের মাথায় বোমারু যুদ্ধবিমান মিরাজ-২০০০ এর মাধ্যমে আকাশপথে পাকিস্তানের বালাকোটে হামলা চালায় ভারতীয় বায়ুসেনা৷ ধ্বংস করে দেওয়া হয় বেশ কয়েকটি জঙ্গিঘাঁটি৷ তবে, তাতেও শিক্ষা হয়নি পাকিস্তানের৷ তার ঠিক পরেরদিনই আকাশপথে ভারতকে আক্রমণের চেষ্টা করে পাকিস্তান৷ তার যোগ্য জবাব দেয় ভারত৷ ধাওয়া করে পাকিস্তানের এফ-১৬ বিমান গুলি করে নামান ভারতীয় বায়ুসেনার উইং কমান্ডার অভিনন্দন৷ যদিও সীমানা পেরিয়ে ঢুকে যাওয়ায় পাকিস্তান বন্দি করে অভিনন্দনকে৷ যুদ্ধের আবহে শত্রুপক্ষের হাতে ধরা পরেও দাঁতে দাঁত চেপে নিজের দায়িত্ব পালন করেন অভিনন্দন৷ এদিকে কূটনৈতিক চাপের কাছে মাথা নত করে অভিনন্দনকে ভারতে ফেরাতে বাধ্য হন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান৷ ৬০ ঘণ্টা পাকভূমে থাকার পর দেশে ফেরেন তিনি৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement