২ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘মুসলিম বিদ্বেষী ভারত’, ইসলামিক দেশগুলির কাছে অপপ্রচার চালাচ্ছে পাকিস্তান

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: May 3, 2020 1:24 pm|    Updated: May 3, 2020 1:24 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় কিছু উগ্র হিন্দুত্ববাদিদের বেফাঁস পোস্টের দরুন মধ্যপ্রচ্যের ইসলামিক দেশগুলির মধ্যে ভারতের প্রতি বিরূপ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে। যা কাজে লাগাতে মরিয়া পাকিস্তান। ইসলামিক দেশগুলির কাছে ভারতকে আরও বদনাম করার লক্ষে তাঁরা কোমর বেঁধে নেমেছে। সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইট টুইটারে ভারতকে মুসলিম বিরোধী প্রমাণ করার জন্য রীতিমতো ‘আইটি সেল’ তৈরি করে ফেলেছে পাকিস্তান।

ভারতের গোয়েন্দা সুত্রের খবর পাকিস্তান এমন ৭ হাজার ভুয়ো অ্যাকাউন্ট টুইটারে তৈরি করেছে যাঁদের কাজই হল ভারতকে মুসলিম বিদ্বেষী প্রমাণ করা। জানুয়ারি থেকে মার্চ মাস পর্যন্ত ৭০০০ পাকিস্তানি টুইটার অ্যাকাউন্ট ভারতের নামে মিথ্যাচার করত আন্তর্জাতিক মহলে। এপ্রিল মাসে সেই তালিকায় যুক্ত হয়েছে আরও ৭ হাজার অ্যাকাউন্ট। ইতিমধ্যেই ভারতীয় গোয়েন্দারা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকে নিজেদের রিপোর্ট জমা দিয়েছেন।

[আরও পড়ুন: করোনা মোকাবিলায় ব্যর্থ! অ্যানিমেশনের মাধ্যমে আমেরিকাকে নিয়ে ‘মশকরা’ চিনের]

সম্প্রতি মুসলিম বিদ্বেষ ইস্যুতে নতুন করে বিতর্কের সূত্রপাত হয় তরুণ বিজেপি সাংসদ তেজস্বী সূর্যর একটি পুরনো টুইট ঘিরে। সাংসদ হওয়ার আগে সেই টুইটে তেজস্বী আরবের মুসলিম মহিলাদের উদ্দেশ্যে একটি বিতর্কিত মন্তব্য করে বসেন। বহুদিন পর সেই টুইটটি ভাইরাল হয়। এবং তা নিয়ে তীব্র প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয় মধ্যপ্রাচ্যের মুসলিম দেশগুলিতে। সংযুক্ত আরব আমিরশাহীর এক রাজকন্যা তেজস্বী সূর্যকে হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, ‘আমি ভারতে গান্ধীর দেশ হিসেবে চিনি। জানি এই দেশ অনেক আত্মত্যাগ করেছে। এখন গোটা বিশ্ব কোভিড-১৯(COVID-19)-এর বিরুদ্ধে লড়াই করছে। এই সময়ে ঘৃণা ছড়ানো বন্ধ রাখা উচিত।’এরপর ইসলামিক দেশগুলির বৃহত্তম সংগঠন Organisation of Islamic Cooperation (OIC)-ও ভারতের পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে।

[আরও পড়ুন: করোনা-ভূমিকম্পের জোড়া ধাক্কা সামলে হাসছে ক্রোয়েশিয়া, গল্প শোনালেন প্রবাসী গবেষক]

ভারতের বিরুদ্ধে ইসলামিক দেশগুলির এই অসন্তোষকেই কাজে লাগাতে চাইছে পাকিস্তান। টুইটারে সীমান্তের ওপার থেকে ভারতের নামে লাগাতার অপপ্রচার চালানো হচ্ছে। করা হচ্ছে মিথ্যাচারও। উদ্বেগের বিষয় হল যে ৭০০০ টুইটার অ্যাকাউন্ট ক্রমাগত ভারতের বিরুদ্ধে মিথ্যাচার করছে তাঁরা নিজেদের পাকিস্তানি হিসেবে পরিচয় না দিয়ে ভারতীয় বা আরব দেশগুলির বাসিন্দা হিসেবে পরিচয় দিচ্ছে। যাতে তাঁদের অপপ্রচার বিশ্বাসযোগ্য মনে হয়। ভারত সরকারও দ্রুত এই অপপ্রচারের বিরুদ্ধে আসরে আমার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement